default-image

ক্রিকেট কত বদলে গেছে রমিজ রাজার এক টুইটেই যেন সেটি পরিস্কার। গত ৩৭ বছরে ক্রিকেটে এসেছে অর্থের জোয়ার। আজকের দিনে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মারা একটি ম্যাচ খেলেই যা পান, তা এক সময় কপিল দেব, সুনীল গাভাস্কারদের মতো তারকাদের কাছে ছিল অকল্পনীয় ব্যাপার। ভারতের ১৯৮৩ বিশ্বকাপজয়ী দলের প্রত্যেক খেলোয়াড় তিন দিনের জন্য ভাতা হিসেবে পেতেন মাত্র ২ হাজার ১০০ রুপি! ভাবা যায়!

রমিজ নিজের টুইটারে সেই সময়ের একটি রশিদের ছবি পোস্ট করেছেন। ১৯৮৩ বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় ক্রিকেটাররা যে রশিদে সই করে নিজেদের প্রাপ্য বুঝে নিয়েছিলেন। আজ থেকে ৩৭ বছর আগের সেই রশিদটি নিয়ে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক এতটাই বিমোহিত যে সেই সময় একটি সফরে পাকিস্তান দলের দৈনন্দিন ভাতার একটি রশিদও খোঁজা শুরু করে দিয়েছেন।

default-image

৩৭ বছরের পুরোনো বিবর্ণ রশিদটা দেখে এ প্রজন্ম অবাক হবেই। সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রতিদিন ২০০ ভারতীয় রুপি হিসেবে তিন দিনে অধিনায়ক কপিল দেব পেয়েছেন ৬০০ রুপি। এর সঙ্গে ম্যাচ ফি পেয়েছেন ১৫০০ রুপি। সব মিলিয়ে ২১০০ রুপি পেয়েছেন প্রত্যেক ক্রিকেটার। প্রত্যেক ক্রিকেটার সই করে নিজেদের পারিশ্রমিক বুঝে নিয়েছিলেন।

ইংল্যান্ড সফরের ওই দৈনন্দিন ভাতার কাগজটা দেখে রমিজ টুইট করেছেন, ‘আমরা ১৯৮৬-৮৭ সালে ভারত সফরে গিয়ে যা পেয়েছিলাম সেটার একটা কাগজ খুঁজে পেতে চেষ্টা করব। ৫ টেস্ট আর ৬ ওয়ানডে খেলে আমি যেটা পেয়েছিলাম সেই অঙ্কটা অবশ্য এখনও মনে আছে। সব মিলিয়ে আমি পেয়েছিলাম ৫৫ হাজার রুপি।’

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন