বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে যাওয়ার পর অধিনায়ক হিসেবে বিরাট কোহলি বলেছিলেন, ক্রিকেটারেরা যথেষ্ট সাহস দেখিয়ে খেলতে পারেননি। কোহলির এমন নেতিবাচক কথা মোটেও পছন্দ হয়নি কপিলের। তিনি স্পষ্ট করেই জানিয়েছেন, কোহলির এমন মন্তব্য শুনে দলের ক্রিকেটাররা অসন্তষ্ট হতে পারেন।

পাশাপাশি ভারতীয় দলের চূড়ান্ত ব্যর্থতার পর তাঁর চাওয়া, বিসিসিআই যেন এই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য সরাসরি হস্তক্ষেপ করে। তার মতে, বড় নামের ওপর নির্ভর না করে তরুণদের আরও বেশি সুযোগ দেওয়ার বিষয়ে বিসিসিআইয়ের চিন্তা করার সময় এসেছে।

নিউজিল্যান্ডের কাছে ভারতের হারের পর কপিল দেব বলেন, ‘টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় হারে ছিটকে যেতে বসেছে তারকাসমৃদ্ধ এই ভারতীয় দল। লিগের পয়েন্ট তালিকার যা পরিস্থিতি, তাতে ভারত বাকি সব ম্যাচ দাপটের সঙ্গে জিতলেও হয়তো সেমিফাইনালে ওঠার যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে না। তাদের নির্ভর করে থাকতে হবে অন্য দলের ম্যাচের দিকে। আফগানিস্তান, স্কটল্যান্ড বা নামিবিয়া এখন নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারে কি না, তার ওপরই নির্ভর করবে ভারতের ভবিষ্যৎ।’

default-image

কপিল দেবের সব ক্ষোভ এসে পড়েছে ভারতীয় বোর্ডের বিরুদ্ধে। নির্বাচকদের বিরুদ্ধ। সফল হওয়ার জন্য অন্যান্য দলের ওপর নির্ভর করে থাকা ব্যর্থতার শামিল বলেই মনে হয়েছে কপিল দেবের।

এবিপি নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমরা যদি অন্য দলগুলোর ম্যাচের ফলের কারণে সাফল্য পাই, ভারতীয় ক্রিকেটে সেটা কখনোই প্রশংসা করার মতো কিছু হতে পারে না। আপনি যদি বিশ্বকাপ জিততে চান অথবা সেমিফাইনালে উঠতে চান, তাহলে আপনাকে নিজের যোগ্যতা দিয়েই সেটা করতে হবে। অন্য দলগুলোর ওপর নির্ভর করে নয়। আমার মনে হয়, নির্বাচকদের ভেবে দেখার সময় এসেছে যে শুধুই বড় নাম আর বড় খেলোয়াড়দের ভবিষ্যত কী হবে।’

default-image

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের আগে ভারতের ক্রিকেটবোদ্ধারা যখন বিরাট কোহলির দলের জয়ের সম্ভাবনা নিয়ে উচ্চকিত ছিলেন, তখন কপিল দেবই আশঙ্কা করেছিলেন, এই সংস্করণে পাকিস্তান যথেষ্ট শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। ভারতকে যে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলতে পারে পাকিস্তান, সেই আশঙ্কা ছিল কপিলের। শেষ পর্যন্ত সেই আশঙ্কা সত্যি প্রমাণিত করে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো ভারতকে হারিয়ে দেয় পাকিস্তান।

কপিল দেব মনে করেন, ক্রিকেটারদের একটা সরাসরি বার্তা দেওয়া উচিত ভারতীয় বোর্ডের, ‘বিসিসিআইকে ভাবতে হবে যে তরুণ ক্রিকেটাররা আইপিএলে ভালো করছে। তাদের কি সুযোগ দেওয়ার সময় এসেছে? তারা হারলে ক্ষতি নেই। কারণ, তারা অভিজ্ঞতা অর্জন করবে। কিন্তু এই তারকা খেলোয়াড়েরা যদি পারফর্ম না করতে পেরে হারে, এত খারাপ ক্রিকেট খেলে, তাতে সমালোচনা হবেই। বিসিসিআইয়ের এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন এবং তরুণদের তুলে আনার কথা তাদের আরও ভাবতে হবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন