default-image

করোনাকালের স্বাস্থ্যবিধি বদলে দিয়েছে জীবনযাপনের অনেক নিয়ম। বদলে দিয়েছে খেলাধুলায় উদ্‌যাপনের চিরাচরিত কিছু দৃশ্যও। তো করোনা-বিরতি কাটিয়ে ক্রিকেট মাঠে ফেরার পর কেমন হতে পারে বোলার বা ব্যাটসম্যানদের উদ্‌যাপন? জেমস অ্যান্ডারসনের মাধ্যমে সেটার কিছুটা আভাস পাওয়া গেল।

হাত মেলানো নেই, নেই হাই ফাইভও। দৌড়ে এসে সতীর্থের পিঠ চাপড়ে দেওয়া নেই, নেই উচ্ছ্বাসে জড়িয়ে ধরাও। শুধু কনুইয়ে কনুই ঠেকিয়ে অভিনন্দন জানানো—ব্যস, এটুকুই। প্রস্তুতি ম্যাচে ইংলিশ পেসার অ্যান্ডারসন উইকেট পাওয়ার পর তাঁর সঙ্গে এভাবেই উদ্‌যাপন করেছেন সতীর্থরা। আগামী দিনে ক্রিকেটের উদ্‌যাপনও কি এ রকমই হতে যাচ্ছে?

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ সামনে রেখে কাল একটা প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ড নিজেদের মধ্যে। যেখানে মুখোমুখি হয়েছে ‘টিম স্টোকস’ ও ‘টিম বাটলার’ নামে দুই দল। ওই ম্যাচেই জো ডেনলিকে অ্যান্ডারসন আউট করার পর দেখা গেছে এমন উদ্‌যাপন। উইকেটকিপার বেন ফোকস অবশ্য দৌড়ে এসেছে হাই ফাইভ-এর জন্য হাতও তুলেছিলেন। তারপরই হয়তো তাঁর মনে হয়েছে, এখন তো করোনাকাল, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে!

করোনা-বিরতি শেষে ইউরোপিয়ান ফুটবল মাঠে ফেরার পরও শুরুতে দেখা গেছে এমন স্বাস্থ্যবিধি মেনে উদ্‌যাপন। এখন অবশ্য সবাই আর সেটা মানছেন না, অনেক ফুটবলারকেই দেখা যায় সতীর্থকে জড়িয়ে ধরে উদ্‌যাপন করতে। হয়তো ভাবেন, সবাই যেহেতু করোনা নেগেটিভ নিশ্চিত হয়েই মাঠে নামছে, এত সতর্কতার দরকার নেই। আবার কেউ কেউ এখনো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন।

ক্রিকেটও ফিরছে একেবারে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে। মাঠে নামার আগে করোনা নেগেটিভ নিশ্চিত হয়ে, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন কাটিয়ে আসছেন ক্রিকেটারেরা। তবে তারপরেও সতর্ক থাকলে সমস্যা কী! অ্যান্ডারসনদের এমন উদ্‌যাপন হয়তো ওই সতর্কতা মাথায় রেখেই। তবে এটা কত দিন ধরে রাখতে পারেন ক্রিকেটারেরা, সেটাই দেখার অপেক্ষা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0