ভারতে হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। শঙ্কা জেগেছে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়া নিয়ে।
ভারতে হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। শঙ্কা জেগেছে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়া নিয়ে। ছবি: রয়টার্স

ভারতের করোনা পরিস্থিতির খুবই নাজুক অবস্থা। প্রতিদিন সাড়ে তিন লাখের ওপর মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। মারা যাচ্ছেন দুই থেকে আড়াই হাজার মানুষ। এর মধ্যেই চলছে দেশটির ফ্র্যাঞ্চাইজি টি–টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আইপিএল। এ নিয়ে চারদিকে সমালোচনাও কম হচ্ছে না। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন—এই মৃত্যুর মিছিলের মধ্যে আইপিএল কেন! তবে সব সমালোচনা পাশে সরিয়ে রেখে আইপিএল চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় কর্তৃপক্ষ। তা আইপিএল নাহয় হচ্ছে, কিন্তু টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে তো সেখানে?

ক্রিকেট বিশ্বে এরই মধ্যে উঠে গেছে প্রশ্নটা—অক্টোবর–নভেম্বরে ভারতে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন সম্ভব কি না? অস্ট্রেলিয়ার দৈনিক সিডনি মর্নিং হেরাল্ড খবর দিয়েছে, ভারতে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে বিকল্প চিন্তাও করে রেখেছে আইসিসি। অস্ট্রেলিয়ার পত্রিকাটি লিখেছে, ভারতের করোনা পরিস্তিতির যদি নিকট ভবিষ্যতে উন্নতি না হয়, তাহলে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সংযুক্ত আরব আমিরাতে আয়োজন করার কথা ভাবছে আইসিসি।

বিজ্ঞাপন
default-image

বড় বড় টুর্নামেন্ট আয়োজনে সংযুক্ত আরব আমিরাত এরই মধ্যে বেশ সুনাম অর্জন করেছে। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই জৈব সুরক্ষাবলয়ের মধ্যে গত মৌসুমের আইপিএল আয়োজন করেছে তারা। এ ছাড়া অনেক বছর ধরেই পাকিস্তানের ঘরের ম্যাচগুলো আয়োজন করে আসছে দেশটি।

করোনার ভয়াবহ অবস্থার মধ্যেও আইপিএল চালিয়ে যাওয়ায় এমনিতেই সমালোচনা হচ্ছে বিসিসিআইর। আইপিএল ছেড়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার অ্যাডাম জাম্পা প্রশ্ন তুলেছেন টুর্নামেন্টের জৈব সুরক্ষাবলয় নিয়েও, ‘আমরা কয়েকটি জৈব সুরক্ষাবলয়ে থেকেছি। আমার কাছে মনে হয়েছে এটাই (আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয়) সবচেয়ে অরক্ষিত।’

default-image

অস্ট্রেলিয়ার স্পিনারের ব্যাখ্যা, ‘ভারতে সব সময়ই আমাদের স্বাস্থ্যবিধির কথা বলা হচ্ছে। বলা হচ্ছে সতর্ক থাকতে। সব মিলিয়ে আমার কাছে মনে হয়েছে, এটাই সবচেয়ে অরক্ষিত জৈব সুরক্ষাবলয়।’ গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে হওয়া আইপিএলে জাম্পার কাছে এমনটা মনে হয়নি, ‘ছয় মাস আগে দুবাইতে (আসলে সংযুক্ত আরব আমিরাত) হওয়া আইপিএলের সময় আমার কখনোই এমনটা মনে হয়নি। সেখানে আমি নিজেকে পুরোপুরি নিরাপদ মনে করেছিলাম।’

এবারও আইপিএল ভারতে আয়োজন করা ঠিক হয়নি বলে মনে করেন জাম্পা, ‘আমি মনে করি, আইপিএল আয়োজনের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতই সেরা বিকল্প হতে পারত।’ তবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করার সমস্যাটাও বোঝেন তিনি, ‘এটা ঠিক যে এখানে (সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করার ক্ষেত্রে) রাজনৈতিক অনেক বিষয় জড়িয়ে আছে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয়কে ‘অরক্ষিত’ বলে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে হওয়া নিয়েও শঙ্কা তুলে দিয়েছেন জাম্পা। এ ছাড়া ভারতের সঙ্গে অনেক দেশেরই বিমান চলাচল বন্ধ এখন। এর মধ্যে আছে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডও। সব মিলিয়ে করোনা পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নতি না হলে ভারতে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। সংবাদমাধ্যমের খবর, সে ক্ষেত্রে আইসিসি টুর্নামেন্টটি আয়োজন করতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন