default-image

আইপিএল ছেড়ে পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রবিচন্দ্র অশ্বিন। ভারতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মারাত্মক হয়ে ওঠায় আইপিএলে খেলা ছেড়ে পরিবারের সঙ্গে থাকতে চান দিল্লি ক্যাপিটালসের এ বোলিং অলরাউন্ডার। কাল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে সুপার ওভারে জয়ের পর টুইট করে সিদ্ধান্তটি জানান অশ্বিন। তিনি জানিয়েছেন ‘কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিপক্ষে লড়ছে’ তাঁর পরিবার। তাদের সমর্থন জানাতেই আইপিএল ছাড়ছেন ভারতের এ তারকা স্পিনার। অশ্বিন জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে আইপিএলে ‘ফিরতেও পারেন।’

রোববার রাতে অশ্বিন এই সিদ্ধান্ত জানানোর আগে রাজস্থান রয়্যালসের পেসার অ্যান্ড্রু টাই ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে আইপিএল ছেড়ে নিজের দেশ অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। গত সপ্তাহে টাইয়ের রয়্যালস সতীর্থ লিয়াম লিভিংস্টোনও ফিরে যান ইংল্যান্ডে। আইপিএলে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশ দীর্ঘদিন থাকার ধকল নিতে পারছিলেন না তিনি। এবার অশ্বিন ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে টুইট করলেন, ‘কাল থেকে আমি এ বছরের আইপিএলে আর খেলছি না। কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিপক্ষে লড়ছে আমার পরিবার ও কাছের মানুষরা। এই কঠিন সময়ে আমি তাদের পাশে দাঁড়াতে চাই। পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে হয়তো ফিরব।’

বিজ্ঞাপন

অশ্বিনের সিদ্ধান্তের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি দল দিল্লি ক্যাপিটালস। তাদের টুইট, ‘এই কঠিন সময়ে রবিচন্দ্র অশ্বিনের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রইল। দিল্লি ক্যাপিটালসের পক্ষ থেকে তুমি ও তোমার পরিবারের জন্য প্রার্থনা জানাই।’ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রোববার সকালে আরও দুজন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার আইপিএল ছেড়ে দেশে ফেরার ইচ্ছার কথা নিজ নিজ ফ্র্যাঞ্চাইজি দলকে জানান। ভারতে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন গড় সংক্রমণের সংখ্যা প্রায় ৩ লাখ। সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। অবকাঠামোগত সমস্যা ও সংক্রমণ এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সেভাবে চিকিৎসাসেবাও দিতে পারছে না ভারত।

আইপিএল ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানানোর আগে ভারতে করোনার ভয়াবহ অবস্থা নিয়েও একটি টুইট করেন অশ্বিন, ‘আমার দেশের অবস্থা দেখে হৃদয় ভেঙে যাচ্ছে! চিকিৎসেবার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের সঙ্গে তো আর আমি নেই। কিন্তু তাদের প্রতি অন্তর থেকে কৃতজ্ঞতা জানাই। সব ভারতীকে সাবধানে থাকার অনুরোধ রইল।’ দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ রিকি পন্টিং শনিবার জানিয়েছিলেন, ভারতে সংক্রমণ বেড়ে চললেও ‘খেলোয়াড়েরা সবচেয়ে নিরাপদে আছেন।’ তবে আইপিএলের বাইরে ভারতে চলমান সংক্রমণের ভয়াবহতার কথা জানান পন্টিংরা।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন