বাংলাদেশ সময় আগামীকাল রাত আটটায় পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে ম্যাচ দিল্লির। সেটির ভেন্যু এরই মধ্যে বদলে গেছে, পুনের বদলে মুম্বাইয়ে হবে ম্যাচটি। তারিখও বদলে যাবে কি না, সেটি নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর। ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো লিখেছে, আগামীকাল ম্যাচের দিন সকালে দলের সবার করোনা পরীক্ষা করা হবে, তাতে পরিস্থিতি খেলার মতো মনে হলেই ম্যাচটি হবে। না হলে পিছিয়ে যাবে।

তবে দিল্লি ভক্তদের জন্য—মোস্তাফিজের কারণে দিল্লির ম্যাচে চোখ রাখা বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্যও—ম্যাচ নিয়ে সুখবর, চতুর্থ রাউন্ডের পরীক্ষায় শুধু মিচেল মার্শ ছাড়া বাকি সবারই করোনা নেগেটিভ এসেছে।

সূচি অনুযায়ী পুনেতে হওয়ার কথা ছিল ম্যাচটি, গতকাল মুম্বাই থেকে পুনেতে রওনা দেওয়ার কথা ছিল দিল্লি ক্যাপিটালসের। কিন্তু দলে করোনা ছড়িয়ে পড়ায় আইপিএল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা শেষে পুনে যাত্রা বাতিল করে ক্যাপিটালস, দলের সবাইকে পাঠানো হয় কোয়ারেন্টিনে।

আজ মঙ্গলবার আইপিএল আয়োজক কমিটির সভা হয়েছে বলে জানাচ্ছে ক্রিকইনফো, সভা শেষেই বিবৃতি দিয়ে ম্যাচের ভেন্যু পুনের এমসিএ স্টেডিয়ামের বদলে মুম্বাইয়ের ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে ঠিক করার কথা জানানো হয়েছে।

default-image

কারণ হিসেবে বিবৃতিতে আইপিএল কমিটি লিখেছে, ‘বদ্ধ পরিবেশে এত লম্বা বাস সফরের ক্ষেত্রে এখনো করোনা ধরা না পড়া কারও থেকে নতুন করে কেউ করোনা সংক্রমিত হওয়ার’ ঝুঁকি এড়াতেই দিল্লি ক্যাপিটালস দলকে পুনে সফর বাতিল করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আইপিএল কর্তৃপক্ষও দিল্লি দলে পাঁচজনের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে। তবে এই পাঁচজনের মধ্যে যত দুশ্চিন্তা মার্শকে ঘিরে। গতকাল তাঁর করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর জানিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আজ তাকের সাংবাদিক বিক্রান্ত গুপ্ত লিখেছেন, মার্শের করোনা পরীক্ষায় ‘সিটি ভ্যালু’ এসেছে মাত্র ১৭।

ভারতে প্রস্তাবিত সিটি ভ্যালু এই মুহূর্তে ৩৫, অর্থাৎ কারও সিটি ভ্যালু ৩৫-এর বেশি এলেই তাঁকে করোনা পজিটিভ ধরা হবে। সিটি ভ্যালু যত কম হবে, আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে ভাইরাসের পরিমাণ বা ‘ভাইরাল লোড’ তত বেশি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন