জস বাটলার আউট হয়ে যাওয়ার পর কোহলির উচ্ছ্বাস।
জস বাটলার আউট হয়ে যাওয়ার পর কোহলির উচ্ছ্বাস। ছবি: এএফপি

ম্যাচে তখন টান টান উত্তেজনা। জস বাটলারের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ভারতের রান–পাহাড় টপকানোর দিকে খুব ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল ইংল্যান্ড। ২২৫ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে এউইন মরগানের দলের রান তখন ১২.৪ ওভারে ১ উইকেটে ১৩০। এমন সময়েই কিনা ছন্দপতন হলো ইংল্যান্ডের ইনিংসে। ভুবনেশ্বর কুমারের পরের বলেই হার্দিক পান্ডিয়ার কাছে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন বাটলার। গুরুত্ব এই সময়ে বাটলারের উইকেট পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে যান বিরাট কোহলি। উইকেট পাওয়ার উদ্‌যাপনটাও ছিল একটু উন্মত্ত!

ভারতের অধিনায়কের অমন উদ্‌যাপন হয়তো ভালো লাগেনি বাটলারের। ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে যাওয়ার সময় কী মনে করে যেন একটু দাঁড়ালেন। কোহলিকে উদ্দেশ করে কী যেন বললেন। কোহলি কি আর ছেড়ে দেওয়ার পাত্র! বাটলারের দিকে এগিয়ে গেলেন তিনি। জড়িয়ে পড়লেন কথার লড়াইয়ে। খানিকক্ষণ চলল তাঁদের দুজনের সেই কথার লড়াই। পরে অবশ্য আম্পায়ারের হস্তক্ষেপে ঘটনা বেশি দূর গড়ায়নি।

বিজ্ঞাপন
default-image

বাটলার চলে যাওয়ার পরও কোহলিকে আম্পায়ার নিতিন মেননের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে দেখা যায়। বাটলার চলে যাওয়ার পরও অবশ্য ম্যাচে ছিল ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ‘ফাইনাল’ হয়ে যাওয়া সিরিজের শেষ ও পঞ্চম টি–টোয়েন্টিটি জিততে পারেনি তারা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৮৮ রান তুলতে পেরেছে ইংল্যান্ড। ম্যাচটি হেরেছে তারা ৩৬ রানে। ১৫ রানে ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন ভুবনেশ্বর।

ম্যাচ শেষে মরগান প্রশংসায় ভাসিয়েছেন কোহলিদের, ‘ম্যাচের বড় মুহূর্তগুলোয় ভারত আমাদের উড়িয়ে দিয়েছে। জয় তাদের প্রাপ্যই ছিল।’ কোহলি প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তাঁর ব্যাটসম্যানদের, ‘আমরা নিখুঁত একটি ম্যাচ খেলেছি। প্রতিপক্ষকে একদম উড়িয়ে দিয়েছি। এ ম্যাচে আমরা আমাদের ব্যাটিং লাইনআপের গভীরতার প্রমাণ দিয়েছি।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন