টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে তিনে উঠে এসেছেন জো রুট।
টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে তিনে উঠে এসেছেন জো রুট।ছবি: রয়টার্স

একটা সময় টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বর ব্যাটসম্যান ছিলেন জো রুট। স্টিভ স্মিথ, বিরাট কোহলি, কেন উইলিয়ামসনদের সঙ্গে সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে একনিশ্বাসেই উচ্চারিত হতো জো রুটের নাম। সেই রুট ফর্ম হারিয়ে নামতে নামতে সেরা দশের বাইরেই চলে গিয়েছিলেন। গত মাসে শ্রীলঙ্কা সফরের প্রথম টেস্টটা তো ইংল্যান্ড অধিনায়ক শুরু করেন বিশ্বের ১১ নম্বর টেস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে।

এক মাসও যায়নি। সেই রুট উঠে এসেছেন টেস্ট ব্যাটিং র‌্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে। শ্রীলঙ্কায় দুই টেস্টে দুই, এরপর চেন্নাই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ২১৮। টানা তিন টেস্টে সেঞ্চুরি, প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের শততম টেস্ট ডাবল সেঞ্চুরি—সেই পুরোনো রুটকেই ফিরে পেয়েছে ক্রিকেট।

চেন্নাইয়ের প্রথম ইনিংসের ডাবল সেঞ্চুরি ও দ্বিতীয় ইনিংসের ৪০ রান দুই ধাপ ওপরে উঠিয়েছেন রুটকে। ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও অস্ট্রেলিয়ার মারনাস লাবুশেনকে পেছনে ফেলেছেন টেস্টে ইংল্যান্ডের তৃতীয় সর্বোচ্চ রানের মালিক। লাবুশেন ও কোহলিরা এক ধাপ পিছিয়ে নেমে গেছেন চার ও পাঁচে।

র‌্যাঙ্কিংয়ে রুটের ওপরে আছেন কেন উইলিয়ামসন ও স্টিভ স্মিথ। ক্যারিয়ার–সেরা ৯১৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়ামসন। ৮৯১ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্মিথ। রুটের পয়েন্ট ৮৮৩। ভারতে সিরিজে বাকি তিন টেস্টেও ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে ১ নম্বরও হয়ে যেতে পারেন রুট।

বিজ্ঞাপন
default-image

র‌্যাঙ্কিংয়ে নতুন ইতিহাস গড়েছেন কাইল মেয়ার্স। চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে ২১০ রানের অবিশ্বাস্য এক ইনিংস খেলে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জিতিয়েছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। আজ প্রকাশিত সর্বশেষ র‌্যাঙ্কিংয়ে ৪৪৮ পয়েন্ট নিয়ে ৭০তম স্থানে মেয়ার্স।

আইসিসি আনুষ্ঠানিকভাবে র‌্যাঙ্কিং চালু করার পর ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট শেষে এত রেটিং পয়েন্ট পাননি অন্য কেউ। ঐতিহাসিক র‌্যাঙ্কিং হিসাব করলে শুধু একজনই থাকেন মেয়ার্সের ওপরে। ১৯০৩ সালে টেস্ট অভিষেকে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি করার পর ইংল্যান্ডের টিপ ফস্টারের পয়েন্ট ছিল ৪৪৯। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ফস্টারের ২৮৭ রান এখনো টিকে আছে অভিষেকে সর্বোচ্চ ইনিংস হিসেবে।

চট্টগ্রামের টেস্টের পারফরম্যান্স দিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে বড় লাফ দিয়েছেন মুমিনুল হক। বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়া অধিনায়ক আট ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ৩৩ নম্বরে। চোটের কারণে মাত্র এক ইনিংস ব্যাট করা সাকিব আল হাসান চার ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ৩০ নম্বরে। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরি অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজকে রেখেছে ১০৮ নম্বরে।

টেস্টে শীর্ষ পাঁচ ব্যাটসম্যান

default-image

দুই ইনিংসেই ৪টি করে উইকেট নেওয়া মিরাজ বোলিংয়ে এগিয়েছনেও চার ধাপ। ২৪ নম্বরে উঠেছেন এই অফ স্পিনার। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে তাঁর ওপরে আছেন শুধু সাকিব আল হাসান (২২)।

সর্বশেষ র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন ধাপ এগিয়ে বোলারদের তিনে উঠে এসেছেন চেন্নাই টেস্টে অসাধারণ বোলিং করা ইংলিশ পেসার জেমস অ্যান্ডারসন। ৩৮ বছর বয়সী অ্যান্ডারসনের ওপরে আছেন শুধু প্যাট কামিন্স (প্রথম) ও স্টুয়ার্ট ব্রড।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে ১০ উইকেট নেওয়া পাকিস্তানি পেসার হাসান আলী ২১ ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ৩২ নম্বরে। ব্যাটিংয়ে এগিয়েছেন দলটির উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ানও। প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি পাওয়া রিজওয়ান ১৯ ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ক্যারিয়ার–সেরা ১৬তম স্থানে।

টেস্টে শীর্ষ পাঁচ বোলার

বিজ্ঞাপন

অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা পাঁচে কোনো অদলবদল হয়নি। বেন স্টোকসই আছেন এক নম্বরে।

টেস্টে শীর্ষ পাঁচ অলরাউন্ডার

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন