default-image

ভারত জাতীয় দলে ২০০৮ সালে অভিষেকের পর দ্রুতই অপরিহার্য হয়ে উঠেছিলেন বিরাট কোহলি। শচীন টেন্ডুলকার যে পথে হেঁটে খুব দ্রুতই ভারতীয়দের হৃদয় জিতে নিয়েছিলেন, কোহলি হেঁটেছেন সে পথেই।

ব্যাট হাতে যেমন রানে ধারাবাহিক তেমনি মাঠের বাইরেও তারকা ইমেজটা গড়েছেন ধীরে, নিজস্ব ঢঙে। আক্রমণাত্মক, আবেগি—এসব কথা কোহলির গায়ের সঙ্গে লেপ্টে যায় তাঁর ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই। সেই কোহলির একটি পুরোনো ঘটনা আলোচনা তুলেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

কোহলির এক সমর্থক গোষ্ঠী ইনস্টাগ্রামে পুরোনো এক ভিডিও শেয়ার করেছে কিছুদিন আগে। সেই ভিডিওতে কোহলি মাঠের বাইরে তাঁর সেরা অর্জন নিয়ে কথা বলেন। সেখানেই উঠে এসেছে বলিউড তারকা ক্যাটরিনা কাইফের নাম।

বিজ্ঞাপন

না, ভ্রুকুটির কোনো কারণ নেই। সবে জাতীয় দলে পা রাখা তরুণ কোহলিকে উপস্থাপিকা জিজ্ঞেস করেছিলেন, মাঠের বাইরে এখন পর্যন্ত সেরা অর্জন কী? কোহলি জানান, ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে মিনিট দুয়েক কথা বলতে পারাই মাঠের বাইরে তাঁর সেরা অর্জন।

বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘মাঠের বাইরে? ক্যাটরিনা কাইফ আমার সঙ্গে দুই মিনিট কথা বলেছিলেন। এটাই সেরা মুহূর্ত।’ উপস্থাপিকা একটু অবাক হয়ে পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘সত্যি?’

কোহলি হেসে বলেন, ‘হ্যাঁ, সত্যি। মিথ্যা বলব কেন!’ ক্যারিয়ারে উঠে আসার সময় ভারতের অনেক সেলিব্রিটির সঙ্গে কোহলিকে জড়িয়ে অনেক গুঞ্জন উঠেছিল। শেষ পর্যন্ত তিনি জীবনের ইনিংসে জুটি বেঁধেছেন বলিউডেরই তারকা আনুশকা শর্মার সঙ্গে।

তিন বছরের বেশি সময় চুটিয়ে প্রেম করার পর ২০১৭ সালে বিয়ে করেন দুজন। তাঁদের ঘর আলো করে এসেছে কন্যাসন্তান ভামিকা।

আইপিএলের শুরু থেকেই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর সঙ্গে আছেন কোহলি। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলটি শিরোপা জিততে না পারলেও তাদের ছেড়ে যাননি তিনি।

default-image

এবারও নেতৃত্ব দিচ্ছেন শিরোপা জয়ের আশায়। আইপিএলে শুরুর দিনগুলোয় বেঙ্গালুরুর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ। তখন প্রায়ই কোহলিদের ম্যাচ দেখতে স্টেডিয়ামে আসতেন তিনি।

এবার আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে কোহলির বেঙ্গালুরু।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন