default-image
>নিজের বাসায় আত্মহত্যা করেছেন বলিউড তারকা ও রূপালি পর্দায় ক্রিকেট তারকা মহেন্দ্র সিং ধোনি চরিত্রে রূপদানকারী অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত

অনেকের মতেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি রূপালি পর্দায় মূর্ত হয়ে ফুটে উঠেছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের কল্যাণে। 'এমএস ধোনি – দি আনটোল্ড স্টোরি' চলচ্চিত্রে ধোনির মতোই স্থিতধী ও কৌশলী চরিত্রে দেখা গিয়েছিল এই তারকাকে। সেই স্থিতধী তারকার মনের মধ্যেই যে এত কিছুর তোলপাড়, তা কে জানত!

default-image

মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে আত্মহত্যা করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিকে সিনেমার পর্দায় জীবন্ত করে তোলা এই নায়ক। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৩৪ বছর। অভিনেতার মুখপাত্র ও মুম্বাই পুলিশ হিন্দুস্তান টাইমসকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


২০১৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত নীরাজ পাণ্ডে পরিচালিত 'এমএস ধোনি – দি আনটোল্ড স্টোরি' চলচ্চিত্রে দুর্দান্ত অভিনয়ের সুবাদে স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন এই তারকা। ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে সেরা অভিনেতার তালিকায়ও নাম ছিল তাঁর। সুশান্তের ক্যারিয়ারের অন্যতম সফল এই সিনেমা ২০১৬ সালে সবচেয়ে বেশি আয় করা সিনেমার তালিকায় পঞ্চম ছিল। এখন পর্যন্ত প্রায় এক কোটি ষাট লাখ ডলার আয় করেছে সিনেমাটি।

এ চলচ্চিত্রে নিজেকে ধোনির চরিত্রে মানিয়ে নেওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছিলেন সুশান্ত। ছবির শুটিং শুরু হওয়ার আগে ১৮ মাস নিজেকে প্রস্তুত করেছেন। সাবেক উইকেটরক্ষক কিরন মোরের সঙ্গে ১৩ মাস অনুশীলন করেছেন, উইকেটরক্ষার শিল্পটা শিখেছেন। দিনে ৪ ঘন্টা অনুশীলন করতে হয়েছে। ধোনির হেলিকপ্টার শট প্রতিদিন অনশীলন করেছেন কয়েক শ বার। সবকিছুই পর্দায় সুশান্তকে বাস্তবের ধোনি বানিয়েছিল। আর এর সুফল পাওয়ার কথা ছিল সিক্যুয়েলেও। সিনেমাটির সিক্যুয়েল করার পরিকল্পনা করছিলেন পাণ্ডে, নামভূমিকায় যথারীতি সুশান্তেরই থাকার কথা ছিল। এ নিয়ে বারবার আলোচনার পর থেমে গেলেও ধোনি ও সুশান্ত ভক্তরা আশা নিয়ে বসেছিলেন সিক্যুয়েলের।

কিন্তু পর্দার ধোনিকে অসম্পূর্ণ রেখেই পরপারে পাড়ি জমানোর সিদ্ধান্ত নিলেন সুশান্ত।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0