ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির পর জনি বেয়ারস্টো।
ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির পর জনি বেয়ারস্টো।ছবি: টুইটার

ভারতের বিপক্ষে কাল দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ম্যাচ জেতানো সেঞ্চুরি করেছেন জনি বেয়ারস্টো। তাঁর ১২৪ রানের ইনিংসে ভারতের ৩৩৬ রানের পুঁজি ৬ উইকেটে টপকে গেছে ইংল্যান্ড। দারুণ এ ইনিংস খেলার পর ভারতীয় কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কারের এক মন্তব্যের উত্তর দিয়েছেন ইংলিশ ওপেনার।

টেস্ট সিরিজে আহমেদাবাদে ম্যাচের সময় গাভাস্কার বলেছিলেন, টেস্ট খেলায় ‘অনাগ্রহী’ বেয়ারস্টো। সিরিজে ভীষণ বাজে ব্যাট করেছেন বেয়ারস্টো। টপ অর্ডারের চাপ নিতে না পেরে চার ইনিংসে তিনটি ‘ডাক’ মেরেছিলেন বেয়ারস্টো। ভারতীয় স্পিনারদের সামলাতে পারছিলেন না।

যদিও টেস্ট খেলা নিয়ে নিজের অনাগ্রহের কথা কখনোই বলেননি বেয়ারস্টো। পুনেতে কাল সেঞ্চুরির পর গাভাস্কারের সেই মন্তব্যেরই উত্তর দেন তিনি। গাভাস্কার চাইলে তাঁকে ফোন করে টেস্ট খেলায় আগ্রহ কিংবা অনাগ্রহ নিয়ে কথা বলতে পারেন, বলেছেন বেয়ারস্টো।

বিজ্ঞাপন

ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় সংস্করণে ধারাবাহিকতার অভাবে ভোগায় বেয়ারস্টোকে হয়তো কিছুদিনের জন্য দলের বাইরে রাখতে পারেন নির্বাচকেরা। তবে গাভাস্কারের মন্তব্যে ভীষণ অবাক হয়েছেন বেয়ারস্টো।

তাঁর সঙ্গে এমনিতেই কোনো যোগাযোগ নেই গাভাস্কারের। যতই খেলাটির কিংবদন্তি কিংবা খ্যাতিমান ধারাভাষ্যকার হন, হুট করে এমন কথা কানে যাওয়ার পর বেশ অবাকই হয়েছেন তিনি। গাভাস্কার তখন এমন কথা বলেছিলেন, সেটা নাকি বেয়ারস্টোর কানে যায়নি।

সংবাদমাধ্যমকে বেয়ারস্টো বলেন, ‘প্রথম কথা হলো, মন্তব্যটি আমার কানে আসেনি। এমন কথা কীভাবে বলা যায় সেটাই ভাবছি, বিশেষ করে যখন তাঁর (গাভাস্কার) সঙ্গে আমার কোনো রকম যোগাযোগ নেই। আর তাই দরকার পড়লে তিনি আমাকে ফোনে কল দিতে পারেন। টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করতে আমি কতটা মুখিয়ে থাকি, সেখানে রান করতে কতটা ভালো লাগে—এসব নিয়ে তাঁর সঙ্গে কথা বলতে পারি। আমার ফোন খোলাই আছে, চাইলে যেকোনো সময় তিনি আমাকে ফোন কিংবা খুদে বার্তা পাঠাতে পারেন।’

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে কাল ইংল্যান্ড ১–১ ব্যবধানে সমতায় ফিরেছে বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতে ভর করে। বেয়ারস্টোর সঙ্গে ১৭৫ রানের জুটি গড়ার পথে ৫২ বলে ৯৯ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন বেন স্টোকস।

ওয়ানডে সিরিজে দারুণ ফর্মে আছেন বেয়ারস্টো। প্রথম ম্যাচে ৯৪ রানের পর দ্বিতীয় ম্যাচে সেঞ্চুরির দেখা পেলেন তিনি। যদিও টেস্ট সিরিজে তাঁর পারফরম্যান্স একেবারে যাচ্ছেতাই ছিল। কাল জয়ের পর ইংল্যান্ড দলের ব্যাটিং গভীরতা নিয়েও কথা বলেন বেয়ারস্টো, আদিল রশিদ ১০ কিংবা ১১–তে নামে।

default-image

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১০টি সেঞ্চুরি আছে ওর। ১০ কিংবা ১১–তে এমন কাউকে কিন্তু খুব বেশি দল নামাতে পারে না। মঈন আলী ও কারেন ভাইদের একসঙ্গে করলে তালিকাটা লম্বা হয়। শক্তিশালী এই ব্যাটিং লাইনআপই আত্মবিশ্বাসী করে তোলে।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন