default-image

মাঠের মধ্যে আগ্রাসী আচরণ, প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে উদ্দেশ করে খিস্তি-খেউড় করার স্বভাব জেমস প্যাটিনসনের আজকের নয়। গত ১২ মাসে এই কাজ আরও দুবার করেছেন। তাঁকে সতর্কও করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে কী? আবার একই কাজ করলেন ভিক্টোরিয়ার এই পেসার। সেদিন কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে মেজাজ হারিয়ে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের গালিগালাজ করায় এক টেস্টের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি।

এক বছরের মধ্যে তিনবার আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ থাকতে হয়, এটাই নিয়ম। এই নিয়মেই নিষিদ্ধ হয়েছেন প্যাটিনসন। আর এর সুবিধাভোগী হতে যাচ্ছে পাকিস্তান। আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পাকিস্তান সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে নামছে অস্ট্রেলিয়া, ব্রিসবেনে। এই টেস্টে প্যাটিনসনেরও থাকার কথা ছিল। জশ হ্যাজলউড, প্যাট কামিন্সের সঙ্গে তৃতীয় পেসার হিসেবে থাকবেন প্যাটিনসন, এটাই মোটামুটি নির্ধারিত ছিল। কিন্তু এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার কারণে এখন অস্ট্রেলিয়ার তৃতীয় পেসার হিসেবে এই টেস্টে খেলতে নামবেন মিচেল স্টার্ক। সঙ্গে একমাত্র স্পিনার হিসেবে নাথান লায়ন তো আছেনই।

>

প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে গালিগালাজ করার দায়ে এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেস তারকা জেমস প্যাটিনসন। ফলে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টটা খেলা হচ্ছে না তাঁর।

সেদিন শেফিল্ড শিল্ডে মেলবোর্ন মাঠে কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে হেরেছে ভিক্টোরিয়া। সে ম্যাচেই মেজাজ হারিয়ে এই কাণ্ড ঘটান ভিক্টোরিয়ার পেসার প্যাটিনসন। পরে অবশ্য নিজের আচরণের জন্য অনুতপ্তও হয়েছেন তিনি, ‘মুহূর্তের উত্তেজনায় একটা ভুল করে ফেলেছি আমি। সঙ্গে সঙ্গেই বুঝতে পেরেছি, আমার কাজটা করা ঠিক হয়নি। আমি ক্ষমাও চেয়েছি, আম্পায়ার ও প্রতিপক্ষ উভয়ের কাছে। আমি ভুল কাজ করেছি, তাই আমি শাস্তি মাথা পেতে নিচ্ছি। টেস্ট ম্যাচটা না খেলতে পেরে খুব খারাপ লাগছে আমার। কিন্তু আমাকে অবশ্যই নিয়মনীতি অনুসরণ করতে হবে, যেগুলো এর মধ্যেই প্রতিষ্ঠিত।’

অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেইন নিজেও প্যাটিনসনের এই কাণ্ডে বিমর্ষ, ‘ব্যাপারটা দুর্ভাগ্যের। তবে ও যা করেছে সেটা আমাদের নীতির সঙ্গে যায় না। সে নিজেও এটা বুঝতে পেরেছে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0