বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৪৩ ম্যাচে ৪২ ইনিংসে ব্যাট করা লুইসের ছক্কাসংখ্যা ১০১। গেইল ২০১৭ সালে ৪৯তম ইনিংসে এসে দ্রুততম ১০০ ছক্কার রেকর্ড গড়েছিলেন। অর্থাৎ গেইলের চেয়ে ৭ ইনিংস কম খেলেই এই রেকর্ড নিজের করে নিলেন লুইস।

লুইস যে গতিতে এগোচ্ছেন, তাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ডটি একসময় হয়তো তাঁর দখলেই চলে আসবে। ৪১ বছর বয়সী গেইলের সঙ্গে বয়সের দৌড়ে এগিয়ে আছেন ২৯ বছর বয়সী লুইস। এ সংস্করণে দেশের হয়ে দুজনের ছক্কার ব্যবধান মাত্র ১৮।

default-image

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়িয়ে সব দেশ মিলিয়ে হিসেবটা করলে সর্বোচ্চ ১৪৭ ছক্কা নিয়ে শীর্ষে নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপটিল, দুইয়ে থাকা রোহিত শর্মার ছক্কাসংখ্যা ১৩৩। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ন্যূনতম ১০০ ছক্কা মারার ‘অভিজাত ক্লাবে’ খুব বেশি খেলোয়াড় নেই।

সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে এ তালিকায় উঠে এলেন লুইস। বাকি তিনজন, ইংল্যান্ডের এউইন মরগান (১১৪), নিউজিল্যান্ডের কলিন মানরো (১০৭) ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যারন ফিঞ্চ (১০৭)। তবে এ তালিকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে আছেন শুধু গেইল ও লুইস।

টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম ১০০ছক্কা 

টি-টোয়েন্টিতে ন্যূনতম ১০০০ রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে লুইসের স্ট্রাইক রেটও শীর্ষে (১৬০.৪২)। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কালকের ম্যাচের তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ২৩২.৩৫! এই সংস্করণে সাধারণত এভাবেই খেলতে স্বাচ্ছন্দ্য পান বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কাল এক ইনিংসে ৯ ছক্কা মেরে গাপটিলের এক রেকর্ডেও ভাগ বসিয়েছেন লুইস। টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এক ইনিংসে গাপটিলের সঙ্গে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ৯ ছক্কা মারার রেকর্ড এখন তাঁরও। ২০১৮ সালে ১৬ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এ সংস্করণে ইনিংসে ৯ ছক্কা মেরেছিলেন গাপটিল।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন