শ্রীলঙ্কাকে হারাতে আজ শেষ দিনে ৩৪১ রান করতে হবে ক্রেগ ব্রাফেটদের।
শ্রীলঙ্কাকে হারাতে আজ শেষ দিনে ৩৪১ রান করতে হবে ক্রেগ ব্রাফেটদের। ছবি: এএফপি

কাইল মেয়ার্সের সেই অতিমানবীয় কীর্তির দুমাসও হয়নি। এরই মধ্যে আবার চট্টগ্রাম টেস্টের কীর্তির পুনরাবৃত্তি করার সুযোগ পেয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গত মাসে চট্টগ্রামে টেস্ট অভিষিক্ত মেয়ার্সের ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩৯৫ রান তাড়া করে বাংলাদেশকে হারিয়েছিল ক্যারিবীয়রা। সেই দল এবার অ্যান্টিগায় শ্রীলঙ্কাকে হারাতে লক্ষ্য পেয়েছে ৩৭৫ রানের।

রান তাড়ায় দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটে ৩৪ রান তুলে চতুর্থ দিনটা শেষ করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আজ শেষ দিনে আরও ৩৪১ রান করতে হবে দলটিকে। চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ দিনে ক্যারিবীয়দের দরকার ছিল ২৭৫ রান। সেদিন দলটির হাতে ছিল ৭ উইকেট। আজ ৯ উইকেট হাতে নিয়েই নামবে ক্রেগ ব্রাফেটের দল।

ওপেনার জন ক্যাম্পবেল (১১) ফিরে গেছেন বিশ্ব ফার্নান্ডোর বলে উইকেটকিপারকে ক্যাচ দিয়ে। অধিনায়ক ব্রাফেট আজ দিন শুরু করবেন ৮ রানে, সঙ্গী এনক্রুমা বোনার অপরাজিত ১৫ রানে।

টেস্টের চতুর্থ দিনটা অবশ্য পুরোপুরি শ্রীলঙ্কারই ছিল। ৪ উইকেট ২৫৫ রান নিয়ে দিন শুরু করা সফরকারীদের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ৪৭৬ রানে। টেস্ট অভিষেকে দারুণ এক সেঞ্চুরি পেয়েছেন পাতুম নিশাঙ্কা। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৬৭.৫৪ গড় নিয়ে টেস্টে আঙিনায় পা রাখা ২২ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান করেছেন ১০৩ রান। তাঁর ২৫২ বলে ইনিংসটি সাজানো ৬টি চারে।

বিজ্ঞাপন
default-image

শ্রীলঙ্কা কাল প্রথম উইকেট হারায় দিনের প্রথম ওভারেই। ফিফটি করেই আলজারি জোসেফের বলে বোল্ড হয়ে যান ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। শ্রীলঙ্কার রান তখন ৫ উইকেটে ২৫৯। এরপর উইকেটকিপার নিরোশান ডিকভেলাকে নিয়ে ১৭৯ রানের জুটি নিশাঙ্কার। টেস্টে ষষ্ঠ উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার এটাই সবচেয়ে বড় জুটি।

টেস্ট অভিষেকের আগে ৩৩টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ১৩ সেঞ্চুরি পাওয়া নিশাঙ্কাকে ফিরিয়েছেন রাকিম কর্নওয়াল। বিশালদেহী অফ স্পিনারকে ছক্কা মারতে গিয়ে ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগে কেমার রোচের ক্যাচ হয়েছেন চতুর্থ শ্রীলঙ্কান হিসেবে টেস্ট অভিষেকে সেঞ্চুরি পাওয়া নিশাঙ্কা। তবে আগের তিনজনই সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন দেশের মাটিতে।

টেস্ট অভিষেকে শ্রীলঙ্কার সেঞ্চুরি

default-image

ডিকভেলা টেস্টে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটা পাননি ৪ রানের জন্য। তিন তিনবার ভাগ্যের ছোঁয়ায় বেঁচে যাওয়া ডিকভেলা ৪২ টেস্টের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ৯৬ রান করে বোল্ড হয়েছেন রোচের বলে। গত জানুয়ারিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একবার ৯২ রানে আউট হওয়া উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান কাল একবার জীবন পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিল্ডারদের পিচ্ছিল হাতের সৌজন্যে। এরপর তাঁর ব্যাটের কানা ছুঁয়ে বল উইকেটের পেছনে ক্যাচ হলেও আউট দেননি আম্পায়ার। আর একবার তো বল স্টাম্পে লেগেও পড়েনি বেল।

২২ রানের ব্যবধানে নিশাঙ্কা ও ডিকভেলার বিদায়ের পর আর ১৪ রান তুলতেই শেষ শ্রীলঙ্কার ইনিংস। শেষ দুটি উইকেট পেয়েছেন ইনিংসে ৩ উইকেট নেওয়া কর্নওয়াল। রোচও পেয়েছেন ৩ উইকেট।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন