৮০০ উইকেট নিয়েই টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছেন মুরালিধরন
৮০০ উইকেট নিয়েই টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছেন মুরালিধরনছবি: এএফপি

এ এক কুৎসিত মানসিকতা! কারও কোনো কিছু পছন্দ হলো না, অমনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁকে হেনস্তা করতে হাজির হয়ে যান অনেকে। সমালোচনা তো অনেক আগেই গালিগালাজে রূপ বদলেছিল, ইদানীং শুরু হয়েছে ধর্ষণের হুমকি।

নারী অভিনেত্রী বা মডেলদের এমন কুৎসিত সব বার্তার মুখোমুখি হতে হওয়ার উদাহরণ ভুরি ভুরি আছে। পুরুষদের ক্ষেত্রে নোংরা মানসিকতার মুখোমুখি হতে হচ্ছে অন্যভাবে। তাঁদের পরিবারের মানুষকে টেনে এনে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

আইপিএলে ভালো করতে না পারার ‘দায়ে’ কদিন আগে চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে এই পৈশাচিক মানসিকতার মানুষের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। ধোনির মেয়ে বিভাকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও ধর্ষণের হুমকির অভিযোগ।

এবার কোনো ক্রিকেটারের মেয়েকে নয়, তবে ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট ঘটনাই। মুত্তিয়া মুরালিধরনকে নিয়ে ‘৮০০’ নামের একটা চলচ্চিত্র বানানোর পরিকল্পনা ছিল, সেখানে মূল চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল তামিল তারকা বিজয় সেথুপাতির। তাঁর মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে।

default-image

সেথুপাতির ‘অপরাধ?’ তিনি মুরালিধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে চেয়েছিলেন! সেটা অনেকের পছন্দ হয়নি। এর মধ্যে নিচু মানসিকতার একজনের মনে হয়েছে, সেথুপাতিকে জবাব দেওয়ার সবচেয়ে ‘মোক্ষম’ উপায় তাঁর মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া!

টুইটারে হুমকিটা দেওয়া হয়েছে। হুমকি দেওয়া টুইটের সঙ্গে সেথুপাতি ও তাঁর মেয়ের ছবিও জুড়ে দেওয়া হয়। সেখানে সেথুপাতির টুইটার অ্যাকাউন্টকে ট্যাগ করে লেখা হয়, ‘কেবল এটাই (যৌন হয়রানি) পারে লঙ্কান তামিলরা কী কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে গেছে সেটা ওকে বোঝাতে।’ রিতিক রাজ নামের সেই হুমকিদাতার বিরুদ্ধে মামলা করেছে চেন্নাই পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট।

সেথুপাতির নাম উল্লেখ না করে চেন্নাই সিটি পুলিশের কমিশনার মহেশ কুমার আগারওয়াল টুইটে লিখেছেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একজন সেলিব্রিটির বিরুদ্ধে যেসব বার্তা দেওয়া হচ্ছিল, সেসব নিয়ে উদ্বেগ আছে অনেক। এটা নিয়ে অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা করা হয়েছে।’ সেথুপাতির সহকারী এর আগে চেন্নাই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

টুইটটি তো বটেই, অ্যাকাউন্টটিই অবশ্য এখন ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। সেটি রিতিক রাজ নামের সেই ব্যক্তি নিজেই ডিলিট করেছেন, নাকি টুইটারের পক্ষ থেকেই তা করা হয়েছে, তা নিশ্চিত নয়।

শ্রীলঙ্কান তামিলদের ওপর সে দেশের সরকারের নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে ভারতের চেন্নাই ও তামিলনাড়ুর মতো অঞ্চলগুলোর মানুষও অনেক খ্যাপা। তিন দশক ধরে তামিলদের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনীর যুদ্ধ হয়েছে, সে যুদ্ধে লঙ্কান সেনাবাহিনীর হাতে তামিলদের খুন ও অত্যাচারের অভিযোগ আছে। শ্রীলঙ্কান সরকারের শোষণের নানা প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর তামিলরা সব সময় সমান অধিকার চেয়েছে, আলাদা দেশ চেয়েছে। ৩০ বছরের ওই যুদ্ধের শেষ দিকে প্রায় এক লাখ তামিল নাগরিক খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ আছে।

default-image

মুরালিধরনের ‘৮০০’-র সঙ্গে সেসবের সম্পর্ক? টেস্টে ৮০০ উইকেট নেওয়া শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি অফ স্পিনার তামিলদের চোখে সব সময়ই প্রতারক। তামিলদের অভিযোগ, তামিলদের বিরুদ্ধে এত অত্যাচারের প্রতিবাদ কখনো করেননি মুরালি, বরং সরকারকে সমর্থন করেছেন। ২০০৯ সালে তামিলদের সঙ্গে সেনাবাহিনীর যুদ্ধ শেষ হওয়ার পরও মুরালির দেওয়া বিবৃতি নিয়ে বিতর্ক আছে অনেক। অভিযোগ আছে, মুরালি নাকি তখন বলেছেন, তামিলদের মৃত্যুতে তিনি খুশি!

এই চলচ্চিত্রে সেথুপাতি অভিনয় করবেন শোনার পর মুরালিকে ‘প্রতারক’ ও লঙ্কান তামিলদের হত্যার সমর্থক অভিহিত করেন চলচ্চিত্র পরিচালক ভারথিরাজা, তামিল রাজনৈতিক দল পিএমকের প্রধান ড. পি রামাদস ও অন্তত দুজন মন্ত্রী, চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় না করতে সেথুপাতির ওপর চাপ প্রয়োগ করেন।

মুরালিধরন অবশ্য সব সময়ই সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর জীবনী নিয়ে চলচ্চিত্র বেরোচ্ছে, সেটি প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই তো সমালোচনা শুরু হয়েছিল চারদিকে। সেটি গত কিছুদিনে আরও বেড়ে গেলে মুরালি নিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ খণ্ডন করেছেন। ২০০৯ সালের বিবৃতি নিয়ে বিতর্কের জবাবে বলেছেন, ‘২০০৯ সালে বলেছিলাম (যুদ্ধ শেষ হওয়ার) দিনটা আমার জীবনের সবচেয়ে সুখের দিন। কারণ যুদ্ধের কারণে দুই পক্ষেই কত জীবন শেষ হয়ে গেছে, সেটি আমার মাথায় ছিল। এই মন্তব্যটাকে বিকৃত করে লেখা হয়েছে, ‘‘তামিলদের যে দিনে খুন করা হয়েছে, সেটি আমার জীবনের সুখের দিন।’’ অথচ আমি কখনোই নিরীহদের খুন করার পক্ষে নই, কখনো থাকবও না।’

তাঁর চলচ্চিত্র নিয়ে এত সমালোচনার মধ্যে মুরালি নিজেই সেথুপাতিকে অনুরোধ করেন চলচ্চিত্রটি থেকে নাম সরিয়ে নিতে। মুরালির অনুরোধের পরই গত সোমবার সেথুপাতি চলচ্চিত্রটি থেকে নাম সরিয়ে নেন। তারপরও নিজের মেয়েকে নিয়ে এমন ঘৃণ্য হুমকি শুনতে হলো তাঁকে!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0