মোস্তাফিজ।
মোস্তাফিজ।ফাইল ছবি: প্রথম আলো

সাকিব আল হাসানের সঙ্গে চাইলে আইপিএল খেলতে পারবেন মোস্তাফিজুর রহমানও। আইপিএল নিলাম থেকে এক কোটি রুপিতে রাজস্থান রয়্যালস মোস্তাফিজকে দলে ভিড়িয়েছে। কিন্তু আইপিএলের সময় বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কায় দুই টেস্ট খেলতে যাওয়ার কথা। সাকিব এর মধ্যেই টেস্ট না খেলে আইপিএল খেলার ছুটি নিয়েছেন।

সাকিবকে ছুটি দেওয়ায় অন্যদের ক্ষেত্রেও ছুটি দিতে হচ্ছে বিসিবিকে। মোস্তাফিজও চাইলে আইপিএলের জন্য ছুটি পাবেন। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। আজ তিনি এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘অবশ্যই ছুটি দেওয়া হবে। মোস্তাফিজ বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার। সাকিবও তাই। যেহেতু সাকিব ছুটি পেয়েছে। মোস্তাফিজও পাবে।’

বিজ্ঞাপন

গত আইপিএলেও রাজস্থান রয়্যালসে খেলার সুযোগ ছিল মোস্তাফিজের। কিন্তু গত আইপিএলের সময় বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কায় সফরে যাওয়ার কথা ছিল। তাই আইপিএল খেলার ছাড়পত্র পাননি এই বাঁহাতি। এবারও এপ্রিলে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর প্রায় নিশ্চিত। কিন্তু এবার ছুটি পেলে হয়তো দেশের হয়ে না খেলে শেষ পর্যন্ত আইপিএল খেলতে যাবেন মোস্তাফিজ।

এবারের আইপিএল নিলামে মোস্তাফিজের ভিত্তিমূল্য ছিল ১ কোটি রুপি। আইপিএল নিলামে এই দামে তাঁকে কিনে নেয় স্টোকস-বাটলারদের রাজস্থান রয়্যালস। এটি আইপিএলে মোস্তাফিজের তৃতীয় দল। ২০১৬ সালে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দিয়ে আইপিএল-অধ্যায় শুরু হয়েছিল তাঁর। সেই বছরই হায়দরাবাদ জিতে আইপিএল শিরোপা। যেখানে তাঁর ভূমিকা ছিল মুখ্য। প্রথম মৌসুমেই দারুণ বোলিংয়ে মোস্তাফিজ হয়েছিলেন সেরা উদীয়মান ক্রিকেটার। দুই মৌসুম হায়দরাবাদে কাটিয়ে ২০১৮ সালে তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে যোগ দিয়েছিলেন। চোট ও বাজে ফর্মে সেই বছরটা ভালো কাটেনি মোস্তাফিজের।

default-image

এ পর্যন্ত আইপিএলে ২৪টি ম্যাচ খেলেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। এর মধ্যে ১৭টি ম্যাচ খেলেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। ২০১৬ সালে ১৬টি ম্যাচ খেললেও ২০১৭-তে খেলেছিলেন মাত্র একটি। প্রথম বছর তিনি ছিলেন দুর্দান্ত। ১৭ উইকেট নিয়েছিলেন ২৪.৭৬ গড়ে। সেরা বোলিং ছিল ৩/১৬। ২০১৮ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের হয়ে ৭ ম্যাচে উইকেট তাঁর ৭টি। এক ম্যাচে ২৪ রানে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

এবারের আইপিএলে নিলামে ছিলেন সাকিব-মোস্তাফিজসহ মোট পাঁচ বাংলাদেশি ক্রিকেটার। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ও পেস বোলিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিনের নামের সঙ্গে শেষ মুহূর্তে যুক্ত হয় মুশফিকুর রহিমের নাম। কিন্তু এই তিনজনে আগ্রহ দেখায়নি আইপিএল দলগুলো।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন