default-image
সৌরভ গাঙ্গুলী বললেন, চার দিনের টেস্ট নিয়ে কথা বলার সময় এখনো আসেনি।


টেস্ট ম্যাচ বাধ্যতামূলক চার দিনে শেষ করার চিন্তাভাবনা করছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি। ২০২৩ সালে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তৃতীয় সংস্করণ থেকেই এটিকে কার্যকর করার ইচ্ছা তাদের। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী মনে করেন, এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করার সময় এখনো আসেনি।

সৌরভ গাঙ্গুলী বলেছেন, ‘প্রথমে আমরা প্রস্তাবটা খতিয়ে দেখব। এ ব্যাপারে মন্তব্য করার সময় এখনো আসেনি।’ সৌরভ নিজে অবশ্য ‘সুপার সিরিজ’ নামের একটি ৫০ ওভারের ওয়ানডে প্রতিযোগিতার প্রস্তাব করেছেন। এই সুপার সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের সঙ্গে অন্য একটি দল নিয়ে। চতুর্থ দলটি নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

হঠাৎ করেই আইসিসি কেন চার দিনের টেস্ট আয়োজনে আগ্রহ দেখাচ্ছে? মূলত সময় বের করতেই আইসিসি এটি চাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের রমরমা চলছে, এর মধ্যে আরও বেশি বেশি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার জন্য সময় প্রয়োজন। আইসিসি মনে করে, টেস্ট ক্রিকেট চার দিনের হলে সেই সময়টা বের করা যাবে। এক হিসাবে দেখা গেছে, ২০১৫ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে আয়োজিত সব টেস্ট ম্যাচ যদি চার দিনের হতো, তাহলে ৩৩৫ দিন ফাঁকা সময় পাওয়া যেত।

চার দিনের টেস্ট অবশ্য নতুন কিছু নয়। ২০১৯ সালেই ইংল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড চার দিনের টেস্ট খেলেছে। ২০১৭ সালেও জিম্বাবুয়ের সঙ্গে চার দিনের টেস্ট খেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন