চেষ্টা করে যাচ্ছেন সৌম্য, কিন্তু হচ্ছে না

বিজ্ঞাপন

টানা দুই হারের ধকল সামলাচ্ছে দল। তিন দিনে দুই ম্যাচ খেলার ক্লান্তিও আছে। আজ আর তাই অনুশীলন ছিল না বাংলাদেশ দলের। হোটেলেই সময় কাটানো আর একটু জিম করা। এর মাঝেই নিজেদের নিয়ে কথা বলতে এলেন সৌম্য সরকার।

সৌম্য এমন কিছু বলেননি, যাতে গোপন কোনো রহস্য উন্মোচিত হলো। বাংলাদেশ দলের ব্যর্থতার কারণ একজন সাধারণ দর্শক যেমন বোঝেন, খেলোয়াড়েরাও সেটিই বুঝছেন। ভালো ব্যাটিং হচ্ছে না, শুরুতে ভালো বোলিং হচ্ছে না। দলকে সুন্দর একটা ‘শুরু’ এনে দিতে পারছেন না।

দুই ওপেনারদের একজন বলে সৌম্যকেও উঠতে হচ্ছে কাঠগড়ায়। খারাপ যে করছেন, সেটা জানেন সৌম্য, সেটা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টাও করছেন। কিন্তু কেন পারফরম্যান্সে তার প্রভাব দেখা যাচ্ছে না, সেটার ব্যাখ্যা দিতে পারলেন না, ‘চেষ্টা তো সব সময়ই করছি, বাড়তি অনুশীলন করছি। বাড়তি যা করার দরকার করছি। কেন সেট হয়ে যাচ্ছি সেটা নিয়ে কাজ করছি, গত ১০ ম্যাচের আগেও তো তিন ম্যাচে ভালো করেছি। কিন্তু এখন কেন হচ্ছে না ভাবার চেষ্টা করছি। অনুশীলনের বাইরেও চিন্তা করছি, রুমে বসেও নিজের ব্যাটিং দেখছি। আবার সেরাটা ফিরে পাওয়ার সব রকম চেষ্টা করছি।’

default-image

সৌম্য সরকার একা নন, দলের অধিকাংশ খেলোয়াড়ই ভালো ফর্মে নেই। তুলনামূলক দুর্বল এক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জেতার সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছে দল। এ ব্যর্থতা পুরো দলকেই ভাবাচ্ছে। এ নিয়ে সবাই নিজেদের মধ্যে অনেক আলোচনাও নাকি করছেন খেলোয়াড়েরা। শেষ ম্যাচ জিতে এখন অন্তত কিছু একটা নিয়ে দেশে ফিরতে চাওয়ার ইচ্ছার কথাও জানালেন সৌম্য।

সিরিজের হতশ্রী ফর্ম দেখে অবশ্য এসব আশাবাদে মন গলছে না। ধবলধোলাই এড়াতে হলে বিশেষ কিছুই করে দেখাতে হবে সৌম্যদের।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন