ছিটকে পড়লেন প্যাটিনসনও

প্যাটিনসন,স্টার্ক
প্যাটিনসন,স্টার্ক

তামিম-মুশফিকদের ঠোঁটের কোণে কি হাসির রেখা দেখা যাচ্ছে? বাংলাদেশ সফরের অস্ট্রেলিয়া দলে যে জেমস প্যাটিনসনও নেই। মিচেল স্টার্ককে বিশ্রাম দেওয়ায় পেস চতুষ্টয় ভেঙে গিয়েছিল আগেই। পুরোনো চোট প্যাটিনসনকে কেড়ে নেওয়ায় দুই টেস্টের সিরিজে ভয়ংকর পেস চতুষ্টয়ের শুধু দুজন প্যাট কামিন্স ও জশ হ্যাজলউডেরই মুখোমুখি হতে হবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের।

বাংলাদেশ সফরের জন্য অস্ট্রেলিয়া ১৩ সদস্যের দল ঘোষণা করেছিল সেই জুন মাসে। বাদ ছিল একজন খেলোয়াড়। কিন্তু পিঠের ব্যথার কারণে প্যাটিনসন শেষ মুহূর্তে ছিটকে পড়ায় খালি হয়ে পড়ে দুজনের জায়গা। প্যাটিনসনের জায়গায় নিউ সাউথ ওয়েলসের পেসার জ্যাকসন বার্ডকে দলে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচকেরা। স্টার্কের জায়গায় এসেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা লেগ স্পিনার মিচেল সুয়েপসন।

অস্ট্রেলিয়ার বোলিং আক্রমণ পেসনির্ভর। গতির ঝড় তুলে প্রতিপক্ষকে কাঁপিয়ে দিতে চায় তারা। কিন্তু বাংলাদেশ সফরে আসার আগেই তাদের পেস আক্রমণ হয়ে পড়েছে খর্বশক্তির। অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হন্স অবশ্য তেমনটি মনে করেন না। কামিন্স-হ্যাজলউডদের ওপর যথেষ্ট আস্থা আছে তাঁর, ‘দলে থাকা ফাস্ট বোলারদের নিয়ে আমাদের ভরসা আছে।’

এটা ঠিক যে কামিন্স আর হ্যাজলউডও তাঁদের দিনে বিশ্বের যেকোনো ব্যাটিং অর্ডারকে তছনছ করে দিতে পারেন। বল হাতে তাঁদের মতো অতটা ভয়াল হয়তো নন বার্ড। তবে আটটি টেস্ট খেলা এই পেসারও প্যাটিনসনের মতো ১৪০ কিলোমিটারে বল করে যেতে পারেন। এসব জেনেও একটু স্বস্তিতেই থাকার কথা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের। স্টার্ক-প্যাটিনসনকে তো আর সামলাতে হবে না! চোটে পড়ার আগে প্যাটিনসন যেন ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মেই ছিলেন। এই শীতে কাউন্টি দল নটিংহামশায়ারের হয়ে প্রথম শ্রেণির পাঁচটি ম্যাচে নিয়েছেন ৩২টি উইকেট, ৫ উইকেট দুবার। গড় ১২.০৬।

স্টার্কের জায়গায় আরেকজন পেসার না নিয়ে স্পিনার কেন? দল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে এ প্রশ্নের উত্তরে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক বলেছেন, ‘বাংলাদেশের কন্ডিশনের কথা বিবেচনা করে একজন বাড়তি স্পিনার নিয়েছি।’ এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট না খেললেও উপমহাদেশের উইকেট আর কন্ডিশন সম্পর্কে সুয়েপসনের ধারণা কিছুটা আছে। এই বছরের গোড়ার দিকে অস্ট্রেলিয়ার ভারত সফরের টেস্ট দলে ছিলেন এই লেগি। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়া দল

স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা, ম্যাট রেনশ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, ম্যাথু ওয়েড, অ্যাশটন অ্যাগার, হিলটন কার্টরাইট, প্যাট কামিন্স, জশ হ্যাজলউড, নাথান লায়ন, জ্যাকসন বার্ড, মিচেল সুয়েপসন।