বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জিম্বাবুয়ে চেনা প্রতিপক্ষ হওয়ায় আরও ভালো করতে সাইফউদ্দিন যেন একটু বেশিই নিশ্চিত। জিম্বাবুয়ে সফর কাভার করতে যাওয়া সংবাদকর্মীদের কাল সে কথাই জানালেন সাইফউদ্দিন, ‘ঢাকা প্রিমিয়ার লিগটা খুব ভালো কেটেছে। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি হয়েছি। এই আত্মবিশ্বাসটা কাজে লাগাতে চাইব এখানে। এখানে আমার প্রথম সফর হলেও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দেশের মাটিতে খেলেছি আমি। যতবারই খেলেছি ব্যাটিং–বোলিংয়ে ভালো করেছি। আশা করি, এবারও ভালো করব।’

default-image

সাইফউদ্দিনের রেকর্ডও তাই বলে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত খেলেছেন ৫ ম্যাচ। প্রতি ম্যাচেই নিয়েছেন উইকেট। সব মিলিয়ে উইকেটসংখ্যা ১১। ব্যাটিং করার সুযোগ যে দুই ম্যাচে পেয়েছেন, তার একটিতে করেছেন ৫০। তবে সাইফউদ্দিনের এসব অর্জন সবই নিজের উঠানে। এবার চ্যালেঞ্জ একটাই, ভালো পারফরম্যান্সটা তাঁকে দেখাতে হবে জিম্বাবুয়ের মাটিতে।

সে জন্য জিম্বাবুয়ের কন্ডিশন ভালোভাবে চেনার চেষ্টা করছেন সাইফউদ্দিন, ‘আজ নিয়ে দুই দিন হলো অনুশীলন করছি। উইকেট থেকে যেমন বাউন্স প্রত্যাশা করেছিলাম, পাশের উইকেটে বোলিং করে অতটা পাইনি। কিছুটা মন্থর মনে হয়েছে। কোচদের সঙ্গেও কথা বলেছিলাম। যতটা বাউন্সি উইকেট হবে বলে মনে করেছিলাম ততটা না।’

default-image

উইকেট প্রত্যাশামতো না হলেও জিম্বাবুয়ের আবহাওয়ার শীত শীত ভাবটা পেস বোলারদের সাহায্য করবে বলে ধারণা এই তরুণ পেস বোলিং অলরাউন্ডারের, ‘সব কন্ডিশনে পেস বোলিং অলরাউন্ডারের অনেক ভূমিকা থাকে। তবে এই কন্ডিশনে আশা করি একটু বেশি সুবিধা থাকবে। একটু ঠান্ডা আছে। আশা করি, পেসাররা সুবিধা পাবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন