বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সিরিজের পর অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবে বাংলাদেশ দল। হেরাথের আশা, বাংলাদেশ দল জয়ের মানসিকতা ধরে রেখেই যাবে বিশ্বকাপে, ‘বিশ্বকাপের জন্য আমাদের দলটা বেশ ভারসাম্যপূর্ণ। নিউজিল্যান্ড সিরিজেও জয়ের এই মানসিকতা ধরে রাখতে পারলে বিশ্বকাপে তা কাজে লাগবে।’

অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মতো নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও স্পিনই হবে বাংলাদেশের বোলিংয়ের মূল অস্ত্র। ২০ ওভারের ম্যাচের ১২ ওভারই হয়তো করবেন স্পিনাররা। আর তার নেতৃত্বে থাকবেন সাকিব আল হাসানের মতো অভিজ্ঞ বাঁহাতি স্পিনার, যাঁর বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা আছে হেরাথেরও। সেই সাকিবকে এখন দেখছেন একই ড্রেসিংরুমে। হেরাথ বলছিলেন সেই অভিজ্ঞতার কথা, ‘সাকিবের বিপক্ষে খেলেও এখন তাঁর কোচ হিসেবে কাজ করতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। পরিসংখ্যানই তাঁর হয়ে সব বলে দেয়। সাকিবের মানের ক্রিকেটার আপনি খুব কমই দেখতে পাবেন। আশা করছি তাঁর সঙ্গে আমার জুটিটা ভালো জমবে।’

বাংলাদেশ দলের কয়েকজন তরুণ স্পিনারও নজর কেড়েছেন হেরাথের। টেস্ট দলের মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসানদের মধ্যে সফল স্পিনারের ছায়া দেখছেন তিনি। সাদা বলের ক্রিকেটে মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদরাও বলার মতো সাফল্য পাচ্ছেন। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লম্বা সময় টিকে থাকার জন্য যে মানসিকতা ও কৌশলগত জ্ঞান দরকার, সেটা নিয়ে তরুণদের সঙ্গে অনেক কাজ করার আছে বলে মনে করেন হেরাথ, ‘আমি এসেছি এক-দেড় মাস হলো। এই কয় দিনে দক্ষতা ও কৌশলগত যেসব দিক দেখেছি, তাতে ওরা প্রত্যেকেই ভালো জায়গায় আছে। আমি ওদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কৌশলগত ও মানসিক দিকটা আরও ভালো করার চেষ্টা করছি। এই পর্যায়ের ক্রিকেটে দক্ষতার চেয়েও বেশি পার্থক্য তৈরি হয় মানসিকতায়। আমি এখন পর্যন্ত এটা নিয়েই কাজ করছি।’

বাংলাদেশ দলের ফিঙ্গার স্পিনারদের ভিড়ে একমাত্র লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম। জিম্বাবুয়ে সফরে দলে থাকলেও বাবার মৃত্যুর কারণে না খেলেই দেশে ফিরতে হয় তাঁকে। কোয়ারেন্টিন নীতির কারণে খেলতে পারেননি অস্ট্রেলিয়া সিরিজেও। আর এর আগেও দলে নিয়মিত হতে পারেননি চোটের বাধায়। তবে নিউজিল্যান্ড সিরিজের দলে তিনি আছেন। আছেন বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ পরিকল্পনাতেও। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে দলে একজন লেগ স্পিনার থাকাটাকে বাড়তি স্বস্তিই মনে করেন হেরাথ, ‘ভারতীয় দলে চাহাল, কুলদিপরা আছে। শ্রীলঙ্কার আছে ওনিন্দু, সান্দাকানরা। আমাদের ভাগ্য ভালো যে আমাদের দলে বিপ্লব (আমিনুল) আছে। জিম্বাবুয়েতে তাকে দেখেছি। নেটে ভালোই বল করছে। আশা করি সে নিউজিল্যান্ড সিরিজে ভালো করবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন