সেঞ্চুরির পর লিটন। মুশফিক ও নোমান আলী করতালিতে সিক্ত করলেন লিটনকে
সম্প্রচার শেষ ২৬ নভেম্বর ২০২১, ১৭: ০৫

মুশফিক–লিটনে প্রথম দিনটা বাংলাদেশের

০৯: ৩২, নভেম্বর ২৬

স্বাগতম!

চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ।

পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে এ পর্যন্ত ১১ ম্যাচ খেলে একটিও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। ১০ হার ও ১ ড্র।

ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬ টেস্টের ৫টিতে হার ও ১ ম্যাচ ড্র করেছে বাংলাদেশ।

এই সফরে টি–টোয়েন্টি সিরিজে পাকিস্তানের কাছে তিন ম্যাচ সিরিজে ৩–০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে মাহমুদউল্লাহর দল।

০৯: ৩২, নভেম্বর ২৬

টস!

টস জিতেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

default-image
০৯: ৩৭, নভেম্বর ২৬

বাংলাদেশ দল

মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, সাইফ ইসলাম, নাজমুল হোসেন, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মেহেদী হাসান, ইয়াসির আলী, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ ও ইবাদত হোসেন।

এ ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষিক্ত হচ্ছেন ইয়াসির আলী।

০৯: ৪২, নভেম্বর ২৬

পাকিস্তান দল

আব্দুল্লাহ শফিক, আবিদ আলী, আজহার আলী, বাবর আজম (অধিনায়ক), ফাওয়াদ আলম, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটকিপার), ফাহিম আশরাফ, নোমান আলী, হাসান আলী, শাহিন আফ্রিদি ও সাজিদ খান।

পাকিস্তানের হয়ে এ ম্যাচে টেস্ট অভিষেক হচ্ছে আব্দুল্লাহ শফিকের।

default-image
০৯: ৪৬, নভেম্বর ২৬

অবশেষে ইয়াসির!

ইয়াসির আলী ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত পারফরমার। এ বছর বাংলাদেশের প্রতিটি টেস্ট সিরিজেই স্কোয়াডে ছিলেন তিনি। বদলি ফিল্ডার হিসেবে এ বছর ছয়টি ক্যাচও ধরেছেন। শেষ পর্যন্ত অভিষেক ঘটল!

default-image
১০: ০৫, নভেম্বর ২৬

মেডেন ওভারে শুরু

সাদমান ইসলাম ও সাইফ হাসান ওপেন করতে নেমেছেন বাংলাদেশের হয়ে। পাকিস্তানের হয়ে প্রথম ওভারটি করেন শাহিন আফ্রিদি। প্রথম বলেই সুইংয়ে সাদমানকে পরাস্ত করেন বাঁহাতি এ পেসার।

তাঁর ওভারটি দেখে খেলেছেন দুই ওপেনার। প্রথম সেশনে প্রথম ওভার শেষে বিনা উইকেটে কোনো রান তুলতে পারেনি বাংলাদেশ।

১০: ০৯, নভেম্বর ২৬

বেঁচে গেলেন সাদমান

শাহিনের প্রথম ওভারে সাদমানের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে গিয়েছিল বল। ক্যাচও নিয়েছিলেন উইকেটকিপার রিজওয়ান। কিন্তু পাকিস্তানের কেউ টের পাননি ওটা ক্যাচ ছিল! কেউ আবেদনও করেননি। প্রথম ওভারেই বেঁচে গেলেন সাদমান।

default-image
১০: ০৯, নভেম্বর ২৬

দুই চারে বাজে শুরু হাসানের

দ্বিতীয় ওভারে দুটি চার হজম করেন পাকিস্তানের পেসার হাসান আলী। লেগ দিয়ে তাঁকে দুটি বাউন্ডারি মারেন সাইফ। বাংলাদেশ দ্বিতীয় ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৮ রান তুলেছে।

১০: ২০, নভেম্বর ২৬

চার মেরেই আউট সাইফ!

পঞ্চম ওভারে শাহিন আফ্রিদির দ্বিতীয় বলকে কাভার দিয়ে চার মারেন সাইফ। দেখার মতো পুশ ছিল সেটি। কিন্তু পরের বলেই আফ্রিদির বাউন্সার সামলাতে পারেননি এ ওপেনার। শর্ট লেগে দাঁড়ানো আবিদ আলী ক্যাচটি নেন। ১২ বলে ১৪ রান করে ফিরলেন সাইফ।

ব্যাট করতে নেমেছেন নাজমুল হোসেন। অন্য প্রান্তে অপরাজিত আছেন সাদমান। ৫ ওভার শেষে বাংলাদেশ ১ উইকেটে ২৩।

default-image
১০: ২৬, নভেম্বর ২৬

সাদমানের দর্শনীয় পুল!

খাটো লেংথের উঠে আসা বলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা শট খেলতে পারেন না, এমন দুর্নাম আছে। পুল কিংবা হুক করায় ব্যাটসম্যানদের খামতি দেখেন বিশ্লেষকেরা। কিন্তু ষষ্ট ওভারে হাসানকে দেখার মতো পুল শটে চার মেরে দুর্নামটা ঘোচানোর চেষ্টা করলেন সাদমান।

বাংলাদেশ ৬ ওভার শেষে ১ উইকেটে ২৮। সাদমান অপরাজিত ১০ রানে। ৪ রানে অন্য প্রান্তে ব্যাট করছেন নাজমুল।

১০: ৩৩, নভেম্বর ২৬

মাঝে ব্যবধান ১৩৮ দিনের

গত জুলাইয়ে হারারেতে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সে ম্যাচ ২২০ রানে জিতেছিল বাংলাদেশ। ১৩৮ দিন পর আবারও টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬৫৫ দিন পর টেস্ট খেলছে বাংলাদেশ। সর্বশেষ গত বছর ফেব্রুয়ারিতে রাওয়ালপিন্ডিতে টেস্টে পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়ে ইনিংস ও ৪৪ রানে হারে বাংলাদেশ।

১০: ৩৬, নভেম্বর ২৬

সাদমান আউট!

ভালো খেলতে খেলতে আউট সাদমান। অষ্টম ওভারে হাসান আলীর ভেতরে ঢোকানো বল ভুল লাইনে খেলে এলবিডব্লু হলেন তিনি। ২৮ বলে ১৪ রান করে ফিরলেন সাদমান।

বাংলাদেশ ৮ ওভার শেষে ২ উইকেটে ৩৩। উইকেটে এসেছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক।

default-image
১১: ১১, নভেম্বর ২৬

মুমিনুলও টিকতে পারলেন না

তৃতীয় উইকেটে নাজমুলের সঙ্গে ৪৩ বলে ১৪ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন মুমিনুল। কিন্তু ১৬তম ওভারে স্পিনার সাজিদ খানের প্রথম বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন মুমিনুল। ১৯ বলে ৬ রান করে ফিরলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। বাংলাদেশ ১৫.১ ওভারে ৩ উইকেটে ৪৭।

default-image
১১: ১৩, নভেম্বর ২৬

বিপর্যয় সামাল দিতে পারবেন মুশফিক?

টেস্টের প্রথম দিনে ১৫.১ ওভারের মধ্যে ৫০ রান তোলার আগেই ৩ উইকেট নেই বাংলাদেশের। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাট করতে নেমেছেন মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের বহু ম্যাচে এমন চাপ সামাল দেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে ৭৬তম টেস্ট খেলতে নামা মুশফিকের। আজও তেমন একটি চ্যালেঞ্জ মুশফিকের সামনে।

১১: ১৬, নভেম্বর ২৬

আগুন!

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টেস্টের প্রথম দিনের খেলা চলাকালীন পাশেই কোথাও আগুন লেগেছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে কালো ধোঁয়ার কুন্ডলী। প্রথম আলোর চিত্রগ্রাহকের ক্যামেরায় ধরা পড়ল দৃশ্যটি।

default-image
১১: ১৯, নভেম্বর ২৬

৬ বল পর নাজমুলও!

ভালোই খেলছিলেন নাজমুল হোসেন। বল ব্যাটে আসছিল। এর মধ্যেই আউট! মুমিনুল আউট হওয়ার ৬ বল পর ১৬.২ ওভারে ফাহিম আশরাফকে স্কয়ার কাট করতে গিয়ে পয়েন্টে সাজিদ খানকে ক্যাচ দেন নাজমুল। শটটি একটু ওপরে খেলে ফেলেছিলেন নাজমুল। কঠিন ক্যাচটি দারুণ দক্ষতায় নিয়েছেন সাজিদ। ৩৭ বলে ১৪ রান করে ফিরলেন নাজমুল।

বাংলাদেশ ১৬.২ ওভারে ৪ উইকেটে ৪৯। উইকেটে দুই নতুন ব্যাটসম্যান মুশফিক ও লিটন দাস।

default-image
১১: ২৩, নভেম্বর ২৬

অভিশপ্ত ‘১৪’?

সাদমান ইসলাম ও সাইফ হাসান দুজনেই আউট হয়েছেন ১৪ রানে। নাজমুল হাসানও আউট ১৪ রানে। তিনজনই আউট হলেন পেসারদের বলে। আজ ‘১৪’ সংখ্যাটা কি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের জন্য অভিশপ্ত?

মুশফিক–লিটন ১৪ রান পর্যন্ত যেতে পারলে তখন অবশ্যই তাঁদের আরও সাবধানে ব্যাট করা উচিত!

১১: ৩৫, নভেম্বর ২৬

ডানহাতির বিপক্ষে বাঁহাতি, বাঁহাতির বিপক্ষে ডানহাতি

নাজমুল হোসেন ও মুমিনুল হক—দুজনেই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ১১তম ওভার পর্যন্ত পেসারদের দিয়ে বল করানোর পর অফ স্পিনার সাজিদ খানকে বোলিংয়ে নিয়ে আসেন বাবর আজম। মুমিনুলকে তুলে নিয়ে আস্থার প্রতিদানও দেন সাজিদ।

২০তম ওভারে বাঁহাতি স্পিনার নোমান আলীকে বোলিংয়ে নিয়ে আসেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর। উইকেটে এখন দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যান—মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় ক্রিকেটে বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের বিপক্ষে ডানহাতি বোলার কিংবা ডানহাতি ব্যাটসম্যানের বিপক্ষে বাঁহাতি বোলার খেলানোর কৌশল বেছে নিচ্ছেন অধিনায়কেরা।

১১: ৩৯, নভেম্বর ২৬

লিটন–মুশফিকের জুটি গড়ার চেষ্টা

পঞ্চম উইকেটে ৩২ বলে ১৫ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছেন মুশফিক ও লিটন।

বাংলাদেশ ২২ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ৬৪।

default-image
১২: ০৫, নভেম্বর ২৬

মধ্যাহৃভোজ বিরতি

২৮ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ৬৯ রান তুলে প্রথম সেশনের খেলা শেষ করল বাংলাদেশ। উইকেটে রয়েছেন মুশফিকুর রহিম (৫) ও লিটন দাস (১১)।

প্রথম সেশনের শেষ দিকে ভালো বাঁক পেয়েছেন পাকিস্তানের দুই স্পিনার সাজিদ ও নোমান। বিশেষ করে নোমান বড় বাঁক পাচ্ছেন। টেস্টের প্রথম দিনেই এমন বাঁক দেখে বাংলাদেশের স্পিনারদের চোখ চকচক করে উঠতেই পারে।

প্রথম সেশনে ৪ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। সব মিলিয়ে সেশনটা ভালো কাটাতে পারেনি মুমিনুলের দল। সাইফ বাউন্সার সামলাতে পারেননি, সাদমান ভেতরে ঢোকা বল ব্যাটে খেলতে পারেননি, নাজমুল স্কয়ার কাটের বল নিচে খেলতে পারেননি এবং মুমিনুল স্পিনারের বড় বাঁক সামলাতে পারেননি। সবগুলো আউটেই ব্যাটিং কৌশলের খামতি দেখা গেছে।

পঞ্চম উইকেটে ৭০ বলে ২০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে চাপ কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন মুশফিক–লিটন।

১২: ৫৭, নভেম্বর ২৬

‘১৪’–এর অভিশাপ টপকে গেলেন লিটন

মধ্যাহৃভোজ বিরতির পর দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু হয়েছে। ২৯তম ওভারে হাসান আলীকে চার মেরে ‘১৪’ রান পেরিয়ে যান লিটন। এর আগে এই ইনিংসে তিন ব্যাটসম্যান ১৪ রানে আউট হন।

২১ রানে ব্যাট করছেন লিটন। মুশফিক অন্য প্রান্তে ৬ রানে অপরাজিত। বাংলাদেশ ৩২ ওভারে ৪ উইকেটে ৮০। পঞ্চম উইকেটে ১০০ বলে ৩৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন লিটন–মুশফিক।

default-image
১৩: ১৭, নভেম্বর ২৬

লিটনের লেট কাট যেন কাটলেট!

ব্যাটিংয়ে নেমেই আজ পেসারদের বল দেখে একটু দেরিতে খেলছেন লিটন। চড়াও হয়ে সামনে গিয়ে খেলছেন না। এতে বলটা শেষ পর্যন্ত দেখার সুযোগ মেলে। বিপদও কম হয়। স্পিনারদের ক্ষেত্রেও একই কৌশলে ব্যাট করছেন লিটন। নোমান আলীকে ৩৬তম ওভারের প্রথম বলেই দেখার মতো এক লেট কাটে চার মারেন লিটন। এর আগেও একই শটে নোমানের কাছ থেকে চার আদায় করেছেন লিটন। নিখুঁত টাইমিংয়ে এই শট দেখার স্বাদ যেন মাছের কাটলেট মুখে দেওয়ার মতো!

বাংলাদেশ ৩৭ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ৯৪। ২৬ রানে ব্যাট করছেন লিটন। ১৫ রানে অপরাজিত মুশফিক।

default-image
১৩: ২৪, নভেম্বর ২৬

লিটন–মুশফিকের যৌথ প্রযোজনার ৫০

৪৯ রানে ৪ উইকেট পড়ার পর পঞ্চম উইকেটে জুটি বাঁধেন লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম। প্রথম সেশনে বাকি ওভারগুলো পেরিয়ে দ্বিতীয় সেশনে এখন আস্থার সঙ্গে ব্যাট করছেন দুজন। উইকেটে দুজনেই সেট। বাজে বলগুলো থেকে রান বের করতে পারছেন। ১৩৫ বলে ৫৩ রানের অবিচ্ছন্ন জুটি গড়ে ব্যাট করছেন দুজন।

শাহিন আফ্রিদিকে এরই মধ্যে দুই স্পেলে ফিরিয়েও জুটিটা ভাঙতে পারেননি বাবর আজম।

বাংলাদেশ ৪৯ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১০২। লিটন ২০ রানে অপরাজিত। মুশফিকের সংগ্রহ অপরাজিত ২০।

default-image
১৩: ৩৯, নভেম্বর ২৬

বাবরের নতুন কৌশল

উইকেটে দুজনেই ডানহাতি ‘সেট’ ব্যাটসম্যান। এ অবস্থায় ডানহাতি স্পিনার সাজিদ খানকে বোলিংয়ে আনতে দ্বিধা করেননি পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর। কৌশল করে শর্ট লেগ ও একেবারে শর্ট ফাইন লেগে দুজন ফিল্ডার রেখে সাজিদকে দিয়ে পায়ের ওপর বল করাচ্ছেন বাবর। মুশফিক কিংবা লিটন একটু ভুল করলেই ক্যাচ উঠবে—এটাই লক্ষ্য। কিন্তু আস্থার সঙ্গেই খেলছেন দুজন।

বাংলাদেশ ৪২ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১১৫। লিটন ৩২ এবং মুশফিক ৩০ রানে অপরাজিত।

১৩: ৪৪, নভেম্বর ২৬

শট অব দ্য সেশন!

ওভার দ্য উইকেট থেকে বল করে লিটন–মুশফিককে টলাতে পারেননি শাহিন আফ্রিদি। ৪৩তম ওভারে তাই রাউন্ড দ্য উইকেট থেকে বল করলেন। বল ভেতরে ঢোকানোর চেষ্টা করেছেন, মেরেছেন ইয়র্কাও। কিন্তু কাজ হয়নি।

উল্টো আফ্রিদির একটি ফুল লেংথ ডেলিভারি দর্শনীয় স্ট্রেট ড্রাইভে চার মারেন মুশফিক। ধারাভাষ্যকার বলে উঠলেন, ‘শট অব দ্য সেশন’। লিটনের লেট কাটের চেয়েও সুন্দর ছিল ড্রাইভটি।

default-image
১৩: ৫৫, নভেম্বর ২৬

ছক্কা!

সাজিদ খানকে তাঁর আগের ওভারে এগিয়ে এসে স্ট্রেট দিয়ে চার মারেন মুশফিক। উইকেটে সেট হওয়ার পর অফ স্পিনারকে এভাবে মারা খানিকটা সহজ। লিটনের সম্ভবত লোভ জেগেছিল। সাজিদ নিজের পরের ওভারে বোলিংয়ে ফেরার পর এগিয়ে এসে লং অন দিয়ে ছক্কা মারেন লিটন। বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে প্রথম ছক্কা!

৪১ রানে অপরাজিত লিটন। মুশফিক ৩৯ রানে অপরাজিত। বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ১৩৩।

default-image
১৪: ০৪, নভেম্বর ২৬

স্বস্তির ফিফটি!

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ফর্মে ছিলেন না লিটন। টেস্টে নেমে দেখা পেলেন রানের। ৪৯তম ওভারে নোমানকে স্কয়ার কাটে চার মেরে ফিফটি তুলে নেন তিনি। ৯৭ বলে ৫০ রানে ব্যাট করছেন লিটন। আজ ক্রিজের ভেতরটা দারুণভাবে ব্যবহার করে স্পিনারদের বিপক্ষে রান আদায় করছেন তিনি। পায়ের কাজও দারুণ হচ্ছে।

তিন সংস্করণ মিলিয়ে ১৫ ম্যাচ পর ফিফটির দেখা পেলেন লিটন। এ বছর জুলাইয়ে হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডেতে ১০২ রানের ইনিংসের পর এটাই লিটনের প্রথম ফিফটি।

বাংলাদেশ ৪৯ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১৪৩। ৯৯ বলে ৪০ রানে অপরাজিত মুশফিক। পঞ্চম উইকেটে দুজনে ১৯৬ বলে ৯৪ রানের জুটি গড়েছেন।

default-image
১৪: ১২, নভেম্বর ২৬

শতরানের জুটি

দারুণ ব্যাট করছেন মুশফিক–লিটন। কোনো ঝুঁকি ছাড়াই রান বের করছেন দুজন। এই পথে ৫১তম ওভারে নোমানকে কাভার ড্রাইভে চার মেরে পঞ্চম উইকেটে শতরানের জুটির দেখা পাইয়ে দিলেন লিটন। ২০৭ বলে ১০২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দলকে শক্ত ভিত্তি এনে দেওয়ার পথে রয়েছেন মুশফিক–লিটন।

বাংলাদেশ ৫১ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১৫১। ৫৬ রানে ব্যাট করছেন লিটন। অন্য প্রান্তে ৪২ রানে অপরাজিত মুশফিক।

default-image
১৪: ২২, নভেম্বর ২৬

মুশফিকেরও ফিফটি

পাকিস্তানের বিপক্ষে টি–টোয়েন্টি সিরিজে বিশ্রাম পেয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। টেস্ট আঙিনায় ফিরেই ফিফটি তুলে নিলেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ এ ব্যাটসম্যান। ৫৩তম ওভারে হাসান আলীকে টানা দুই চার মারার পথে ফিফটি তুলে নেন মুশফিক। পায়ের দারুণ ব্যবহারে ঠান্ডা মাথায় ব্যাট করছেন মুশফিক। এই ইনিংস তিনি কতদূর টানতে পারেন এখন সেটাই দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ ৫৩ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১৬০। এদিকে হাসান আলীকে সমস্যায় পড়েছেন বাবর আজম। ৮ ওভার বল করে ১টি উইকেট পেলেও ওভারপ্রতি ৪ এর বেশি রান দিয়েছেন হাসান। ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা নিতে পারছেন না।

default-image
১৪: ৪২, নভেম্বর ২৬

নিশ্ছিদ্র দ্বিতীয় সেশন

প্রথম সেশনে ২৮ ওভারে ৬৯ রান তুলতে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুশফিক–লিটন এরপর নেমে আর কোনো উইকেট পড়তে দেননি। দ্বিতীয় সেশনে ৩১ ওভারের খেলায় কোনো উইকেট না হারিয়ে ১০২ রান তুলেছেন দুজন।

সব মিলিয়ে চা–বিরতিতে যাওয়ার আগে দুই সেশন ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৭১ রান তুলেছে বাংলাদেশ। ৬২ রানে অপরাজিত লিটন এবং অন্য প্রান্তে ৫৫ রানে অপরাজিত মুশফিক। পঞ্চম উইকেটে দুজনে মিলে ২৫৬ বলে ১২২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন। নিশ্ছিদ্র ব্যাটিং করায় চা–বিরতিটা উপভোগ করার কথা দুই ব্যাটসম্যানের।

অন্যদিকে পাকিস্তানের বোলারদের হতাশ হওয়াই স্বাভাবিক। দুই স্পিনার এবং তিন পেসার দিয়েও মুশফিক–লিটনের জুটি ভাঙতে পারছেন না বাবর আজম।

প্রথম সেশনটা যদি হয় পাকিস্তানের তাহলে দ্বিতীয় সেশনটা আক্ষরিক অর্থেই বাংলাদেশের।

default-image
১৫: ৩৫, নভেম্বর ২৬

লিটন–মুশফিকের ১৫০

জমাট ব্যাটিং করছেন লিটন–মুশফিক। ৩০৪ বলে অবিচ্ছিন্ন ১৫০ রানের জুটি গড়েছেন পঞ্চম উইকেটে। ৭৫ রানে ব্যাট করছেন লিটন। অন্য প্রান্তে ৬৯ রানে ব্যাট করছেন মুশফিক।

বাংলাদেশ ৬৮ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ২০০।

default-image
১৫: ৪৭, নভেম্বর ২৬

কতদূর যাবেন লিটন–মুশফিক?

টেস্টে পঞ্চম উইকেটে বাংলাদেশ সর্বোচ্চ রানের জুটি দেখেছে সাকিব–মুশফিকের সৌজন্যে। ২০১৭ সালে ওয়েলিংটনে ৩৫৯ রানের জুটি গড়েছিলেন দুজন। আজ এই পঞ্চম উইকেট জুটিতে বাংলাদেশের হয়ে আপাতত পঞ্চম সর্বোচ্চ রানের জুটি গড়ে ব্যাট করছেন মুশফিক–লিটন।

তবে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে পঞ্চম উইকেটে এটি সর্বোচ্চ রানের (১৫৯*) জুটি। এ পথে মেহরাব হোসেন–মুশফিকের গড়া ১৪৪ রানের জুটি টপকে গেলেন লিটন–মুশফিক।

১৬: ১৬, নভেম্বর ২৬

আরাধ্য সেঞ্চুরি!

ফতুল্লায় ২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক লিটনের। এ সংস্করণে সেঞ্চুরি পেতে তাঁর সময় লাগল ছয় বছর!

৭৮তম ওভারে নোমান আলীর বলে ঝুঁকিপূর্ণভাবে ১ রান নিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন লিটন। ১ ছক্কা ও ১০ চারে ১৯৯ বলে ১০০ রানে অপরাজিত রয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ২৩৫। ৩৭১ বলে অবিচ্ছিন্ন ১৮৬ রানের জুটি গড়েছেন লিটন–মুশফিক। ৭৭ রানে ব্যাট করছেন মুশফিক।

১৬: ২৯, নভেম্বর ২৬

নতুন বল!

৮০ ওভার পর নতুন বল নিল পাকিস্তান। বাঁহাতি পেসার শাহিন আফ্রিদির হাতে নতুন বল তুলে দিয়ে মুশফিক–লিটনের জুটি ভাঙার চেষ্টা করছে পাকিস্তান। সুইং পাচ্ছেন শাহিন আফ্রিদি। লিটন–মুশফিকও খেলছেন দেখেশুনে।

১৬: ৪৫, নভেম্বর ২৬

মুশফিক–লিটনের ২০০

দিনটা বাংলাদেশের করার পথে দৃঢ়পদক্ষেপে এগিয়ে যাচ্ছেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। পঞ্চম উইকেটে ৪০৯ বলে ২০০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন দুজন। লিটন সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন। মুশফিক ৮২ রানে অপরাজিত থেকে সেঞ্চুরির সুবাস পাচ্ছেন। ১০৯ রানে ব্যাট করছেন লিটন।

বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ২৪৯।

default-image
১৬: ৫০, নভেম্বর ২৬

বাংলাদেশ প্রথম দিন শেষে ৪ উইকেটে ২৫৩

লিটন–মুশফিকের দৃঢ়তায় টেস্ট ক্রিকেটে তৃপ্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ার মতো এক দিন কাটাল বাংলাদেশ। ৪ উইকেটে ২৫৩ রান তুলে চট্টগ্রাম টেস্টে প্রথম দিনের খেলা শেষ করল বাংলাদেশ।

১১৩ রানে অপরাজিত লিটন। বাঁ হাতে ব্যথা পেয়েছেন তিনি। ব্যথা নিয়েই ব্যাট করেছেন শেষ দিকে। ৮২ রানে অপরাজিত মুশফিক। পঞ্চম উইকেটে দুজনে মিলে ২০৪ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে মাঠ ছাড়েন দুজন। ৬৮.৪ ওভার ব্যাট করেন তাঁরা। প্রথম দিনে ৮৫ ওভারের খেলা হয়েছে।

পাকিস্তানের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন শাহিন আফ্রিদি, হাসান আলী, ফাহিম আশরাফ ও সাজিদ খান।

প্রথম সেশনটা ভালো কাটাতে পারেনি বাংলাদেশ। কিন্তু পরের দুই সেশনে কোনো উইকেট পড়তে না দিয়ে দিনটা বাংলাদেশকে উপহার দেন মুশফিক–লিটন।

প্রথম সেশনে ২৮ ওভারে ৪ উইকেটে ৬৯ রান তোলে বাংলাদেশ। ৪৯ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারায় মুমিনুল হকের দল। ১৪ রান করে আউট হন সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান ও নাজমুল হোসেন। ৬ রানে আউট হন মুমিনুল।

দ্বিতীয় সেশনে ৩১ ওভারের খেলায় কোনো উইকেট না হারিয়ে ১০২ রান তোলেন মুশফিক–লিটন। তৃতীয় সেশনে ২৬ ওভারে উঠেছে ৮২ রান।

default-image