টি-টোয়েন্টিতে ডাবল সেঞ্চুরি করবেন রাসেল?

আইপিএলে ডাবল সেঞ্চুরি করবেন রাসেল?
আইপিএলে ডাবল সেঞ্চুরি করবেন রাসেল?সংগৃহীত ছবি, বিসিসিআই
বিজ্ঞাপন

এক সময় ওয়ানডেতেও দুই শ রানের কথা ভাবা যেত না। লিস্ট ‘এ’তে কালেভদ্রে দেখা গেলেও ওয়ানডেতে দুই শ? উঁহু, কারও ভাবনাতেই জায়গা পেত না। সাঈদ আনোয়ারের ১৯৪ রান সে ভাবনায় দোলা দিলেও আরও প্রায় দেড় যুগের অপেক্ষা শেষেই ওয়ানডেতে দুই শর দেখা মিলেছিল।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওয়ানডেতে এখন দুই শ রান অনেকটাই গ্রহণযোগ্য এক মাইলফলক হয়ে উঠেছে। এক রোহিত শর্মাই যে কদিন পর পরই সেটা করে দেখাচ্ছেন। তাই ব্যাটিংয়ের পরবর্তী চমক হিসেবে এখন এর চেয়ে ক্ষুদ্র সংস্করণে চোখ নিতে হচ্ছে। ২০ ওভারের ম্যাচে কোনো ব্যাটসম্যানের দুই শ রান করার স্বপ্নটা তাই জেগে উঠছে সবার মাঝে। ডেভিড হাসির ধারণা, প্রায় অসম্ভব মনে হওয়া এ কাজটা যদি কেউ করতে পারেন, সেটা আন্দ্রে রাসেল।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আইপিএলে গত মৌসুমে অবিশ্বাস্য খেলেছেন রাসেল। বোলার হিসেবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ওপেন করেছেন, পেয়েছেন ১১ উইকেট। তাঁর আসল রূপ দেখা গেছে ব্যাটিংয়ে। ১৩ ইনিংসে ৫১০ রান নিয়েছেন ৫৬.৬৬ গড়ে। গড়ের চেয়েও দুর্দান্ত ছিল তাঁর স্ট্রাইকরেট, ২০৫! এমন এক ব্যাটসম্যান যেন ইনিংসের বড় একটা সময় জুড়ে ব্যাট করতে পারে সেটা নিশ্চিত করতে চাইছে কলকাতা। আর এ কারণেই দলের পরামর্শক হাসি ও কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম তিনে নামাতে চান রাসেলকে।

রাসেলকে তিনে নামানোর পক্ষে যুক্তি দিয়েছেন হাসি, ‘যদি দলের ভালো হয় এবং আমাদের সেটা ম্যাচ জেতায়; কেন নয়? যদি আন্দ্রে রাসেল তিনে নামে আর ৬০ বল খেলে, তাহলে হয়তো সে ডাবল সেঞ্চুরি করে বসবে। রাসেলের ক্ষেত্রে যেকোনো কিছুই ঘটতে পারে।’

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

টি-টোয়েন্টি দুই শ রানের চেষ্টা প্রায় অসম্ভব বলেই মনে হয়েছে এত দিন। স্বয়ং ক্রিস গেইল ওপেনিং করতে নেমেও সেটা করতে পারেননি। ২০১৩ সালে গেইলের করা অপরাজিত ১৭৫ রানই স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ হয়ে আছে। অ্যারন ফিঞ্চ সে রেকর্ড ভাঙার সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু ২০১৮ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ইনিংসের দুই বল আগে ১৭২ রানে আউট হয়েছেন এই ওপেনার। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে দেড় শ ছাড়ানো প্রায় সব ইনিংসের মালিকই ওপেনার। শুধু গ্রাহাম নেপিয়ার তিনে নেমে দেড় শ ছাড়ানো ইনিংস খেলেছেন টি-টোয়েন্টিতে। ফলে তিনে নেমে দুই শ করার জন্য অমানুষিক কিছুই করতে হবে রাসেলকে।

কাজটা সম্ভব কি না সেটা ভবিষ্যৎই বলে দেবে। তবে নাইট রাইডার্সের জন্য রাসেল কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা আবারও সবাইকে জানিয়ে দিয়েছেন রাসেল, ‘অসাধারণ খেলোয়াড়, সেই দলের হৃৎস্পন্দন। আমাদের দারুণ গোছানো একটা দল আছে। সবাই ভিন্ন পজিশনে খেলতে পারে। কিন্তু দলের যদি ভালো হয় তাহলে তার ওপরে নামতে সমস্যা নেই কোনো।’

আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের এবারের আইপিএল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন