বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এ মুহূর্তে আবুধাবিতে চলতে থাকা টি-১০ টুর্নামেন্টের দিকে নজর ফিরিয়ে গেইল জানান, ১০ ওভারের এ ম্যাচগুলোতে যেমন ব্যাটিং করেন ব্যাটসম্যানরা, টি-টোয়েন্টির শুরুর দিকেও ব্যাটিং এমনই আগ্রাসী ছিল। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে টি-টোয়েন্টিতেও এখন বিনোদনের চেয়ে দেখেশুনে খেলা গড়াতেই বেশি মনোযোগ থাকে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানদের।

আবুধাবি টি-১০ লিগে ‘টিম আবুধাবি’র হয়ে খেলছেন গেইল। গতকাল বাংলা টাইগার্সের কাছে তাঁর দল শেষ পর্যন্ত ১০ রানে হেরে গেলেও চারে নেমে গেইল খেলেছেন ২৩ বলে ৩ চার ও ৫ ছক্কায় অপরাজিত ৫২ রানের ইনিংস। স্ট্রাইক রেট ২২৬.০৮!

ম্যাচ শেষেই গেইল কথা বলেন টি-টোয়েন্টির এ যুগের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানদের নিয়ে, ‘আমার মনে হয় টি-১০ ক্রিকেটে যা হচ্ছে...টি-টোয়েন্টির শুরুটাও এমনই হয়েছিল। প্রথম ওভার থেকে ব্যাটসম্যানরা চালিয়ে খেলতে শুরু করত। কিন্তু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট এরপর থেকে অনেক ধীরগতির হয়ে গেছে। টি-১০ ক্রিকেট এসে এখন আবার (ব্যাটিংয়ে আগ্রাসনের) মানটা আরেকটু উঁচুতে নিয়ে গেছে।’

default-image

কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে এ যুগের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানদের দেখেশুনে শুরু, ইনিংস গড়ার দিকে মনোযোগ ওই সংস্করণের ক্রিকেটে দর্শকদের বিনোদন কমিয়ে দিচ্ছে বলে মনে হচ্ছে গেইলের, ‘একেবারে সোজা কথায় বললে, টি-টোয়েন্টিতে ওরা মজাটা নষ্ট করে দিচ্ছে। কারণ, প্রথম ছয় ওভারে (যখন শুধু দুজন ফিল্ডার ৩০ গজ বৃত্তের বাইরে রাখা যায়) আমরা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানরা আরও বেশি রান করতে পারি, কিন্তু এখনকার ব্যাটসম্যানরা আক্রমণ শুরু করতে অনেক বেশি সময় নিচ্ছে।’

এদিক থেকে টি-১০ ক্রিকেটকে এগিয়ে রেখে আরও সংক্ষেপিত এ সংস্করণের বিজ্ঞাপনই করে যাচ্ছেন এক সময়ের ‘টি-টোয়েন্টির ফেরিওয়ালা।’ তাঁর চোখে এ আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের কারণেই টি-১০ ক্রিকেট আরও বেশি বেশি হওয়া উচিত, ‘মাঝেমধ্যে ওরা (টি-টোয়েন্টিতে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানরা) হয়তো নিজেরা বড় ইনিংস খেলতে চায়। তাতে প্রথম ছয় ওভারে ওদের ব্যাটে যে আগুন থাকা উচিত, সেটা থাকে না। কিন্তু টি-১০ একেবারে ঠিক আছে। আশা করি, সামনে আরও বেশি বেশি টি-১০ ক্রিকেট দেখব।’

এ সংযুক্ত আরব আমিরাতেই কয়েক দিন আগে হয়ে গেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেখানে পিচগুলো অবশ্য আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের জন্য খুব একটা উপযোগী ছিল না। গেইলের নিজের দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ যেটি বুঝেছে চরম মূল্য দিয়ে। ইনিংস ধরে রাখার মতো তেমন ব্যাটসম্যান ছাড়াই বিশ্বকাপে যাওয়া উইন্ডিজ বাদ পড়েছে গ্রুপ পর্বে।

তবু গেইলের মনে হচ্ছে, হিসাব কষে ব্যাটিং টি-টোয়েন্টির জন্য নয়, ‘প্রথম ছয় ওভারে কেন ব্যাটসম্যানরা এত খাঁচাবন্দী হয়ে থাকে, আমি বুঝতে পারি না। আপনি যদি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে ফিরে দেখেন, টি-টোয়েন্টি যখন শুরু হয়েছিল, ব্যাটসম্যানরা প্রথম বল থেকে শট খেলতে চাইত।’

এখন যে ব্যাটসম্যানরা দেখেশুনে শুরু করতে চায়, সেটিতে আপত্তি গেইলের, ‘এখনকার এ ব্যাপারটা আমার ভালো লাগে না। আমার মনে হয় আমাদের শুরু থেকেই চালিয়ে খেলা উচিত। টি-টোয়েন্টির যে বিনোদন সেটি ঠিক রাখা উচিত। প্রথম ছয় ওভারে আগ্রাসী ব্যাটিং করা উচিত।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন