বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ পাকিস্তান সিরিজের জন্য ঘোষিত ১৬ সদস্যের টি–টোয়েন্টি দলে রাখা হয়নি মুশফিককে। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীনকে মুশফিকের না থাকার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের পরপর চারটি টেস্ট আছে। পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু। তার পরপরই নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে টেস্ট সিরিজ আছে। মুশফিক আমাদের অন্যতম সেরা ও গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। আমরা চাচ্ছি মুশফিক যেন সেরাটা দিতে পারে। এ জন্য টি-টোয়েন্টি সিরিজে ওকে বিশ্রাম দিয়েছি।’

চোটের কারণে আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে পারবেন না। সে জন্য মুশফিকের ব্যাপারে ঝুঁকি নিতে চাচ্ছেন না নির্বাচকেরা, ‘তামিমের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের চোট আছে। টেস্ট সিরিজে তাকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা আছে। এটা শুধু পাকিস্তান সিরিজের জন্যই। পরবর্তী সময়ে আবার টি-টোয়েন্টিতে বিবেচনায় থাকবে।’

default-image

মুশফিকের না থাকায় ১৬ সদস্যের দলে উইকেটকিপার হিসেবে রাখা হয়েছে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবর আলীকে। প্রাথমিকভাবে আকবর নির্বাচকদের চিন্তায় ছিলেন না। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের ওপেনার পারভেজ হোসেনকে ‘ব্যাকআপ’ উইকেটকিপার হিসেবে চিন্তা করা হয়েছিল।

কিন্তু চোট থাকায় পারভেজকে সুযোগ দেওয়া হয়নি। সেই জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন আকবর। তবে মূল উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসানেরই পাকিস্তান সিরিজে উইকেটকিপিং করবেন, আকবর দলে থাকবেন ব্যাকআপ হিসেবে।

মিনহাজুল এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘সোহান (নুরুল হাসান) কিন্তু আমাদের এক নম্বর উইকেটকিপার। এখানে চোটের ব্যাপার আছে, সোহান ছাড়া দলে আর কোনো উইকেটকিপার নেই। সেই হিসেবে আকবরকে রাখা হয়েছে। কিপিংয়ের কথা চিন্তা করে ওকে ব্যাকআপ হিসেবে নিয়েছি।’

সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল থেকে পাকিস্তান সিরিজের দলে সব মিলিয়ে এসেছে ছয়টি পরিবর্তন। লিটন দাস, সৌম্য সরকার, রুবেল হোসেন ও মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে চোটের কারণে ছিটকে যাওয়া সাকিব আল হাসান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পাওয়া আকবর আলীর সঙ্গে দলে ডাকা হয়েছে সাইফ হাসান, ইয়াসির আলী ও শহীদুল ইসলামকে।

default-image

বিশ্বকাপের ব্যর্থতার পর টি-টোয়েন্টি দলে নতুন হাওয়া লেগেছে সেটি স্পষ্ট। মিনহাজুল এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘আমরা হতাশার একটা বিশ্বকাপ শেষ করেছি। এখন নতুন করে পথচলা। বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে দল বেশ ভালো খেলেছে। মুজিব বর্ষে সাদা বলে প্রায় সব সিরিজে জিতেছি। এবার পাকিস্তানের সঙ্গে খেলছি। পাকিস্তান যথেষ্ট ভালো দল। টি-টোয়েন্টিতেও অনেক শক্তিশালী। আশা করছি, ঘরের মাঠে ছেলেরা ভালো করবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন