default-image
>

চার দিনের টেস্টের আইসিসির ধারণাটা ‘বাজে’ আখ্যা দিয়ে শোয়েব আখতার বলছেন সৌরভের বিসিসিআই এর বাস্তবায়ন হতে দেবে না।

পাকিস্তান ‘হ্যাঁ’ বললে ভারত বলবে ‘না’। সীমান্তে উত্তেজনা ও রাজনৈতিক টানাপোড়েনের কারণে দুই দেশের সম্পর্কটা এমনই। তবে আইসিসির চার দিনের টেস্টের প্রস্তাবনা—একই বিন্দুতে মিলিয়ে দিতে পারে ভারত ও পাকিস্তানকে। অন্তত শোয়েব আখতারের বিশ্বাস এমনই!

২০২৩ থেকে ২০৩১ সাল পর্যন্ত আইসিসির ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনায় (এফটিপি) পাঁচ দিনের টেস্ট থেকে এক দিন কমিয়ে আনার যে পরিকল্পনা করছে আইসিসি, তার বিরোধিতায় মুখ খুলতে শুরু করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। শচীন টেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি, গৌতম গম্ভীর এরই মধ্যে তাঁদের আপত্তির কথা জানিয়ে দিয়েছেন। পাকিস্তান থেকে রমিজ রাজাও আইসিসির প্রস্তাবনার বিরোধিতা করেছেন। এবার মুখ খুললেন শোয়েব আখতার। আইসিসির প্রস্তাবনাকে ‘বাজে’ উল্লেখ করে প্রথম এক শ মাইলের গণ্ডি পেরোনো সাবেক এই পেসার জানাচ্ছেন, আইসিসি এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারবে না। বিসিসিআইর প্রধান হিসেবে তা বাস্তবায়ন হতে দেবেন না সৌরভ।

চার দিনের টেস্ট চালু করতে গেলে বিসিসিআইর মতো প্রভাবশালী ক্রিকেট বোর্ডের অবশ্যই অনুমোদন লাগবে। আর বিসিসিআই সভাপতি হিসেবে সৌরভ তা হতে দেবেন বলে মনে করেন না শোয়েব, ‘চার দিনের টেস্টের ধারণাটা একটা বাজে ধারণা। এতে কারও আগ্রহ থাকা উচিত নয়। বিসিসিআইর প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলী বুদ্ধিমান লোক। তিনি এটা হতে দেবেন না। ’

কেন চার দিনের টেস্ট চালু করতে যাচ্ছে আইসিসি? বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা এক হিসাব কষে দেখাচ্ছে, পাঁচ দিনের টেস্ট থেকে এক দিন করে কমে গেলে ২০১৩ থেকে ২০৩১—এই আট বছরে অতিরিক্ত ৩৩৫ দিন বাড়তি পাওয়া যাবে। আর বাড়তি পাওয়া এই দিনগুলোয় সীমিত ওভারের লাভজনক টুর্নামেন্ট আয়োজনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। টেস্ট ক্রিকেটকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলার যুক্তিও দেখাচ্ছে আইসিসি। কিন্তু শোয়েব মনে করেন, আইসিসি পরিকল্পনা উল্টো টেস্ট ক্রিকেটের গলা চিপে ধরবে। তবে সৌরভ যত দিন বিসিসিআইর সভাপতি আছেন, আইসিসি এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারবে না। শোয়েবের ভাষায়, ‘টেস্ট ক্রিকেটকে তিনি (সৌরভ) মরতে দেবেন না। বিসিসিআইর অনুমোদন ছাড়া চার দিনের টেস্ট চালু করতে পারবে না আইসিসি।’

এরপরই ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের অভিন্ন অবস্থানের পটভূমির ছবি এঁকেছেন শোয়েব, ‘আমি চাই পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ভারত থেকে আরও বেশি মানুষ এই নিয়ে সোচ্চার হোক। কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা তাঁদের মতামত জানান।’ পাঁচ দিনের ম্যাচকেই যাঁরা টেস্টের আদর্শ সংস্করণ ভাবছেন, তাঁদের চাওয়াও হয়তো শোয়েবের মতো, আইসিসির চার দিনের টেস্টের পরিকল্পনার বিপক্ষে এগিয়ে আসুক বিভিন্ন দেশের সাবেকেরা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন