বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এখন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ পাচ্ছে না ইংলিশ তারকা জনি বেয়ারস্টোকে। এর পরও ওয়ার্নারকে বাদ দিয়ে দেওয়া হলো কেন, এ প্রশ্ন উঠছে। দুই মৌসুম ধরে হায়দরাবাদের অধিনায়কত্ব করা ওয়ার্নারকে কি আরও সুযোগ দেওয়া যেত না?

বাদ পড়ে ওয়ার্নারও জানিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি আর দলের সঙ্গে মাঠমুখী হবেন না। এর পরও তিনি মাঠে এসেছেন। ভূমিকা নিয়েছিলেন চিয়ারলিডারের। তাঁর কাছ থেকে অধিনায়কত্ব নিয়ে সেটি দেওয়া হয় নিউজিল্যান্ডের তারকা কেইন উইলিয়ামসনকে। এর পরও ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বের হতে পারেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

default-image

আপাতদৃষ্টিতে ওয়ার্নারের বাদ পড়ার কারণটা তাঁর ফর্মের জন্য মনে হলেও ভারতের সাবেক তারকা ও ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জরেকার সেটি মানতে রাজি নন। তিনি মনে করেন, নিখাদ ক্রিকেটীয় কারণে অস্ট্রেলীয় তারকা হায়দরাবাদ দল থেকে বাদ পড়েননি। এর পেছনে নিশ্চয়ই অন্য কোনো কারণ আছে। ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে মাঞ্জরেকার বলেছেন, ‘ওয়ার্নার হায়দরাবাদ দল থেকে মোটেও ক্রিকেটীয় কারণে বাদ পড়েননি। হ্যাঁ, তাঁর ফর্ম ভালো যাচ্ছিল না, এটা ঠিক। কিন্তু ফর্ম তো খারাপ হতেই পারে। সে নিশ্চয়ই দীর্ঘদিন ধরে ফর্মহীন নয়। আইপিএলে বেশ কয়েক বছর ধরেই খেলছেন ওয়ার্নার। তিনি আইপিএলের অন্যতম ধারাবাহিক পারফরমার।’

ওয়ার্নারের বাদ পড়ার ‘অক্রিকেটীয়’ কারণটা অবশ্য মাঞ্জরেকার কেবল অনুমানই করছেন, ‘ওয়ার্নারকে হঠাৎ ছেঁটে ফেলার পেছনে কী কারণ, সেটি আমি নির্দিষ্ট করে বলতে পারব না। তবে অনুমান করতে পারি, এতে অন্য কোনো ঘটনা আছে। হায়দরাবাদ দল ব্যাপারটি চেপে রেখেছে। অন্যরাও চুপচাপ। সবকিছু বিচার-বিবেচনা করলে মনে হবে, দলে নিশ্চয়ই বড় কোনো ঘটনা ঘটেছে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন