সাকিব চট্টগ্রাম টেস্টেও অনেকটা দর্শক হয়েই থেকেছেন।
সাকিব চট্টগ্রাম টেস্টেও অনেকটা দর্শক হয়েই থেকেছেন। ছবি: প্রথম আলো

চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন বোলিং করতে গিয়ে কুঁচকিতে চোট পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। এরপর থেকে আর মাঠেই নামেননি তিনি। সাকিববিহীন বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওই টেস্টে জয়ের আশা জাগিয়ে হেরে গেছে নাটকীয়ভাবে। আগেই শঙ্কা জেগেছিল, কুঁচকির এই চোটে হয়তো ঢাকা টেস্টে নাও খেলা হতে পারে সাকিবের। সেই শঙ্কাই সত্যি হলো। আজ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সাকিবকে ছাড়াই ঢাকা টেস্টে খেলবে বাংলাদেশ।

চোটের পর থেকেই বিসিবির মেডিকেল দলের তত্ত্বাবধানে আছেন সাকিব।

বিজ্ঞাপন

শুরুতে তাঁকে ৪৮ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছিলেন দলের ফিজিও-চিকিৎসকেরা। সেটা শেষ হওয়ার পর আবার তাঁর শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পরই নিশ্চিত হয় সিরিজ থেকে ছিটকে যাওয়ার বিষয়টা।

default-image

আপাতত জৈব সুরক্ষা বলয় ছেড়ে যাবেন সাকিব। তবে বিসিবির মেডিকেল দলের পর্যবেক্ষণেই থাকবে। আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। সিরিজ না হারতে চাইলে এই টেস্ট জিততেই হবে বাংলাদেশকে।
দ্বিতীয় টেস্টে সাকিবের জায়গায় দলে আর কাউকে নেওয়া হবে কি না, বা কাকে ডাকা হবে, সে বিষয়ে এখনো কিছু জানায়নি বিসিবি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন