প্রথম ম্যাচে রনি তালুকদার, রকিবুল হাসান ও তাইবুর পারভেজ। দ্বিতীয় ম্যাচে রনি ও আবদুল মজিদ। এবার রনি-মজিদের সঙ্গে যোগ হলেন শুভাগত হোম চৌধুরী। তিন ম্যাচেই আট সেঞ্চুরি, ঢাকা বিভাগ প্রতিপক্ষকে ভাসাচ্ছে রানের বন্যায়। বরিশালের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেটে ৬৫১ রানে ইনিংস ঘোষণার পর ঢাকা মহানগরের বিপক্ষে ৫২৫। এবার বিকেএসপিতে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের ইনিংস ঘোষণা ৫ উইকেটে ৬১৬ রান তুলে। আগের দুই ম্যাচ ইনিংসে জেতা ঢাকার সামনে এবারও ইনিংস ব্যবধানে জয়ের হাতছানি। আজ শেষ দিনে চট্টগ্রামের শেষ ৪ উইকেট তুলে নিলেই হয়। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেটে ২৪৫ রান তোলা চট্টগ্রামকে ইনিংস হার এড়াতে করতে হবে আরও ২১৬ রান।
৪ উইকেটে ৫১৮ রান নিয়ে দিন শুরু করা ঢাকা বিভাগ আরও ৯৮ যোগ করে ইনিংস ঘোষণা করে। শুভাগত পেয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি। ৪৬১ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা চট্টগ্রাম শূন্যতেই হারিয়ে ফেলে ২ উইকেট। তৃতীয় উইকেটে ইরফান শুক্কুর ও তাসামুল হক যোগ করেন ১৮৭ রান। ইরফান করেছেন ৭৪ রান ও তাসামুল ১১৪। চট্টগ্রাম এই দুই ব্যাটসম্যানকে হারিয়েছে ২ ওভারের মধ্যে ১ রান তুলতেই।
বিকেএসপির ২ নম্বর মাঠে ফলোঅনে পড়েছে সিলেট। প্রথম ইনিংসে ৩২৪ রান করা সিলেট দ্বিতীয় ইনিংসে কোনো উইকেট না হারিয়ে তুলেছে ৪২ রান। রাজশাহীর প্রথম ইনিংসের চেয়ে এখনো ১১৬ রানে পিছিয়ে দলটি। সিলেটের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছেন রাজশাহীর বাঁহাতি স্পিনার সানজামুল ইসলাম।
ফতুল্লায় ক্যারিয়ার-সেরা বোলিং করেছেন ইলিয়াস সানি। জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই বাঁহাতি স্পিনার ৭৩ রান দিয়ে তুলে নিয়েছেন বরিশালের ৭ উইকেট। সানি এর আগে ২০০৮ সালে ঢাকা বিভাগের হয়ে ৭৯ রানে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন সিলেটের। বিনা উইকেটে ১৪১ রানে শুরুর দিনে বরিশাল প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছে ২৬১ রানে। ১৬১ রানে হারিয়েছিল তারা প্রথম উইকেট।
মিরপুরে খুলনার বিপক্ষে ৩১৫ রানে এগিয়ে আছে রংপুর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
খুলনা-রংপুর, মিরপুর
রংপুর: ৩১০ ও ৯০ ওভারে ২১৮/৮ (তানভীর ৮৩, ধীমান ৬১, আরিফুল ২২; মোস্তাফিজ ৪/৩৩, জিয়া ১/২৮, মুরাদ ১/৫২, রাজ্জাক ১/৬৫)।

খুলনা ১ম ইনিংস: ২১৩ ।
ঢাকা মহানগর-বরিশাল, ফতুল্লা
ঢাকা মহানগর: ৪০০ ও ৪৫ ওভারে ১৯৩/৪ (সাদমান ৬৯*, আসিফ ৫৩, মেহরাব ৩০*, মারুফ ২৪; নুরুজ্জামান ১/১১, আল আমিন ১/৩২, নাসুম ১/৩৩, সোহাগ ১/৪৩)। বরিশাল ১ম ইনিংস: ৮২ ওভারে ২৬১ (শাহরিয়ার ৯১, সাঈফ ৬৩, সোহাগ ৩২, আল আমিন ২৬; ইলিয়াস ৭/৭৩, শহীদ ২/৪৬, রেজা ১/৬৮)।
রাজশাহী-সিলেট, বিকেএসপি-২
রাজশাহী ১ম ইনিংস: ৪৮২।

সিলেট ১ম ইনিংস: ১০৯.২ ওভারে ৩২৪ (অলক ৮২, রোমান ৭৮, সাদিকুর ৫৬, রাহাতুল ২৮, এনামুল ২০; সানজামুল ৫/৮৪, ফরহাদ হোসেন ২/৪৫, সাকলাইন ২/১১৪, মুক্তার ১/৬৩) ও ২য় ইনিংস: ১৩ ওভারে ৪২/০ (ইমতিয়াজ ২৫*, সায়েম ১৫*)।
ঢাকা বিভাগ-চট্টগ্রাম, বিকেএসপি-৩
চট্টগ্রাম: ১৫৫ ও ৮১ ওভারে ২৪৫/৬ (তাসামুল ১১৪, ইরফান ৭৪, সাইফউদ্দিন ২৩*, নাজিমউদ্দিন ২২*; মোশাররফ ৩/৬৮, সাব্বির ১/২৩, তাইবুর ১/২৯)।

ঢাকা বিভাগ ১ম ইনিংস: ১৪০.৩ ওভারে ৬১৬/৫ ডি. (রনি ২০১, শুভাগত ১১৯, মজিদ ১১৩, রকিবুল ৮৯, তাইবুর ৫০*; নাঈম জু. ২/৬৮, মেহেদী ১/১৫৫, ইউনুস ১/১২২)।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন