default-image

টেস্ট, ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি—সংস্করণ যা-ই হোক, বর্তমান সময়ের ক্রিকেটারদের নিয়ে একাদশ গড়তে গেলে তাতে সম্ভবত বিরাট কোহলির নামটা বেশিরভাগ ক্রিকেটপ্রেমীই রাখবেন। তবে ব্র্যাড হগ এই শ্রেণিতে পড়েন না। সাবেক অস্ট্রেলিয়ান বাঁহাতি স্পিনার তাঁর চোখে সময়ের সেরা টেস্ট একাদশ বানিয়েছেন। তাতে চারজন ভারতীয়কে রাখলেও কোহলিকে রাখেননি!

 রোহিত শর্মা আছেন তাঁর একাদশে, এমনকি মায়াঙ্ক আগরওয়াল-অজিঙ্কা রাহানেও আছেন হগের একাদশে। পাকিস্তানের বাবর আজমও হগের একাদশে জায়গা পাচ্ছেন পাঁচ নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে। তবে কোহলিকে না রাখার ব্যাখ্যা দিয়েছেন হগ। কারণটা ভারত অধিনায়কের সাম্প্রতিক ফর্ম।

 বাংলাদেশের সঙ্গে কলকাতা টেস্টে ১৩৬, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পুনেতে অপরাজিত ২৫৪, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিংস্টনে ৭৬ আর অ্যান্টিগায় ৫১ – টেস্টে সর্বশেষ ১৫ ইনিংসে কোহলির রান বলতে এ-ই। এর বাইরে সর্বোচ্চ ৩১। ২০ পেরিয়েছেন আর একবার। গত ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডে তো দুঃস্বপ্নের মতো সিরিজ কেটেছে কোহলির। দুই টেস্টে তাঁর রান – ৩, ১৪, ২, ১৯।

 নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ঘোষিত একাদশে কোহলিকে না রাখার ব্যাখ্যায় হগও তাই বললেন, 'সবাই জিজ্ঞেস করবে কোহলি কেন নেই দলে? কিন্তু আপনি যদি টেস্টে ওর সর্বশেষ ১৫ ইনিংস দেখেন, মাত্র চারবার ও ৩১-এর বেশি রান করেছে। সে কারণে কোহলি আমার এই বছরের টেস্ট দলে জায়গা পাবে না।'

 ওপেনিংয়ে দুই ভারতীয় রোহিত ও আগরওয়ালকে রাখার ব্যাখ্যায় বললেন, 'মায়াঙ্ক যেভাবে ফ্রন্ট ফুটে কাভার ড্রাইভ ও পুল শট খেলে, সেটা আমার অনেক পছন্দ। ও অনেক ধারাবাহিক ছিল। রোহিত কিছুটা ভাগ্যের জোরেই আছে একাদশে। ও শুধু ভারতের মাটিতেই টেস্ট খেলেছে। কিন্তু ও যেভাবে নির্ভার থেকে বলকে অফসাইডে খেলে, লেগ সাইডেও রান করে সেটা ভালো লাগে আমার।'

 তিন ও চার নম্বরের মতো গুরুত্বপূর্ণ দুই জায়গায় দুই স্বদেশীকেই বেছে নিয়েছেন হগ—মারনাস লাবুশেন ও স্টিভ স্মিথ। দুজনই আছেন চোখধাঁধানো ফর্মে। পাঁচে হগ বেছে নিয়েছেন পাকিস্তানের বাবর আজমকে। কেন বাবর, সে ব্যাখ্যা, 'ও চারটা সেঞ্চুরি করেছে। কিন্তু যে কারণে আমি বাবর আজমকে একাদশে রেখেছি, সেটা হলো পাকিস্তানের অস্ট্রেলিয়া সফরের সময় ও ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছে। বাইরের খেলোয়াড়দের জন্য ওই উইকেটে ব্যাট করা কঠিন, কিন্তু ও দেখিয়েছে সেটা করতে পারে। ও সময়ের সেরাদের একজন।'

 হগের দলে এরপর আছেন অজিঙ্কা রাহানে। সাতে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক। অধিনায়কও ডি কক, যেটির কারণ নিষেধাজ্ঞার জন্য ২০১৮ সালের মার্চের পর আর স্টিভ স্মিথের অধিনায়কত্ব না করা। এরপর তিন পেসার হিসেবে থাকছেন অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স, ভারতের মোহাম্মদ শামি ও নিউজিল্যান্ডের নিল ওয়াগনার। একমাত্র স্পিনার অস্ট্রেলিয়ার নাথান লায়ন।

 যে ছয়জন ক্রিকেটারকে অল্পের জন্য একাদশে রাখতে পারেননি তাঁদের নামও বলেছেন হগ। তিনজন ব্যাটসম্যান নিউজিল্যান্ডের টম ল্যাথাম, ইংল্যান্ডের রোরি বার্নস ও অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার। দুই পেসার ভারতের ইশান্ত শর্মা ও ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রড। আর ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার বেন স্টোকসকে রাখতে পারেননি বাজে ব্যাটিং গড়ের কারণে।

 হগের টেস্ট একাদশ: 
 মায়াঙ্ক আগরওয়াল, রোহিত শর্মা, মারনাস লাবুশেন, স্টিভ স্মিথ, বাবর আজম, অজিঙ্কা রাহানে, কুইন্টন ডি কক (অধিনায়ক/ উইকেটকিপার), প্যাট কামিন্স, মোহাম্মদ শামি, নিল ওয়াগনার, নাথান লায়ন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0