তামান্না ভাটিয়া ও বিরাট কোহলি
তামান্না ভাটিয়া ও বিরাট কোহলিছবি: টুইটার

তারকা হওয়ার এই এক যন্ত্রণা! কিছু করার আগে, বলার আগে শতবার ভাবতে হয় কোনো বিতর্ক তৈরি হবে কি না।

সমালোচনা-বিতর্ক তো তারকাদের নিত্যসঙ্গীই, একটু এদিক-ওদিক হয়ে গেলে মামলা–টামলারও ঘানি টানতে হতে পারে। দেখা যায়, কোনো কিছু না ভেবে হালকা মেজাজে বলে ফেলা একটা কথার জন্য আইন-আদালতে দৌড়াদৌড়ি শুরু হয়ে গেল।

বিরাট কোহলির এখন তেমনই অভিজ্ঞতা হচ্ছে। ভারত অধিনায়ক আর তাঁর বলিউড অভিনেত্রী স্ত্রী আনুশকা শর্মার ঘর আলো করে কয়েক দিন আগে প্রথম সন্তান এসেছে।

সময়টা কোথায় ছোট্ট মেয়ের সঙ্গে আনন্দে, নির্ভারচিত্তে কাটাবেন, তা নয়, কোহলিকে আইন-আদালতের ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে। যে ঝামেলায় তাঁর সঙ্গে আবার জড়িয়ে গেছে বলিউড ও তামিল অভিনেত্রী তামান্না ভাটিয়ার নামও।

বিজ্ঞাপন

ঝামেলাটা তাস খেলার প্রচার করায়! রামি নামের তাসের একটি খেলার অনলাইন ভার্সনের প্রচার করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে, সেটির জন্য কোহলি-তামান্নার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে।

তাঁদের আইনি নোটিশও দিয়েছেন আদালত। ইনস্টাগ্রামে এই মুহূর্তে ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অনুসারী কোহলির। তাঁকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন কেরালা হাইকোর্ট। কোহলি আর তামান্না ভাটিয়া ছাড়া মালায়লাম চলচ্চিত্রের অভিনেতা আজু ভার্গিসকেও নোটিশ পাঠিয়েছেন আদালত। এই তিনজনই রামি খেলাটির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর।

কেরালার আইন অনুযায়ী কোহলিরা যে আইনবিরোধী কাজই করেছেন! ১৯৬০ সালেই কেরালা সরকার আইন পাস করে যেখানে রামি খেলাকে অপরাধ হিসেবে দেখা হয়। পোকার, ইন্টারন্যাশনাল ব্রিজের মতো রামি খেলাকেও জুয়ার উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যায়।

কেরালার সংবাদমাধ্যম মাথুরুভূমির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত খবর জানাচ্ছে, থিসুরের অধিবাসী পলি ভার্গিস আদালতে এই তিন তারকার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগকারীর কথা, এই তিন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডরই মানুষকে অনলাইন রামি খেলতে প্ররোচিত করছেন।

বিতর্ক এক পাশে রাখলে মাঠে কোহলিকে দেখার জন্য তাঁর ভক্তদের আর অপেক্ষা করতে হচ্ছে আর ৯ দিন। আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি চেন্নাইয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে মাঠে নামবে ভারত।

এর আগে অস্ট্রেলিয়া সফরের প্রথম টেস্টের পর দলকে ছেড়ে ভারতে ফিরে আসেন কোহলি। সন্তান জন্মের সময়ে স্ত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকতে প্রথম টেস্টের পর তিনি ফিরে আসবেন, সেটা পূর্বনির্ধারিতই ছিল।

কোহলিকে নিয়েই অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে অবশ্য লজ্জার হার জুটেছিল ভারতের কপালে। সেই টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৬ রানে অলআউট হয় ভারত—যা টেস্টে এক ইনিংসে ভারতের সর্বনিম্ন রান।

কিন্তু প্রথম টেস্টে হারের পর কোহলিকে ছাড়াই ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। অজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বে দ্বিতীয় টেস্টে জেতে, তৃতীয় টেস্টে করে ড্র, আর সিরিজজুড়ে একের পর এক চোটে তারকা খেলোয়াড়দের অনেককে হারালেও ব্রিসবেনে চতুর্থ টেস্টে রোমাঞ্চ ছড়ানো এক জয়ে সিরিজই জিতে নেয় ভারত!

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন