১০ নভেম্বর, ২০২০। টেস্ট আঙিনায় বাংলাদেশের প্রথম দিন। এরপর আস্তে আস্তে কেটে গেছে ২০ বছর। দলের ব্যাটিংয়ের ভার এখন হাবিবুল বাশার, আমিনুল ইসলামদের হাত ধরে তামিম-সাকিব-মুশফিকদের কাছে। ব্যাটিংয়ের এই পালাবদল স্পষ্ট হয়ে উঠেছে রেকর্ড বইয়েও।

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান কার? চলে আসবে মুশফিকুর রহিমের নাম। একসময়ে উইকেট রক্ষণ ও ব্যাটিং সমানতালে চালিয়ে যাওয়া এই তারকা ক্রিকেটার টেস্টের জার্সি গায়ে দিচ্ছেন ১৫ বছর ধরে। অভিজ্ঞতার ছাপটা ফুটে উঠেছে তাঁর ব্যাটিং রেকর্ডেও।

বিজ্ঞাপন
default-image

দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৭০ ম্যাচ টেস্ট খেলা মুশফিক এ পর্যন্ত ৪ হাজার ৪১৩ রান করেছেন। প্রত্যাশিতভাবেই এ সংখ্যা আরও বাড়বে সামনের দিনগুলোয়, বাংলাদেশের কান্ডারি যিনি, ক্যারিয়ারের শেষে তাঁর রান যে অনন্য উচ্চতায় উঠবে, সেটা তো বলাই যায়। সাত সেঞ্চুরি ও ২১ ফিফটি করা মুশফিকের গড় ৩৬.৭৭-তে, এটাও নিশ্চয়ই ৪০-এর কোটায় নিয়ে যেতে চাইবেন তিনি।

তবে মুশফিকের সঙ্গে জোর লড়াই চলছে তামিম ইকবালের। রীতিমতো মুশফিকের কাঁধেই নিশ্বাস ফেলছেন তিনি। ৪ হাজার ৪০৫ রান করা তামিমের অভিষেক মুশফিকের প্রায় তিন বছর পরে। খেলেছেনও ১০টি টেস্ট আর ১৫ ইনিংস কম। সে হিসাবে তামিম কিছুটা এগিয়েও থাকবেন।

default-image

২০০৫ সালের মে মাসে ইংল্যান্ডের লর্ডসে টেস্ট অভিষেক হয় মুশফিকের। তামিমের টেস্ট অভিষেক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, ২০০৮ সালের জানুয়ারিতে। ফিফটি কিংবা সেঞ্চুরি, দুদিকেই মুশফিকের চেয়ে আবার তামিম এগিয়ে। তামিমের ফিফটি ২৭টি, সেঞ্চুরি ৮টি। যার প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে তাঁর গড়েও। মুশফিকের চেয়ে গড়ে প্রায় ২ রান বেশি তাঁর, ৩৮.৬৪। জমজমাট এক লড়াইই চলছে এ দুজনের মধ্যে।

শেষমেশ যা–ই হোক না কেন, এই রানের লড়াইয়ে লাভটা হচ্ছে কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেটেরই।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0