তাসকিনকে নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তই হয়নি

বিজ্ঞাপন
default-image

সকাল থেকেই একটা খবর ছড়িয়ে পড়েছে, বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলের চমক আবু জায়েদকে বাদ দিয়ে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে তাসকিন আহমেদকে। আসলেই কী তাই? বিসিবির শীর্ষ কর্তাদের বেশির ভাগই উড়িয়ে দিলেন প্রসঙ্গটা। শেষ পর্যন্ত এ নিয়ে কথা বলতে হলো বিসিবি সভাপতিকে। আজ শনিবার বিকেলে গুলশানে নিজ বাসভবনে নাজমুল হাসান সাংবাদিকদের জানালেন, তাসকিনকে নেওয়া কিংবা জায়েদকে বাদ দেওয়া—কোনো সিদ্ধান্তই হয়নি।

তবে বিসিবি সভাপতি জানালেন, স্কোয়াডের ১৫ নম্বর জায়গাটা নিয়ে তাঁরা এখনো ভাবছেন। ২২ মে পর্যন্ত অবশ্য খেলোয়াড় বদলের সময় আছে। নাজমুল বললেন, সুযোগটা কাজে লাগাবেন কি না, সেটি নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেননি, ‘এটা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, এমন কোনো সিদ্ধান্ত আমরা নিইনি। যে চারজন পেসার আছে—মাশরাফি, মোস্তাফিজ, রুবেল ও আবু জায়েদ রাহি। এদের সবার উচ্চতা, পেস প্রায় কাছাকাছি। রুবেল হয়তো একটু জোরে বোলিং করে। সবার বোলিংয়ের ধরন প্রায় একই। এখানে যদি বৈচিত্র্য চান, ওরা মনে করছে তাসকিন হতে পারে একটা বৈচিত্র্য। ওর উচ্চতা, গতি, বাউন্সার ও ইয়র্কার দেওয়ার সামর্থ্যে টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করছে, তাসকিন ভালো একটা বিকল্প হতে পারে।’

তাহলে তাসকিনকে কেন বিশ্বকাপ দলে নেওয়া হয়নি? উত্তরে নাজমুল হাসান বললেন, ‘ও তখন পুরো ফিট ছিল না। আনফিট খেলোয়াড়ের নাম কীভাবে দেব? আপনারা বলতে পারেন, এখন কি পুরোপুরি ফিট? আমি মনে করি এখনো সে পুরোপুরি ফিট না, পূর্ণ ছন্দে ফিরতে পারেনি। লাইন-লেন্থ এখনো ঠিক হয়নি। এসব ঠিক না হওয়ার আগে রাহিকে (আবু জায়েদ) বাদ দেব, আরেকজন অন্তর্ভুক্ত করব...এটা যদি ওরা (টিম ম্যানেজমেন্ট) করতে চায়, আমার মনে হয় সেটা ঠিক হবে না। এমন কোনো প্রস্তাবও আসেনি আমার কাছে। তবে সে (তাসকিন) যদি ভালো করে, ২২ তারিখ পর্যন্ত (খেলোয়াড় বদল) একটা সুযোগ তো থাকছেই।’

আয়ারল্যান্ড সফরের দুদিন আগে আকস্মিকভাবে ত্রিদেশীয় সিরিজের দলে নেওয়া হয় তাসকিনকে। বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেতে তাঁকে কিছু শর্তই বেঁধে দিলেন বিসিবি সভাপতি, ‘শুধু ফিট থাকলেই চলবে না, যদি ভালো বোলিং করতে পারে তবে...এখনো তেমন কিছু দেখেনি। দুর্দান্ত কিছুই সে করে দেখাইনি। (কে ভালো) তুলনা করার সুযোগই তো পাইনি। রাহি একটা ম্যাচও খেলেনি। এটা নিয়ে কিছু বলার সময় এখনো আসেনি। কেউ যদি চোটে পড়ে তবে বিকল্প হিসেবে যেতে পারে। আর যদি নিশ্চিত হতে পারি, ও (তাসকিন) দুর্দান্ত বোলিং করছে, অন্যদের তুলনায় ভালো, তখন হয়তো চিন্তা করতে পারি। এখনো অপেক্ষায় থাকতে হবে। পরের ম্যাচটা যদি আমরা জিতি, শেষ ম্যাচটা হয়তো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যাবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন