বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পর ওয়াকার পাকিস্তানি টিভি চ্যানেলে বলেছিলেন, ‘রিজওয়ান যা করেছে, তা আমার পছন্দ হয়েছে। সে হিন্দুদের সামনে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়েছে।’

এমন মন্তব্যের পর সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটাররা ওয়াকারের ওপর চটেছেন। সাবেক ভারতীয় পেসার ভেঙ্কটেশ প্রসাদ যেমন টুইট করেন, ‘জিহাদি মানসিকতা না থাকলে এমন কথা বলা সম্ভব না।’

জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলেও ওয়াকারের এমন মন্তব্যে অবাক। এত বড় মাপের ক্রিকেটারের কাছ থেকে এমন মন্তব্য প্রত্যাশা করেননি তিনি, ‘ওয়াকার ইউনিসের মতো ব্যক্তিত্বের কাছে রিজওয়ানের হিন্দুদের সামনে নামাজ পড়া আনন্দের খবর, এর চেয়ে হতাশাজনক মন্তব্য আমি এর আগে শুনিনি। আমরা এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা না করে খেলাটাকে বড় করে দেখতে চাই। এর মাঝে এমন মন্তব্য শোনা খুবই খারাপ। আমি আশা করি, এমন মন্তব্যের খারাপ দিকটা পাকিস্তানি খেলাপাগল মানুষেরা দেখতে পাচ্ছেন এবং আমার হতাশা বুঝতে পারছেন।’

আজ অবশ্য ওয়াকার নিজের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়েছেন। আজ টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আমি হিন্দুদের অনুভূতিতে আঘাত করতে চাইনি। পাকিস্তানের জয়ের পর আমি খুবই উচ্ছ্বসিত ছিলাম এবং এই উত্তাপে কথাগুলো বেরিয়ে আসে। আমি এর জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। খেলা মানুষকে ধর্ম, বর্ণভেদে এক ছাতার নিচে নিয়ে আসে।’

পাকিস্তানি টিভি চ্যানেলেও তিনি ক্ষমা চেয়েছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘ধর্ম নিয়ে আমি কখনোই মন্তব্য করি না। আমি সব ধর্মই সম্মান করি। আমি মুহূর্তের উত্তেজনায় ধরা পড়েছিলাম। আমি পাকিস্তানে বসবাস করা, ভারত কিংবা পৃথিবীর অন্যান্য জায়গায় বাস করা হিন্দুদের আঘাত করতে চাইনি। আমি পাকিস্তানের জয়ে রোমাঞ্চিত ছিলাম। ওই শব্দগুলো মুহূর্তের উত্তেজনায় চলে এসেছে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন