এম এস ধোনি।
এম এস ধোনি।ছবি: টুইটার

গত আইপিএল অনন্য এক স্বাদ দিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসকে। মাঝে দুই বছর নিষিদ্ধ ছিল দলটি। এ ছাড়া প্রতিবারই শিরোপা–দৌড়ে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকত তারা। মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইকে ছাড়া প্লে-অফের কথা কল্পনাও করা যেত না। সে দলটিই গতবার সবার আগে বিদায় নিশ্চিত করেছে!

এরপরই আলোচনা শুরু হয়েছিল, এমন ব্যর্থতার পর ধোনি কি বিদায় নেবেন? আইপিএলের আগেই জাতীয় দলকে বিদায় বলেছেন বলে গুঞ্জনটা ভারী হচ্ছিল। কিন্তু ধোনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন অন্তত ২০২১ আইপিএল খেলছেন।

এবার চেন্নাইও নিশ্চিত করল, ধোনি যদি নিজ থেকে বিদায় নিতে চান তো ভিন্ন কথা। না হলে এই কিংবদন্তিকে সহজে ছাড়তে রাজি নয় তারা। যত দিন সম্ভব ধোনির সেবা পেতে ইচ্ছুক চেন্নাই সুপার কিংস।

বিজ্ঞাপন
default-image

আগামীকাল শুরু হয়ে যাচ্ছে বহু কাঙ্ক্ষিত আইপিএল। তিনবারের চ্যাম্পিয়নদের আইপিএল অবশ্য শুরু শনিবার। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে নামার আগে দল নিয়ে সংবাদমাধ্যমের আগ্রহ মিটিয়েছেন দলটির প্রধান নির্বাহী কাসি বিশ্বনাথন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের কাছে গত মৌসুমের হতাশা নিয়ে কথা বলেছেন। বলেছেন ধোনিকে ধরে রাখার আগ্রহের কথা।

গত মৌসুমে শুরুটা ভালোই করেছিল চেন্নাই। প্রথম ম্যাচেই হারিয়ে দিয়েছিল চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে। কিন্তু টুর্নামেন্টের শুরুতে হরভজন সিং ও সুরেশ রায়নার মতো খেলোয়াড়দের সরে দাঁড়ানো এবং মাঝে ডোয়াইন ব্রাভোর চোটে পড়া কাল হয়ে ওঠে দলটার জন্য। টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্ব অর্ধেক পেরোনোর পরই নিশ্চিত হয়ে যায় এবার আর ধোনি-জাদুতেও কাজ হবে না।

বিশ্বনাথন গত মৌসুমে কী হয়েছিল, তার একটা ব্যাখ্যা দিলেন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে, ‘যেকোনো টুর্নামেন্টের আগে আমরা একটা পদ্ধতি ঠিক করে নিই। গতবারও করেছিলাম। কিন্তু আমাদের সেরা কিছু খেলোয়াড়কে পাইনি। কেউ আবার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এসব তো নিয়ন্ত্রণের বাইরে।’

default-image

এবার যেন এমন কিছু না হয়, সেটা নিশ্চিত করতে চাইছে চেন্নাই। সে ব্যাপারে ধোনির কাছ থেকে নির্দেশনা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিশ্বনাথন, ‘এবার দল ভালো আছে। প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। ১৫-২০ দিন ধরে অনুশীলন করছে তারা। আমাদের পদ্ধতিতে আস্থা আছে। অধিনায়ক এ ব্যাপারে পরিষ্কার—প্রস্তুতি ঠিকভাবে করতে হবে। সেটা ঠিক থাকলে ফল আসবেই।’

এমন একজন অধিনায়ককে তাই হাতছাড়া করতে রাজি নয় চেন্নাই। চল্লিশে পা রাখতে যাওয়া ধোনিকে এবারও বিদায় বলতে চায় না ফ্র্যাঞ্চাইজি। ঝাড়খণ্ডের এই ক্রিকেটারকে নিজেদের ঘরের মানুষ বানিয়ে ফেলা এই দল যত দিন সম্ভব তাঁকে দলের সঙ্গে দেখতে চায়, ‘আমার মনে হয় না এটা তাঁর শেষ বছর। আমি ব্যক্তিগতভাবে এটাই বিশ্বাস করি। আর এ কারণেই আমরা অন্য কারও কথা ভাবছি না (ধোনির উত্তরসূরি হিসেবে)।’

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন