default-image

চার বছর আগের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের কাছে ১ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচের হারের কষ্টটা এখনও ভুলতে পারেনি বাংলাদেশের দর্শকেরা। গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে সাব্বির রহমানকে (১৫ বলে ২৬ রান) স্টাম্পড করে ম্যাচের মোড়টাই ঘুরিয়ে দেন ভারতের উইকেটকিপার মহেন্দ্র সিং ধোনি।

ইংল্যান্ডে গত বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপেও একইরকম সুযোগ পেয়েছিলেন ধোনি। কিন্তু সেবার আর ধোনিকে আউট করার সুযোগ দেননি সাব্বির। ক্রিকফ্রেন্সিকে দেওয়া ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে এসে ধোনির সঙ্গে এ নিয়ে তাঁর কথোপকথনের কথা বলেছেন সাব্বির। সে সঙ্গে ধোনির কাছ থেকে একটি প্রাপ্তির কথাও জানিয়েছেন।

বেঙ্গালুরুর ওই টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচের কথা স্মরণ করে সাব্বির বলছিলেন, 'বেঙ্গালুরুতে ওই বিশ্বকাপে ও আমাকে স্টাম্পিং করেছিল। এবারের বিশ্বকাপেও সে আমাকে স্টাম্পিংয়ের জন্য ওত পেতে দাঁড়িয়ে ছিল। আমি ব্যাট নিয়ে ক্রিজে ওর সামনেই পড়ে গেলাম। এরপর হেসে বললাম, আজ না।'

ধোনির ব্যাটিংয়ে বরাবরই মুগ্ধ সাব্বির। ধোনির গ্যালারি আছড়ে পড়া ছক্কা মারার ক্ষমতা দেখেও মাঝে মাঝে অবাক হন সাব্বির। ধোনিকে কাছে পেয়ে সেই প্রশ্নের উত্তর জানতে চেয়েছিলেন তিনি, 'আমি তাকে বললাম, আসলেই তোমার ব্যাটে কি আছে? তোমার ব্যাটে কি এমন জিনিস আছে যে যেটা আমাদের ব্যাটে নেই। আমরা মারলে তো মাঠ পার হতে চায় না।' সাব্বিরের প্রশ্নের জবাবে ধোনি রহস্জায ভেদ করেন, ' ও আমাকে বলল যে এটা শুধুই আত্মবিশ্বাসের ফল। আত্মবিশ্বাস ছাড়া অন্য কিছুই নেই আমার ব্যাটে। যদি আমি ঠিক করি যে এই বলে ছক্কা হাকাবো তাহলে ১০০ তে ৯০টাই ছয় হবে।'

ধোনির ছক্কা হাকানো একটা ব্যাটও এরপর উপহার পেয়েছিলেন সাব্বির। কিন্তু ধোনি ওই ব্যাট দেওয়ার পর দিয়েছিলেন অদ্ভূত এক শর্ত, 'আমি তখন ধোনির কাছে একটা ব্যাট চেয়েছিলাম। বলেছিলাম, তোমার একটা ব্যাট আমাকে দাও, তোমাদের বিপক্ষে খেলব। তখন সে বলেছিল, আমাদের বিপক্ষে খেলা যাবে না। তুমি এই ব্যাট দিয়ে অন্য দলের বিপক্ষে খেলো।'

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন