পাঞ্জাবের বিপক্ষে ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন  দীপক চাহার
পাঞ্জাবের বিপক্ষে ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন দীপক চাহার আইপিএল

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামেই প্রথম ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ২২১ রান করে জিতেছিল পাঞ্জাব কিংস। আজ একই মাঠে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ১০৬ রান করে ৪ উইকেটে হারল কে এল রাহুলের দল পাঞ্জাব! নিজেদের ইনিংসের প্রথম ৭ ওভারেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসা পাঞ্জাবের রান টেনেটুনে এক শ পার হয় লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায়। পরে সেই রান ২৬ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখে তাড়া করে এবারের আইপিএলের প্রথম জয় তুলে নেয় এম এস ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।

চেন্নাইয়ের দাপুটে জয়ের কারিগর দলের পেসার দীপক চাহার। তাঁর আইপিএল ক্যারিয়ারের সেরা বোলিংয়ে ধস নামে পাঞ্জাব টপ অর্ডারে, যা দলটির মূল শক্তির জায়গায়। ২৬ রান তুলতেই সাজঘরে ফিরে যান মায়াঙ্ক আগারওয়াল, ক্রিস গেইল, নিকোলাস পুরান, দীপক হুদা, কে এল রাহুল। এর মধ্যে চারটিই চাহারের শিকার। নতুন দলে টানা ৪ ওভারের স্পেলে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন এই ডানহাতি পেসার।

বিজ্ঞাপন

সেখান থেকে পাঞ্জাবের রান এক শ ছাড়া করেন তরুণ ব্যাটসম্যান শাহরুখ খান। শেষের ১০ ওভারে বোলারদের সঙ্গে ছোট ছোট জুটি গড়ার চেষ্টা করেন তিনি। স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে ৩৬ বলে ৪টি চার ও ২টি ছয়ে সাজানো ৪৭ রানের ইনিংসে পাঞ্জাব ৮ উইকেটে ১০৬ রান তোলে।

default-image

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ওপেনার ঋতুরাজ গায়কোয়াডকে ৫ রানে আউট হলেও অভিজ্ঞ ফাফ ডু প্লেসি ও মঈন আলী মিলে চেন্নাইকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৬৪ রান যোগ করেন দুজন। মঈন দ্রুত রান তুলতে থাকেন। এক প্রান্ত ধরে রাখেন ডু প্লেসি। মাঝের ওভারে মঈন, সুরেশ রায়না ও আম্বাতি রাইডু দ্রুত আউট হলেও ডু প্লেসি থাকায় খুব একটা সমস্যা হয়নি। মঈনের ব্যাট থেকে আসে সর্বোচ্চ ৪৬ রান। ডু প্লেসি অপরাজিত থাকেন ৩৬ রানে।

আজকের ম্যাচটি ছিল চেন্নাই অধিনায়ক ধোনির ২০০তম আইপিএল ম্যাচ। মাইলফলকের ম্যাচটিতে অধিনায়ককে জয় উপহার দিতে পেরেছেন তাঁর সতীর্থরা। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ২০০তম ম্যাচ নিয়ে ধোনি বলছিলেন, ‘ভালো লাগছে। এখন সফরটাকে অনেক দীর্ঘ মনে হচ্ছে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন