গ্রুপ পর্ব পেরোলে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনাল খেলবে কোন ভেন্যুতে, কত তারিখে? শেষ আট পেরিয়ে সেমিফাইনালে উঠলেই বা কোথায় কবে খেলবে বাংলাদেশ? প্রশ্নগুলো সহজ, কিন্তু উত্তর?
উত্তরটা সুকুমার রায়ের অমর সৃষ্টি ‘হ-য-ব-র-ল’-এর গেছো দাদাকে খুঁজে পাওয়ার মতোই কঠিন। ওই যে যাকে খুঁজে পেতে ‘আগে হিসেব করে দেখতে হবে, দাদা কোথায় কোথায় নেই; তার পর হিসেব করে দেখতে হবে, দাদা কোথায় কোথায় থাকতে পারে; তার পর দেখতে হবে, দাদা এখন কোথায় আছে। তার পর দেখতে হবে, সেই হিসেব মতো যখন সেখানে গিয়ে পৌঁছবে, তখন দাদা কোথায় থাকবে। তার পর দেখতে হবে...’
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দুই স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে সুবিধা দিতেই ঝামেলাটা পাকিয়েছে। কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড নিজের দেশে খেলবে এই নিশ্চয়তা আগেই দেওয়া, এরপর কিছুদিন আগে র্যাঙ্কিং অনুসারে গ্রুপ ‘এ’র অন্য দুটি শীর্ষ দল শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডকেও কোয়ার্টার ফাইনাল ভেন্যু বলে দিয়েছে আইসিসি। দলগুলো ও তাদের সমর্থকেরা যাতে আগেভাগেই পরিকল্পনা করে সফরসূচি ঠিক করতে পারে সেই মহৎ (!) উদ্দেশ্যে নাকি এই পথে হাঁটা। কিন্তু ‘এ’ গ্রুপের বাকি তিন ও ‘বি’ গ্রুপের সাত দল কোয়ার্টার ফাইনাল উঠলে কোথায় খেলবে, সেটা হিসাব করে বের করতেই গলদঘর্ম হতে হবে।
দুই স্বাগতিক এবং শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডের কোয়ার্টার ফাইনাল ভেন্যু ও তারিখ চূড়ান্ত। শ্রীলঙ্কা ১৮ মার্চ সিডনিতে, ইংল্যান্ড ১৯ মার্চ মেলবোর্নে, অস্ট্রেলিয়া ২০ মার্চ অ্যাডিলেডে ও নিউজিল্যান্ডের ২১ মার্চ ওয়েলিংটনে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার কথা। তবে এদের যেকোনো একটি দল যদি গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয়, তাহলে শেষ আটে ওঠা গ্রুপের অন্য দলটি জায়গা নেবে বাদ পড়া দলের। যেমন যদি শ্রীলঙ্কা বাদ পড়ে ও বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে, তাহলে ১৮ মার্চ সিডনিতে খেলবে বাংলাদেশ।
অন্যদিকে ‘বি’ গ্রুপের দলগুলোর ভেন্যু ঠিক হবে কোয়ার্টার ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ কে তার ওপর নির্ভর করে। যেমন, ভারত যদি গ্রুপ ‘বি’র চ্যাম্পিয়ন হয়, তাহলে খেলবে ‘এ’ গ্রুপের চতুর্থ দলের সঙ্গে। শ্রীলঙ্কা যদি ‘এ’ গ্রুপে চতুর্থ হয়, তাহলে ১৮ মার্চ সিডনিতে হবে ভারত-শ্রীলঙ্কা কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ।
কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে দলগুলোর সম্ভাব্য ভেন্যু ও ম্যাচের তারিখ আরও বিস্তারিত ব্যাখ্যা করা হলো—
কোয়ার্টার ফাইনালে কে কোথায় খেলবে
গ্রুপে অবস্থান যাই হোক না কেন সেরা চারে থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলে শ্রীলঙ্কা ১৮ মার্চ সিডনিতে, ইংল্যান্ড ১৯ মার্চ মেলবোর্নে, অস্ট্রেলিয়া ২০ মার্চ অ্যাডিলেডে ও নিউজিল্যান্ড ২১ মার্চ ওয়েলিংটনে খেলবে।
দুই স্বাগতিক ও শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ডের যেকোনো একটি দল বাদ পড়লে এদের জায়গা নেবে শেষ আটে ওঠা গ্রুপের অন্য দলটি।
যদি দুই স্বাগতিক ও শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ডের মধ্যে যদি একাধিক দল বাদ পড়ে, তবে ‘এ’ গ্রুপ থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা অন্য দলগুলোর মধ্যে গ্রুপে যারা ওপরের দিকে থাকবে, তারা কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম দিকের ম্যাচটি খেলবে।
যেমন, যদি অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড বাদ পড়ে এবং বাংলাদেশ তৃতীয় (এ ৩) ও আফগানিস্তান চতুর্থ (এ ৪) হয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে, তাহলে বাংলাদেশ ১৯ মার্চ গ্রুপ ‘বি’র দ্বিতীয় দলের সঙ্গে মেলবোর্নে খেলবে। আফগানিস্তান ‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দলের বিপক্ষে অ্যাডিলেডে খেলবে ২০ মার্চ। বাদ পড়া দলটি অস্ট্রেলিয়া না হয়ে শ্রীলঙ্কা হলে বাংলাদেশ ১৮ মার্চ সিডনিতে ও আফগানিস্তান ১৯ মার্চ মেলবোর্নে খেলবে।
কোয়ার্টার ফাইনাল
১ম কোয়ার্টার ফাইনাল এ ১: বি ৪
২য় কোয়ার্টার ফাইনাল এ ২: বি ৩
৩য় কোয়ার্টার ফাইনাল এ ৩: বি ২
৪র্থ কোয়ার্টার ফাইনাল এ ৪: বি ১
তারিখ ও ভেন্যু
১৮ মার্চ সিডনি ১৯ মার্চ মেলবোর্ন
২০ মার্চ অ্যাডিলেড ২১ মার্চ ওয়েলিংটন

সেমিফাইনালে কে কোথায় খেলবে
পরস্পরের মুখোমুখি না হলে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড নিজ নিজ দেশেই খেলবে সেমিফাইনাল। তবে মুখোমুখি হয়ে গেলে গ্রুপ পর্বে এই দুই দলের যারা পয়েন্ট টেবিলের ওপরে থাকবে সেই দেশে খেলা হবে।
অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের যদি সেমিফাইনালে মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়, কিন্তু দুই দলই বাদ পড়ে যায় শেষ আট থেকে তবে গ্রুপ পর্বে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে যারা পয়েন্ট টেবিলের ওপরে থাকবে সেই দেশে খেলবে জয়ী দল দুটি।
সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা না সৃষ্টি হলে, কোয়ার্টার ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচে জয়ী দল সিডনিতে ও নিউজিল্যান্ডের ম্যাচে জয়ী দল অকল্যান্ডে সেমিফাইনাল খেলবে।
যদি অস্ট্রেলিয়া কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে কিন্তু নিউজিল্যান্ড বাদ পড়ে যায় গ্রুপ পর্বেই তবে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের জয়ী দল সিডনিতে খেলবে।
যদি নিউজিল্যান্ড কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে কিন্তু অস্ট্রেলিয়া বাদ পড়ে যায় গ্রুপ পর্বেই তবে নিউজিল্যান্ড ম্যাচের জয়ী দল অকল্যান্ডে খেলবে। যদি নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার দুই দলই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয় সে ক্ষেত্রে ২১ মার্চ ওয়েলিংটনের জয়ী দল ২৬ মার্চ সিডনিতে সেমিফাইনাল খেলবে।
সেমিফাইনাল
১ম সেমিফাইনাল এ ১: বি ৪ বনাম এ ৩: বি ২
২য় সেমিফাইনাল এ ২: বি ৩ বনাম এ ৪: বি ১

তারিখ ও ভেন্যু
২৪ মার্চ অকল্যান্ড
২৬ মার্চ সিডনি

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন