বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নামিবিয়ান বোলারদের মধ্যে রুবেন ট্রাম্পেলমেন ৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। দুটি উইকেট নিয়েছেন লফটি ইটনও। এ ছাড়াও স্মিট নিয়েছেন এক উইকেট।

নামিবিয়ার ব্যাটিং নিয়ে আশাবাদী হওয়ার কারণ ছিল। আগের ম্যাচগুলোতে তাদের ব্যাটসম্যানরা প্রতিপক্ষের মাথাব্যথার কারণ হয়েছিলেন। কিন্তু আজ আফগান বোলারদের সামনে কিছুই করতে পারেননি তাঁরা। দাঁড়াতে পারেননি কেউই। ডেভিড ভিসা সংগ্রাম করেছিলেন। কিন্তু তাঁর ইনিংসটি মোটেও যথেষ্ট ছিল না। টি-টোয়েন্টি মেজাজেই খেলতে পারেননি তিনি। মাইকেল ফন লিনগেন ৮ বলে ১১ রান করে ফেরেন, আশা দেখিয়েছিলেন তিনিই। কিন্তু নাভিন-উল-হকের বলে হামিদ হাসানের ক্যাচ হন তিনি। ইয়ান নিকল লফটি লিটন ১৬ বল ১৪, গেরহার্ড এরাসমাস ১৪ বলে ১২ রান করে পরাজয়ের ব্যবধান কমাতেই ভূমিকা রেখেছেন কেবল। ভিসার ইনিংসটি ছিল ৩০ বলে ২৬ রানের—১৬০ রান অনেক দূরেরই মনে হয়েছে নামিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের কাছে। শেষ পর্যন্ত নামিবিয়া ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ৯৮ রান করে থেমেছে।

default-image

হামিদ হাসান আজ আতঙ্ক হয়ে উঠেছিলেন নামিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের জন্য। তিনি ৪ ওভারে মাত্র ৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেটে। নাভিন-উল-হকও নিয়েছেন ৩ উইকেট। ৪ ওভারে তাঁর খরচ ২৬ রান। গুলবাদিন নাইব ১৯ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। রশিদ খান ১ উইকেট পেয়েছেন ১৪ রানের খরচায়।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন