>

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে নিজ থেকেই সরে দাঁড়াবেন

অধিনায়কত্বের অনুশীলন করার ভালো সুযোগ পাচ্ছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার আগে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে প্রাইম ব্যাংকের নেতৃত্ব দেবেন তিনি। প্রিমিয়ার লিগে তামিম এর আগেও নেতৃত্ব দিয়েছেন। গত বছর শ্রীলঙ্কা সফরে নিয়মিত অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার অবর্তমানে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক ছিলেন তামিম।

তবে এবার গল্পটা ব্যতিক্রম। মাশরাফি নেতৃত্ব ছাড়ার পর তামিমই এখন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। তাই প্রিমিয়ার লিগে অধিনায়ক তামিম কেমন করেন, সেদিকে আলাদা নজর থাকবে সবার। তামিমও মুখিয়ে আছেন নতুন দায়িত্বে ভালো করতে। এর সঙ্গে নিজের ব্যাটিংও ঠিক রাখার চ্যালেঞ্জ সামলাতে হবে তামিমকে। এ দুই দায়িত্বের সঙ্গে মানিয়ে নিতে দর্শক, সংবাদকর্মীদের কাছে সময় চেয়ে নিলেন তামিম। দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করতে না পারলে তামিম নিজেই নাকি অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়াবেন।

default-image

আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে প্রাইম ব্যাংকের অনুশীলনের আগে ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেছেন, ‘আমি আপাতত এটাই সবাইকে বলতে পারি, আমার এ ক্ষেত্রে একটু ধৈর্য রাখেন। নিজের ব্যাটিংয়ে এক সিরিজ, দুই সিরিজ বা পাঁচটা ব্যর্থতা—এটা হতেই পারে। আশা করি হবে না। অধৈর্য হব না, আপনারাও হবেন না। দর্শকদেরও একই অনুরোধ করব। চেষ্টা করব যেন, তাড়াতাড়ি ঠিক হয়ে যায়। আর যদি কোনো কারণে কোনো সময়—সেটা ছয় মাস হোক বা এক বছর, আমার যদি মনে হয় আমি দলের সঙ্গে সুবিচার করছি না, তাহলে আমিই হব প্রথমজন, যে সরে দাঁড়ানোর কথা বলবে। আমিই সবার আগে হাত তুলে বলব “সরি”।’

হুট করেই মাশরাফির শূন্যতা পূরণের আশা দেখাননি তামিম। মাশরাফি ছিলেন মাঠে ও মাঠের বাইরে বাংলাদেশের সেরা অধিনায়ক। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে মাঠের বাইরের অধিনায়কত্ব সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। তামিম মাঠের ভেতর আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে চান। কিন্তু সবার আগে মাঠের বাইরের অধিনায়কত্বে হাত পাকাতে চান। খেলোয়াড় ব্যবস্থাপনায় আরও উন্নতি আনতে চান। তামিম মনে করেন, মাঠের বাইরের নিয়ম–শৃঙ্খলায় বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম সেরা দল। তবু এই জায়গায় আরও উন্নতি চান নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0