বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এবারের বিশ্বকাপ ভারত একটি অস্বস্তি নিয়েই শুরু করেছিল। দলে পেস বোলিং অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়ার উপস্থিতি দলটিকে একটু বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে। এমন এক হার্ডহিটারকে বাদ দেওয়া কঠিন। ওদিকে দীর্ঘদিন ধরে চোটের সঙ্গে লড়াই করা পান্ডিয়া বোলিং করছেন না। ফলে বাড়তি এক বোলারের অভাব ভোগাচ্ছে ভারতকে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে কোহলি স্বীকার করেন, এ ব্যাপারটা ভালোভাবেই তাদের ভাবনায় আছে, ‘ষষ্ঠ বোলার থাকাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সেটা আমি হই বা হার্দিক হোক। এক বা দুই ওভার বল করার মতো ফিট হয়ে যাওয়ার কথা তার।’

default-image

যদিও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের আগে নেটে বোলিং অনুশীলন করেছেন পান্ডিয়া। তবে ম্যাচে বোলিং করার মতো অবস্থায় এসেছেন কি না, সেটা এখনো বলতে পারছেন না কেউ। ওদিকে কোহলি বলছেন, ম্যাচের উপস্থিতির ওপর নির্ভর করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন, ‘আপনার ষষ্ঠ বোলারকে কখন ব্যবহার করবেন, সেটা ম্যাচ পরিস্থিতি ঠিক করে দেয়। আমাদের গত ম্যাচে, পাকিস্তান যদি আগে ব্যাট করত, তাহলে আমিও হয়তো এক বা দুই ওভার করতাম। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে আমাদের উইকেট দরকার ছিল, তখন আমাদের মূল বোলারদেরই ব্যবহার করতে হয়েছে। আর এমন তো না যে ছয় বা সাত বোলার নিয়ে নামা দল ম্যাচ হারে না।’

default-image

এর মানেই যে আজ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পান্ডিয়ার দলে থাকা নিশ্চিত, এমন নয়। বরং পান্ডিয়ার বোলিং নিয়ে দুশ্চিন্তার কারণে শেষ মুহূর্তে স্কোয়াডে পরিবর্তন এনে শার্দুল ঠাকুরকে ডেকে পাঠিয়েছে ভারত। কোহলি ইঙ্গিত দিয়েছেন, এই অলরাউন্ডারেরও একাদশে ঢুকে পড়ার সুযোগ আছে, ‘কাঁধের চোটের কথা জিজ্ঞেস করলে বলব, হার্দিক খুব ভালো আছে। শার্দুলও আমাদের পরিকল্পনায় আছে। সে একাদশে ঢোকার দাবি জানিয়ে যাচ্ছে। সে দলকে অনেক কিছু দিতে পারে। সে কী ভূমিকা রাখতে পারে কিংবা কোথায় ওকে ঢোকানো যায়, সেটা নিয়ে নিশ্চিতভাবেই আমি কথা বলব না। কিন্তু সন্দেহ নেই, শার্দুলের মধ্যে সম্ভাবনা আছে এবং দলে অনেক কিছু যোগ করবে সে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন