দু হাত তুলে কী বোঝাতে চাইলেন মিরাজ? আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে
দু হাত তুলে কী বোঝাতে চাইলেন মিরাজ? আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেপ্রথম আলো

দূর থেকে দেখেই বোঝা যায় ওজন কিছুটা বেড়েছে। ফিটনেসের কাজ করে সেটি কমানোর চেষ্টা করছেন। বোলিংয়েও মরচে ধরেছে। আগের মতো বল ঘোরাতে পারছেন না তেমন। মাটি কামড়ে লাফ দিচ্ছে না বল। ছয় মাস ক্রিকেটের বাইরে থাকার প্রভাবটা কেমন হতে পারে, তা যেন মেহেদী হাসান মিরাজকে দেখলেই বোঝা যায়।

আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের অনুশীলনে মিরাজ বল করেছেন নুরুল হাসান ও সৌম্য সরকারকে। মিরাজের শরীরী ভাষাই বলে দিচ্ছিল, নিজের প্রতি সন্তুষ্ট নন তিনি।

অনেক দিন পরে শুরু করায় বলে নিয়ন্ত্রণ থাকছে না, অস্বস্তি লাগছে।
মেহেদী হাসান মিরাজ
বিজ্ঞাপন

অনুশীলন শেষে বিসিবির দেওয়া এক ভিডিও বার্তায়ও জানিয়েছেন সে কথাই, ‘৫-৬ মাস পর মিরপুরে বোলিং শুরু করেছি। তিন-চার দিন হলো এখানে বোলিং করছি, ভালোও লাগছে। কিন্তু অনেক দিন পরে শুরু করায় বলে নিয়ন্ত্রণ থাকছে না, অস্বস্তি লাগছে। তারপরও মনে করি যত টুক সম্ভব নিজেকে তৈরি করে মাঠে খেলার জন্য প্রস্তুত হতে পারব।

মিরপুরে অনুশীলন শুরুর আগে খুলনা শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছেন মিরাজ। তবে খুলনায় দক্ষতা নিয়ে অনুশীলন কম হয়েছে, একক অনুশীলনই করেছেন বেশি। মিরপুরে এসেই যেন নিজের ক্রিকেটীয় ফিটনেসের বর্তমান অবস্থা বুঝতে পেরেছেন, ‘একটু দোটানায় আছি। বোলিং হয়তো ভালো হচ্ছে না, যেমন আমি চাচ্ছি। চেষ্টা করছি যত দ্রুত সম্ভব নিজের জায়গায় বোলিংটা আনতে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

করোনা বিরতির আগে মিরাজ ছিলেন বাংলাদেশ দলের মূল একাদশের ভাবনা থেকে কিছুটা দূরে। টেস্ট দলে তাকে প্রতিযোগিতা করতে হচ্ছে আরেক তরুণ স্পিনার নাঈম হাসানের সঙ্গে। সাদা বলের ক্রিকেটে তাইজুল ইসলাম নিয়মিত হতে শুরু করায় সেখানেও বাড়ছে চাপ। তা ছাড়া মিরাজের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সও খুব একটা ভালো নয়। লকডাউনের পর মাঠে ফিরে তাকে ভাবতে হচ্ছে সবকিছু নিয়েই।

বিজ্ঞাপন
default-image

ভিডিও বার্তায় মিরাজ বলছিলেন, ‘নিজেকে আগের জায়গায় নিতে বোলিংয়ের যে যে কাজগুলো করা দরকার সেগুলো নিয়ে কাজ করছি। আমার কোচের সঙ্গেও কথা বলেছি, তিনিও আমার সঙ্গে অনেক কথা বলেছেন, কীভাবে কি করলে ভালো হয়। অভিষেক থেকে টানা তিন বছর ভালোই গিয়েছে। কিন্তু লকডাউনের আগের সিরিজটা বা এর আগের দুই তিনটা সিরিজ যে রকম চেয়েছি সেরকম হয়নি।’

শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগে মিরাজের এখন একটিই লক্ষ্য— পুরোনো চেহারায় ফেরা। ‘যতটুকু সম্ভব নিজেকে গুছিয়ে নিয়ে ভালো করার চেষ্টা করব। আগে যেরকম বোলিং করতাম সেই ছন্দে ফিরে আসতে চাই’—বলেছেন মিরাজ।

মন্তব্য পড়ুন 0