নতুন পজিশনে মানিয়ে নিতে পারবেন সাকিব?
নতুন পজিশনে মানিয়ে নিতে পারবেন সাকিব? ছবি: বিসিবি

২০১৯ বিশ্বকাপে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৩ নম্বর জায়গাটা যেন নিজের করে নিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। ৮ ইনিংসে ৬০৬ রান করে সাকিব ছিলেন বিশ্বকাপের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। দীর্ঘ বিরতির পর ক্রিকেটে ফিরে অবশ্য সেই ৩ নম্বরে আর ব্যাটিং করা হচ্ছে না সাকিবের। আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে ৩ নম্বরে ব্যাটিং করবেন তরুণ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন।

বাংলাদেশে ৩ নম্বরে ব্যাটিং করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সাকিবের রেকর্ড সবচেয়ে উজ্জ্বল। শুরুতে সময় নিয়ে লম্বা ইনিংস খেলার উদাহরণ তিনে খেলা সাকিবের প্রায় প্রতিটি ইনিংসেই। এখন পর্যন্ত মাত্র ২৩ ওয়ানডেতে তিনে ব্যাটিং করে ২টি সেঞ্চুরি ও ১১টি ফিফটিতে ১ হাজার ১৭৭ রান করে ফেলেছেন সাকিব। গড় (৫৮.৮৫) ও স্ট্রাইকরেট (৮৮.৭৬)—দুটিই ঈর্ষণীয়।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু আগামী বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে পরিকল্পনা বদলাচ্ছে জাতীয় দলের। ২০২৩ বিশ্বকাপের জন্য মিডল অর্ডারে অভিজ্ঞদের রাখতে চান প্রধান কোচ। আজ অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে কোচ বলেছেন, ‘সাকিব ফিরেছে, এটা খুশির খবর। বিশ্বকাপে তিনে নেমে সে দারুণ খেলেছে। এ মুহূর্তে আমি অভিজ্ঞদের চার, পাঁচ ও ছয়ে দেখছি। সেখানে সাকিব, মুশফিক ও রিয়াদকে চিন্তা করছি। এটা আমাদের মিডল অর্ডারে ভালো অভিজ্ঞতা দেবে। উপমহাদেশে খেলা, মিডল অর্ডার খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

সাকিবকে এক ধাপ নিচে নামানোর আরেক কারণ ক্রিকেট থেকে তাঁর দীর্ঘ বিরতি। আইসিসি নিষেধাজ্ঞার কারণে এক বছরের বেশি সময় পর ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব। টপ অর্ডারের চ্যালেঞ্জে সাকিব কেমন করেন, সেটি নিয়ে হয়তো কিছুটা হলেও দোটানায় আছেন প্রধান কোচ, ‘সাকিব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেনি অনেক দিন হলো। ৪ নম্বরে সে দম ফেলার সুযোগ পাবে। আমরা জানি সে বিশ্বমানের ক্রিকেটার। এই ব্যাটিং লাইনআপ পাথরে গড়া নয়। বিশ্বকাপের অনেক দেরি। স্থায়ী ব্যাটিং লাইনআপ গড়ার আগে আমাদের কিছু বিষয় দেখতে হবে।’

default-image

সাকিবের জায়গায় নাজমুলকে সুযোগ দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যায় কোচ বলছিলেন, ‘শান্ত এখন ভালো ছন্দে আছে। শেষ সিরিজে তিনে খেলেছে সে। আমাদের কিছু তরুণ ব্যাটসম্যানকে গড়তে হবে। উপমহাদেশে তরুণ কাউকে গড়ার সুযোগ দিতে হলে সেটা সেরা তিনেই দেওয়া উচিত।’

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন