default-image
>বিশ্বকাপে ভারতের ক্রিকেটারেরা তাঁদের স্ত্রীর সঙ্গে ১৫ দিনের বেশি থাকতে পারবেন না, এমন নিয়ম বেঁধে দিয়েছিল বিসিসিআই। কিন্তু ভারতীয় দলের এক সিনিয়র ক্রিকেটার নিয়মটি ভঙ্গ করে বিশ্বকাপের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত স্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন। এ নিয়ে তোলপাড় চলছে ভারতীয় ক্রিকেটে

বিশ্বকাপে স্ত্রীর সঙ্গে ১৫ দিনের বেশি থাকা যাবে না, খেলোয়াড়দের জন্য এ নিয়ম বেঁধে দিয়েছিল বিসিসিআই। কিন্তু ভারতীয় দলের এক সিনিয়র ক্রিকেটার নিয়ম ভঙ্গ করে পুরো বিশ্বকাপেই স্ত্রীকে সঙ্গে রেখেছিলেন। সে ক্রিকেটারের নাম জানা না গেলেও বিসিসিআই যে ব্যাপারটিতে বেশ ক্ষুব্ধ, সেটি জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে বিসিসিআইয়ের কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসের (সিওএ) বৈঠকে বলা হয়, ‘বিশ্বকাপে নির্ধারিত সময়ের আগেই স্ত্রীকে সঙ্গে রাখার অনুমতি চেয়েছেন দলের এক খেলোয়াড়।’ সিওএ সেই ক্রিকেটারের অনুরোধ রাখেনি। টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিসিসিআইয়ের নির্দেশের তোয়াক্কা না করে সেই ক্রিকেটার বিশ্বকাপের শুরু থেকে তো বটেই, ১৫ দিনের জায়গায় পুরো টুর্নামেন্টেই স্ত্রীকে সঙ্গে রেখেছিলেন। এমনকি অধিনায়ক ও কোচকেও কিছু জানাননি তিনি। ব্যাপারটি মোটেও ভালো চোখে দেখছেন না ভারতীয় ক্রিকেটের হর্তাকর্তারা।

গত ২১ মে সিওএর বৈঠকে বলা হয়, ‘বিসিসিআইয়ের সংবিধানে ক্রিকেটীয় ও অক্রিকেটীয় ব্যাপারগুলো আলাদা রাখা প্রয়োজন।’ নাম প্রকাশ করা যাবে না, এ শর্তে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে বিসিসিআইয়ের এক সূত্র বলে, ‘৩ মের বৈঠকে যে ক্রিকেটারের আবেদন নাকচ করে দেওয়া হয়েছিল সে ক্রিকেটারই এখন প্রশ্নের মুখে। তিনি বিশ্বকাপে ১৫ দিনের নিয়ম ভেঙেছেন। প্রশ্ন হলো, স্ত্রীর সঙ্গে অতিরিক্ত দিন থাকার জন্য সে ক্রিকেটার যথাযথ কর্তৃপক্ষের—অধিনায়ক ও কোচের অনুমতি নিয়েছিলেন কি না। জবাব হলো “না”।’

সিনিয়র সে ক্রিকেটারের নিয়ম ভাঙার ব্যাপারটি সিওএ পর্যন্ত এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে পৌঁছায়নি। তবে এরই মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে, খেলোয়াড়দের পারিবারিক এ ব্যাপারগুলো বিসিসিআইয়ের প্রশাসন ব্যবস্থাপক সুনীল সুব্রামানিয়ামের অধীনে। এমন কিছু জানার পরও তিনি কেন ভেটো দিলেন না?

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডেরই এক সিনিয়র অফিশিয়াল এ ব্যাপারে বলেন, ‘সুনীল সুব্রামানিয়াম কী করছিল? খেলোয়াড়দের অনুশীলন সেশন পরিচালনা করা তার কাজ না। এ জন্য কোচ, অধিনায়ক ও সাপোর্ট স্টাফ আছে। আশা করি সিওএ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে ব্যবস্থাপকের কাছে কৈফিয়ত চাইবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0