default-image

সর্বশেষ ৮ ওয়ানডেতে চারটি অর্ধশতকসহ করেছেন ৩৪১ রান। নিজের সর্বশেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৮ বলে অপরাজিত ৫২ রান করে জিতেছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার।

অনেকেই তাঁকে মনে করেন ভারতের ভবিষ্যৎ অধিনায়ক। কিন্তু দিল্লি ক্যাপিটালসকে নেতৃত্ব দেওয়া পন্ত অধিনায়কত্বের চাপের কাছেই নিজের স্বাভাবিক খেলা হারিয়ে ফেলছেন কি না, প্রশ্ন উঠেছে তা নিয়েই। ৫ ম্যাচের মাত্র দুটিতে জিতেছে তাঁর দল দিল্লি। সেই দুই ম্যাচে ব্যাট হাতে পন্তের অবদান ২৭ ও ১ রান। অসাধারণ বোলিং করে দুটি ম্যাচেরই ম্যাচসেরা হয়েছেন কুলদীপ যাদব।

default-image

ভারতীয় দলে পন্তের ব্যাটিং দেখে তাদের ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর প্রশংসা করে বলেছিলেন—পরিণত হয়ে উঠছেন ঋষভ পন্ত। সেই পন্তেরই এমন দশা দেখে ভারতের সাবেক কোচ রবি শাস্ত্রী আর চুপ থাকতে পারেননি। পন্তের ‘অসুখ’ ধরে ফেলেছেন তিনি। পন্তকে নেতৃত্বের চাপ চেপে ধরেছে বলেই মনে করেন শাস্ত্রী, ‘আমি দেখতে চাই দিল্লি ঋষভকে তার স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে দিক। সে যে দলের অধিনায়ক তা ভুলে গিয়ে তাকে তাঁর স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে দিতে হবে। দায়িত্ব সবার মাঝে ভাগ করে দিতে হবে। সে ব্যাট হাতে ভালো করলে তার অধিনায়কত্বও ভালো হবে।’

তবে পন্ত শিগগিরই তাঁর আসল রূপে ফিরবেন বলে মনে করেন শাস্ত্রী, ‘ওর ব্যাটিংয়ে কোনো সমস্যা আছে বলে আমার মনে হয় না। ওর শুধু মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে।’ শাস্ত্রী এরপর যোগ করেন, ‘ঋষভ পন্ত ঋষভ পন্তই। সে কখনো দোনোমনা হয়ে খেলে না। সে ঝুঁকিপূর্ণ শট খেলে, সে সুযোগগুলো কাজে লাগায় এবং আপনারাও চান সে এভাবেই খেলুক। কারণ, এটাই ওর সেরাটা বের করে আনে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন