পন্তের হাস্যকর ভুলের পরও পাশেই আছেন পন্টিং

ম্যাচ শেষে ডেভিডের বিপক্ষে রিভিউ না নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন ঋষভ পন্তছবি: টুইটার

ক্যাচ ফেলা, ঠিক সময়ে রিভিউ না নেওয়া আর ভুল রিভিউ নেওয়া—সব মিলিয়ে কাল মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে দলের সবচেয়ে প্রয়োজনের ম্যাচটা খুবই বাজে কেটেছে ঋষভ পন্তের। অনেকেই তাঁর মধ্যে ভারতের ভবিষ্যৎ অধিনায়ককে দেখেন। কেউ কেউ তো মহেন্দ্র সিং ধোনির আদর্শ বিকল্পও মনে করেন পন্তকে। কিন্তু কাল আইপিএলে মুম্বাইয়ের কাছে দিল্লি ক্যাপিটালসের হেরে যাওয়া ম্যাচের পর প্রশ্ন উঠেছে তাঁর নেতৃত্বগুণ নিয়ে।

জিতলেই প্লে-অফ নিশ্চিত, হারলে ছিটকে যেতে হবে টুর্নামেন্ট থেকে—দিল্লি কাল খেলতে নেমেছিল এই সমীকরণ নিয়ে। এমন একটি ম্যাচে ৫ বল হাতে রেখে দিল্লিকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে মুম্বাই। অথচ শার্দুল ঠাকুরের বলে মুম্বাইয়ের ব্যাটসম্যান টিম ডেভিডের বিপক্ষে পন্ত যদি রিভিউ নিতেন, ম্যাচটি ঘুরে যেতে পারত। ম্যাচ শেষে এই প্রসঙ্গ টেনে দিল্লির কোচ রিকি পন্টিংকে প্রশ্ন করা হয়েছিল—আগামী মৌসুমের আইপিএলে পন্ত আর দিল্লির অধিনায়ক থাকবেন কি না।

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক পন্টিং অবশ্য পন্তের পাশেই দাঁড়িয়েছেন। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে পন্টিং বলেছেন, ‘অবশ্যই সে দিল্লির অধিনায়ক থাকবে। গত মৌসুমেও ওকে অধিনায়ক করাটা ছিল সঠিক সিদ্ধান্ত। কাঁধের চোটের কারণে শ্রেয়াস আইয়ার সরে দাঁড়ানোর পর নেতৃত্ব পেয়ে ঋষভ দলের জন্য অসাধারণ কাজ করেছে।’

উইকেটের পেছনে গ্লাভস হাতে পন্ত কাল প্রথম ভুলটা করেন মুম্বাইয়ের ইনিংসের ১২তম ওভারে। কুলদীপ যাদবের পঞ্চম বলে ডেভাল্ড ব্রেভিসের সহজ ক্যাচ ছেড়েছেন তিনি। সেই সময়ে ২৫ রানে থাকা ব্রেভিস পরে আউট হন ৩৩ বলে ৩৭ রানে।

কিন্তু এর চেয়েও বড় ভুল তিনি করেছেন ইনিংসের ১৫তম ওভারে। শার্দুলের ওভারের পঞ্চম বল ছিল অফ স্টাম্পের অনেক বাইরে, সেটি ড্রাইভ করতে গিয়ে পরাস্ত হন ডেভিড। বল তাঁর ব্যাটের কানা ছুঁয়ে যায় পন্তের গ্লাভসে। দিল্লির খেলোয়াড়দের আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। পন্ত অনেকক্ষণ ভাবার পরও রিভিউ নেননি। পরে টিভি রিপ্লেতে দেখা গেছে বলটি ডেভিডের ব্যাটে লেগেছিল। পরে আনরিখ নর্কিয়ার বলে তিলক ভার্মার বিপক্ষে বিনা কারণেই রিভিউ নেন পন্ত।

আরও পড়ুন
অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং
ছবি: টুইটার

ম্যাচ শেষে পন্তের দিকে সমালোচনার তির ছুটে গেছে ডেভিডের বিপক্ষে রিভিউ না নেওয়ার ভুলের জন্য। তাঁর নেতৃত্বগুণ নিয়ে প্রশ্ন তোলা সমালোচকদের উদ্দেশ করে পন্টিং অবশ্য বলেন, ‘সে তরুণ এবং এখনো অধিনায়কত্ব শিখছে। টি-টোয়েন্টিতে একটি দলের নেতৃত্ব দেওয়া এমনিতেই কঠিন। বিশেষ করে, আইপিএলের মতো একটি মহাচাপের টুর্নামেন্টে কোনো দলকে নেতৃত্ব দেওয়া মোটেই সহজ নয়...তার প্রতি আমার পূর্ণ সমর্থন আছে।’

দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক ঋষভ পন্ত
ছবি: আইপিএল

ডেভিডের বিরুদ্ধে রিভিউ না নেওয়ার একটা ব্যাখ্যা ম্যাচ শেষে পন্ত দিয়েছেন এভাবে, ‘আমার মনে হয়েছিল বল ব্যাটের কানা ছুঁয়ে থাকতে পারে। কিন্তু বৃত্তের মধ্যে থাকা সবাই বিষয়টি নিয়ে অতটা নিশ্চিত ছিল না। সব মিলিয়ে আমি রিভিউ নিইনি।’

পন্ত যে ব্যাখ্যাই দিন না কেন, তাঁর ভুলে মুখোমুখি হওয়া প্রথম বলেই ‘জীবন’ পেয়েছেন ডেভিড। আর সেই জীবনের সদ্ব্যবহার তিনি পুরো মাত্রায় করেছেন। জীবন পাওয়ার পর ১১ বলে ২ চার ও ৪ ছক্কায় ৩৪ রান করে মুম্বাইয়ের জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন ডেভিড।