পাঁচবার পাস করলেই তবে উড়াল দিতে পারবেন তাঁরা

বিজ্ঞাপন
default-image

আগামী মাস থেকে আরব আমিরাতে শুরু হবে আইপিএল। ৫৩ দিনের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট সামনে রেখে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। করোনাকালীন এই সময়ে অনুশীলন শুরু করা মানেই সবার আগে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করা। বিষয়টি নিয়ে দলটির কর্তৃপক্ষ এতটাই সতর্ক যে, ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের জন্য আরব আমিরাতের উদ্দেশে রওনা হওয়ার আগ পর্যন্ত ভারতীয় খেলোয়াড়দের পাঁচবার করোনা পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে এবং এর ‘নেগেটিভ’ ফলের ওপরেই নির্ভর করবে বিমানে ওঠার ছাড়পত্র।

এরই মধ্যে টিম হোটেলে যোগ দিতে শুরু করেছেন মুম্বাইয়ের স্থানীয় ক্রিকেটাররা। কিছুদিনের মধ্যে যোগ দেওয়ার কথা ভারতের অন্যান্য প্রদেশের খেলোয়াড়দের। সবাইকে দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ, ‘স্থানীয় খেলোয়াড়রা যোগ দিচ্ছেন এবং তাদের সবাইকে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তারা কেবল করোনা পরীক্ষা করোনোর জন্য রুম থেকে বের হতে পারবেন। রুমের মধ্যেই সব সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে। ভারতের অন্য খেলোয়াড়েরাও শিগগিরই যোগ দেবেন। তাঁদেরও কোয়ারেন্টিন পর্বের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। কোয়ারেন্টিন শেষ হওয়ার পরেই তাঁরা মাঠে অনুশীলনের সুযোগ পাবেন।’

শুধু কোয়ারেন্টিন পর্বের মধ্যেই থাকবে না করোনা সতর্কতামূলক ব্যবস্থা। আরব আমিরাতের বিমানে ওঠার আগ পর্যন্ত প্রত্যেক খেলোয়াড়কে দিতে হবে পাঁচবার করোনা পরীক্ষা। মুম্বাইয়ে আসার আগে নিজ উদ্যোগে দুবার ও ফ্র্যাঞ্চাইজির উদ্যোগে করা হবে আরও তিনবার, ‘আমরা প্রতিটি খেলোয়াড়কে মুম্বাইয়ে আসার আগে দুইবার পরীক্ষা করিয়ে আসতে বলেছি এবং এখানে আসার পর আরও তিনবার পরীক্ষা হবে। আমরা বিশ্বাস করি এটাই যথেষ্ট। এমনও হতে পারে কোনো খেলোয়াড়ের দুবারের জায়গায় একবার করানোর সুযোগ হতে পারে। তবে সব মিলিয়ে খেলোয়াড় ও দলের কোচিং স্টাফদের সব মিলিয়ে পাঁচবার করোনা পরীক্ষার কথা ভেবেছি।’ জানিয়েছে দলীয় কর্তৃপক্ষ।

করোনাভাইরাসের জন্যই দেশের গণ্ডি ছড়িয়ে মরুর দেশে চলে গিয়েছে টুর্নামেন্টটি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে প্রতিটি দলের জন্য দেওয়া হবে নির্দেশনা। তবে বিসিসিআইয়ের নির্দেশনার জন্য বসে নেই মুম্বাই। এরই মধ্যে নিজেদের মতো করে কাজ শুরু করে দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তৃপক্ষ, ‘আমরা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালনা বিধির অপেক্ষায় আছি। যদিও এই অপ্রত্যাশিত খারাপ সময়ে তাদের ওপর চাপ আরও বেশি। দল পরিচালনার ব্যাপারে আমরা নিজেরাও প্রস্তুতি নিয়েছি এবং বোর্ডেরটা পেলে দুইটা মিলিয়ে কাজ শুরু করব।’

মুম্বাই কবে আরব আমিরাতে রওনা হবে, তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে ২১ থেকে ২২ আগস্টে ভারত ছাড়ার ব্যাপারে আশাবাদী তারা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন