বাবর আজম রান পেলেও সেটা টি-টোয়েন্টিসুলভ ছিল না।
বাবর আজম রান পেলেও সেটা টি-টোয়েন্টিসুলভ ছিল না। ছবি: এএফপি

আগের ম্যাচে যে মোহাম্মদ রিজওয়ান বলতে গেলে একাই হারিয়ে দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে, তিনি আজ পেয়েছেন ‘গোল্ডেন ডাক’। ম্যাচের প্রথম বলেই ফিরেছেন জর্জ লিন্ডার বলে এইডেন মার্করামের হাতে ক্যাচ দিয়ে।

যে বাবর আজমের ওপর এ সময়ে সবচেয়ে বেশি ভরসা করে পাকিস্তান, তিনি আজ ভরসার দাম রেখেছেন বটে। তবে পাকিস্তান অধিনায়ক সেটা করতে গিয়ে খেলেছেন ধীরগতির এক ইনিংস। দলের সর্বোচ্চ স্কোর তাঁর, তবে ৫০ বলে ৫০ রান আর যা-ই হোক, টি-টোয়েন্টিতে তো ঠিক মানানসই নয়। অবশ্য বাবরের পক্ষে যুক্তি দেখানো যায়, তিনি ছাড়া পাকিস্তান দলে আর বলার মতো রান করতে পেরেছেন শুধু মোহাম্মদ হাফিজ (৩২)। দুই অঙ্ক পেরোতে পেরেছেন মাত্র চারজন।

এত কিছু মিলিয়ে ফল যা হওয়ার তা-ই হলো। জোহানেসবার্গে আজ চার ম্যাচের সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছে আইপিএলের কারণে দলের মূল অনেক খেলোয়াড়কে না পাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা। পাকিস্তানের দেওয়া ১৪১ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে গেছে ৬ উইকেট হাতে রেখে, তখনো ইনিংসে ওভারও বাকি ছিল ৬টি!

বিজ্ঞাপন
default-image

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টান টান উত্তেজনার ম্যাচে ১ বল হাতে রেখে পাকিস্তান জিতেছিল ৪ উইকেটে। সে ম্যাচে জিতে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম দল হিসেবে ১০০ জয়ের মাইলফলক ছুঁয়েছিল বাবর আজমের দল।

বেশি জয় মানে তো একদিক থেকে ভাবলে টি-টোয়েন্টির সেরা দলই! সেটিই যদি হয়, তবে আজ পাকিস্তানকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে ‘সেরা দলের’ সেই তালিকার তিন নম্বরে উঠে এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। টি-টোয়েন্টিতে এটি দক্ষিণ আফ্রিকার ৭২তম জয়। টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি জয়ের এই তালিকায় ৮৮ জয় নিয়ে পাকিস্তান আর দক্ষিণ আফ্রিকার মাঝে আছে ভারত।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি জয় পাওয়া পাঁচ দল:

টস জিতে আজ আগে ব্যাটিং নিয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু শুরুটা হয়েছে দুঃস্বপ্নের মতো। ইনিংসের ১৭ বলের মধ্যেই ১০ রানে নেই দুই ওপেনার। প্রথম বলে রিজওয়ান ফিরেছেন, তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে শারজিল (৮)। বাবর আর হাফিজ সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই শুরু করেন। ১১তম ওভারের পঞ্চম বলে হাফিজ (২৩ বলে ৩২) আউট হওয়ার আগে তৃতীয় উইকেটে দুজন গড়েন ৫৮ রানের জুটি।

default-image

অন্য প্রান্তে তবু বাবর ছিলেন বলে আশা ছিল। কিন্তু ১৭তম ওভারের মধ্যে উল্টো প্রান্ত থেকে একে একে বিদায় নিলেন হায়দার আলী, ফাহিম আশরাফ ও হাসান আলী। এর মধ্যে হায়দার আর হাসান—দুই আলী হচ্ছেন পাকিস্তান ইনিংসে বাবর-হাফিজের বাইরে দুই অঙ্ক পেরোনো অন্য দুই ব্যাটসম্যান। দুজনই করেছেন ১২ রান।

১৮তম ওভারের পঞ্চম বলে দলকে ১২৮ রানে রেখে যখন বাবরও ফিরে যান, পাকিস্তানের বড় সংগ্রহের আশা সেখানেই শেষ। ৫০ বলে ৫০ রানের ইনিংসে ৫টি চার মেরেছেন পাকিস্তান অধিনায়ক। শেষ পর্যন্ত অলআউট না হলেও ২০ ওভারে পাকিস্তান করে ১৪০ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার লিন্ডা ও লিজাড উইলিয়ামস পেয়েছেন ৩টি করে উইকেট।

আইপিএলের কারণে ওয়ানডে সিরিজের মাঝপথেই ফাফ ডু প্লেসি, কুইন্টন ডি ককদের মতো খেলোয়াড়দের ছেড়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

default-image

কিন্তু ওপেনার এইডেন মার্করাম আর অধিনায়ক হাইনরিখ ক্ল্যাসেন নিশ্চিত করলেন, পাকিস্তানের এই রান পেরোতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তেমন ঘাম ঝরাতে হচ্ছে না। প্রোটিয়াদের হয়ে ৩০ বলে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন এইডেন মার্করাম। অধিনায়ক হাইনরিখ ক্ল্যাসেন অপরাজিত ছিলেন ২১ বলে ৩৬ রান করে।

চার ম্যাচের সিরিজে এখন ১-১ সমতা। সিরিজের পরের ম্যাচ পরশু, সেঞ্চুরিয়নে।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন