দারুণ এক অর্জনের সামনে বাবর।
দারুণ এক অর্জনের সামনে বাবর। ছবি: এএফপি

তাঁর ব্যাটে ফর্ম আছে বেশ ভালোভাবেই। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেই তো টের পাওয়া গেছে। প্রথম ম্যাচে খুব একটা আলো ছড়াতে পারেননি, করেছেন ১৯ রান। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচেই আলো বাবর আজমের ব্যাটে, পাকিস্তানকে ম্যাচ ও সিরিজ জেতানোর পথে সেদিন করেছেন ৭৭। শেষ ম্যাচে তো সেঞ্চুরিই করেছেন। ১২৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেও সেদিন পাকিস্তানকে জেতাতে পারেননি সাদা বলের ক্রিকেটে দলটার অধিনায়ক। ওয়ানডে সিরিজটা পাকিস্তান জেতে ২-১ ব্যবধানে।

রাওয়ালপিন্ডিতে আজ শুরু হয়েছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ওয়ানডে সিরিজের ফর্মটা এই সিরিজেও ধরে রাখতে পারবেন বাবর? তাতে পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা তো বাড়েই, বাবরের নিজেরও একটা লাভ হবে এতে। টি-টোয়েন্টির ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে আবার শীর্ষে ওঠার সুযোগ তৈরি হবে! শীর্ষে উঠতে এই ৩ ম্যাচে যে আর ৯টি পয়েন্ট দরকার বাবরের।

বিজ্ঞাপন

টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে বাবর অবশ্য নিয়মিত নামই। শুধু টি-টোয়েন্টিই কেন? টেস্ট আর ওয়ানডেও মিলিয়ে নিন, তিন সংস্করণেই ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ পাঁচে নাম আছে এমন একজন ক্রিকেটারই আছেন—বাবর আজম। ওয়ানডেতে ভারতের বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মার পর তিনে, আর টেস্টে পাঁচ নম্বরে। সেখানে ২৬ বছর বয়সী পাকিস্তানির ওপরে শুধু স্টিভ স্মিথ, কোহলি, মার্নাস লাবুশেন, কেন উইলিয়ামসন।

টেস্টে পাঁচ, ওয়ানডেতে তিন...টি-টোয়েন্টিতে তাহলে এক হবে বাবরের? হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টির র‍্যাঙ্কিংয়ে দুইয়ে আছেন পাকিস্তানের হয়ে ৪১টি টি-টোয়েন্টিতে ৪৯.৯৩ গড়ে ১ হাজার ৫৪৮ রান করা বাবর। তাঁর ওপরে শুধু ইংল্যান্ডের ডেভিড ম্যালান। বাবরের রেটিং আজকের ম্যাচের আগে ছিল ৮৬৯, ম্যালানের পয়েন্ট ৮ বেশি।

এই ৩ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট পেলে দুই মাস পেরোতে না পেরোতেই আবার টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ফিরবেন বাবর। ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত চার দফায় ৭৭৪ দিন শীর্ষস্থানটা বাবরের দখলে ছিল। গত সেপ্টেম্বরেও ছিল, ম্যালান সেটি বাবরের কাছ থেকে কেড়ে নিয়েছেন সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ২-১ ব্যবধানে জেতা সিরিজের পর।

default-image

ব্যাটিংয়ে বাবর র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ফিরতে চাইবেন, বোলিংয়ে শীর্ষে ফেরা না হলেও কাছাকাছি যেতে চাইবেন ইমাদ ওয়াসিম। বাঁহাতি স্পিনার এই মুহূর্তে আছেন র‍্যাঙ্কিংয়ের আট নম্বরে। তবে ২০১৭ থেকে ২০১৮ সালের শেষ পর্যন্ত বেশ কয়েকবার মিলিয়ে মোট ১৪৬ দিন র‍্যাঙ্কিংয়ে সবার ওপরে ছিলেন ইমাদ।

বাবর-ইমাদের মতো দল হিসেবেও পাকিস্তানের র‍্যাঙ্কিংয়ের গ্রাফ চড়ার সুযোগ এই টুর্নামেন্ট। এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টিতে দলগত র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে আছে অস্ট্রেলিয়া, তাদের পয়েন্ট ২৭৫। এরপরই আছে ইংল্যান্ড (২৭১), ভারত (২৬৬) ও পাকিস্তান (২৬১)।
এত সমীকরণ নিয়ে নামা সিরিজে মাঠে কী হচ্ছে? এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে টস জিতে আগে ব্যাট করেছে জিম্বাবুয়ে। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে করেছে ১৫৬ রান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0