default-image

পাকিস্তানে সময়টা ভালোই উপভোগ করছেন তামিম ইকবাল। উপভোগের সবচেয়ে বড় কারণ অবশ্যই তাঁর দল লাহোর কালান্দার্সের পিএসএলের ফাইনালে ওঠা। দল সাফল্য পেলে আর কী চাই! তবে পাকিস্তানকে তামিমের ভালো লাগছে অন্য কারণেও।

বিজ্ঞাপন

‘ক্রিকেট পাকিস্তান’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশ দলের বাঁহাতি ওপেনার বলেছেন, করোনার কারণে সময়টা এখন অন্য রকম হলেও পাকিস্তান সফর বরাবরই উপভোগ করেন তিনি, ‘পাকিস্তানে আসতে সব সময়ই ভালো লাগে। তবে এখন সময়টা ভিন্ন। জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে হোটেলে থাকতে হচ্ছে, শুধু নির্দিষ্টভাবে কিছু জায়গায় যেতে দেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি উপভোগ করা না গেলেও নিয়ম তো মানতেই হবে। পাকিস্তান চমৎকার একটি দেশ, আমাদের দেশের মতোই এখানে ক্রিকেটের প্রচুর সমর্থক, তারা ক্রিকেট ভালোবাসে।’

প্লে–অফে ক্রিস লিনের বিকল্প হিসেবে তামিমকে নিয়ে এসেছে লাহোর। পেশোয়ার জালমির বিপক্ষে প্রথম এলিমিনেটরে ১ ছক্কা ও ২ চারে ১০ বলে ১৮ রান করেন তামিম।

পরের এলিমিনেটরে ৫ চারে ২০ বলে করেন ৩০ রান। দুই ইনিংসেই তামিমের শুরুটা ছিল আশা–জাগানিয়া। কিন্তু ইনিংস বড় করতে পারেননি।

লাহোরের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘লাহোর খুবই পেশাদার দল, বিশেষ করে এই পিএসএলে খুব ভালো করছে। আশা করি, আমরা শিরোপা জিততে পারব। আমাদের দল খুব ভালো, বিশেষ করে বোলিংয়ে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

করাচিতে আজ পিএসএলের ফাইনালে করাচি কিংসের মুখোমুখি হবে তামিমদের লাহোর। ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায়। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে দর্শকহীন মাঠেই হচ্ছে পিএসএল।

সাক্ষাৎকারে তামিম কথা বলেছেন এই অভিজ্ঞতা নিয়েও, ‘দর্শক ছাড়া খেলার অভিজ্ঞতা অন্য রকম। বাউন্ডারি মারলে কিংবা উইকেট পড়লে হাততালি দেওয়ার কেউ নেই। কিন্তু জীবন এমনই। মানুষের নিরাপত্তার জন্যই এভাবে চলতে হবে। তবে লোকে কিন্তু টেলিভিশনেও খেলা দেখতে পারছে।’

করোনার কারণে এ বছরের শুরুতে টুর্নামেন্টের শেষ পর্যায়ে এসে স্থগিত হয় পিএসএল। লিগ পর্বের খেলা শেষে বাকি ছিল শুধুই প্লে-অফের লড়াই। সেই লড়াই শেষে আজ ফাইনালে নিষ্পত্তি হবে শিরোপার।

তামিম পিএসএল জয়ের স্বাদ পেলে তা দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্যও বয়ে আনবে আনন্দের সংবাদ। ব্যাট হাতে দারুণ কিছু করে তামিমও নিশ্চয়ই চাইবেন ফাইনালে আলোটা কেড়ে নিতে। এবারের পাকিস্তান সফরটা তার জন্য তখন হয়ে উঠবে আরও উপভোগের।

মন্তব্য পড়ুন 0